নবম ওয়েজ বোর্ড: স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার চেয়ে নোয়াবের আবেদন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

দেশের সকল সংবাদপত্র ও সংবাদ সংস্থায় কর্মরত সাংবাদিক, কর্মচারী ও শ্রমিকদের বেতন কাঠামো নির্ধারণে গঠিত নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে আপিল বিভাগের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার চেয়ে আবেদন করেছে সংবাদপত্র মালিকদের সংগঠন নিউজ পেপার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (নোয়াব)।

এ আবেদনের ওপর আগামী ২০ অক্টোবর আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির দিন নির্ধারণ করেছেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত।

স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার চেয়ে নোয়াবের করা আবেদনের ওপর শুনানি শেষে সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) আপিল বিভাগের চেম্বার জজ বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী এ আদেশ দেন।

আদালতে নোয়াবের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন ও আইনজীবী মো. ইউসুফ আলী।

এর আগে গত ২০ আগস্ট প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের চার বিচারপতির বেঞ্চ হাইকোর্টের আদেশ আট সপ্তাহ স্থগিত করেন। এতে নবম ওয়েজবোর্ডের প্রজ্ঞাপন প্রকাশের বাধা কাটে। এ সময়ে রাষ্ট্রপক্ষকে লিভ টু আপিল করতে বলা হয়।

তার আগে গত ৬ আগস্ট একটি রিটের প্রাথমিক শুনানি শেষে নবম ওয়েজ বোর্ডের প্রজ্ঞাপন প্রকাশের ওপর দুই মাসের স্থিতাবস্থা জারি করেন বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলী সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের অবকাশকালীন দ্বৈত বেঞ্চ। নোয়াব সভাপতি ও দৈনিক প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান রিট আবেদনটি করেন।

একই সঙ্গে অংশীজনদের (নোয়াব) আপত্তি ও সুপারিশ বিবেচনায় না নেওয়া কেন বেআইনি ও আইনগত কর্তৃত্ব বহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না-তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত। চার সপ্তাহের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, তথ্য সচিব, শ্রম সচিব ও ওয়েজ বোর্ডের চেয়ারম্যানকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়।

হাইকোর্টের এ আদেশ স্থগিত চেয়ে ৮ আগস্ট আবেদন করেন তথ্যসচিব, শ্রমসচিব, নবম ওয়েজ বোর্ডের চেয়ারম্যান, মন্ত্রিসভা কমিটির আহ্বায়ক। পরে চেম্বার জজ আদালত ১৯ আগস্ট শুনানির দিন ধার্য করেন।

আপনার মতামত লিখুন :