নদীর জীবন সত্তা ঘোষণা অপরিহার্য: হাইকোর্ট

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

তুরাগ নদী রক্ষায় এক রিটের রায় ঘোষণায় আদালত বলেছেন, ‘নিউজিল্যান্ড আইন পাস করে নদীকে জীবন্ত সত্তা ঘোষণা দিয়েছে, ভারতের আদালত গঙ্গা যমুনাকে জীবন সত্তা ঘোষণা দিয়ে রায় দিয়েছে। তাই নদীকে রক্ষা করতে নদীর জীবন সত্তা ঘোষণা অপরিহার্য।’

বুধবার (৩০ জানুয়ারি) তুরাগ নদী রক্ষায় করা এক রিটের আংশিক রায় ঘোষণায় বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এসব কথা বলেন। বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) এ রায়ের বাকি অংশ আদালতের ঘোষণা করার কথা রয়েছে।

আংশিক রায়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশের নদীগুলো দূষণ ও দখল মুক্ত রাখতে সকলের যথাযথ পদক্ষেপের উপর গুরুত্ব দেন আদালত।

আদালত আরও বলেন, ‘যদি ২০০৯ সালে চারটি বড় নদী রক্ষায় হাইকোর্টের রায় না হতো তবে এখন হয়তো বুড়িগঙ্গার মধ্যে সুউচ্চ ভবন বা তুরাগে বড় হাউজিংয়ের অফিস দেখা যেত।’

একটি জাতীয় ইংরেজি দৈনিকে ‘ঢাকার টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে অবৈধ দখল ও মাটি ভরাট' শীর্ষক সংবাদ প্রকাশিত হলে হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন।

গত ২০১৬ সালের ৯ জানুয়ারি ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দখলকৃত তুরাগ উদ্ধারে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি রুল জারি করেন আদালত। পরে ২০১৭ সালের ৫ জানুয়ারি বিআইডব্লিউটিএ তুরাগ উদ্ধারের পদক্ষেপ বিষয়ে হাইকোর্টে প্রতিবেদন দাখিল করে। এদিন বিচার বিভাগীয় তদন্ত করার জন্য গাজীপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একই বছরের ১১ অক্টোবর আদালতে জরিপ প্রতিবেদন দাখিল করেন চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট। ওই বছরের ১৩ ডিসেম্বর জরিপ অনুসারে তুরাগ নদীর জায়গা উদ্ধারে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

নদীর দখলকৃত ভূমি উচ্ছেদে আদালতের নির্দেশের বিরুদ্ধে কয়েকবার আপিল করলে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগ ২০১৮ সালের ১৪ জানুয়ারি হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করে রুল শুনানির আদেশ দেন।

আপনার মতামত লিখুন :