তিন মাসের মধ্যে ভোক্তা অধিকারের হটলাইন চালুর নির্দেশ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
হাইকোর্ট

হাইকোর্ট

  • Font increase
  • Font Decrease

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণের ২৪ ঘণ্টা সেবা দিতে তিন মাসের মধ্যে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে হটলাইন চালু করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

একই সঙ্গে এ জন্য কোনো প্রকার জটিলতা ছাড়া বাণিজ্য মন্ত্রণালয়সহ অর্থ মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় অর্থের বাজেটের ব্যবস্থা করতে বলেছেন আদালত। এ বিষয়ে ১৫ অক্টোবর আদালতে অগ্রগতি জানাতে হবে ভোক্তা অধিকার অধিদফতরকে।

মঙ্গলবার (২৭ আগস্ট) বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মো. বদরুজ্জামান সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

গত ২০ আগস্ট ভোক্তাদের জরুরি অভিযোগ শুনতে হটলাইন চালুর জন্য ৫০ লাখ টাকা চাওয়ার বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফরের পরিচালককে তলব করেছিলেন হাইকোর্ট। এ তলবে সকাল ১০ টায় হাইকোর্টে আসেন। আদালতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের পক্ষে আইনজীবী কামরুজ্জামান কচি শুনানি করেন। রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান।

গত ১৬ জুন এক আদেশের পর অধিদফতর ৫ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে। ৪ জুলাই করা এ কমিটিতে পরিচালক শামীম আল মামুনকে সভাপতি করা হয়। এরপর ১৪ জুলাই অধিদফতরের মহাপরিচালক (তৎকালীন অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা) মো. হারুন-উজ-জামান ভূঁইয়া বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিবের কাছে হটলাইন চালুর জন্য চিঠি দেন। এতে বলা হয় ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বাজেটে তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি সরঞ্জামাদি খাতে দুই লাখ টাকা মাত্র বরাদ্দ পাওয়া গেছে, যা হটলাইন স্থাপনের ব্যয় নির্বাহের জন্য অপ্রতুল। এ অবস্থায় হটলাইন স্থাপনে ব্যয় নির্বাহে জরুরি ভিত্তিতে ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে অনুরোধ করা হলো।’

গত ৮ মে ভোক্তা অধিকার সংস্থা ‘কনসাস কনজুমার্স সোসাইটি’র (সিসিএস) নির্বাহী পরিচালক পলাশ মাহমুদের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান ওই রিট করেন। গত ১২ মে ওই রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট বাজার থেকে আইনানুসারে এসব পণ্য সরিয়ে নিতে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ ও জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরকে নির্দেশ দেন। এ রিটে তলব আদেশ দেন হাইকোর্ট।

আপনার মতামত লিখুন :