Barta24

রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

পর্তুগাল প্রেসক্লাব কমিটির আহ্বায়ক রনি, সদস্য সচিব নাঈম হাসান

পর্তুগাল প্রেসক্লাব কমিটির আহ্বায়ক রনি, সদস্য সচিব নাঈম হাসান
ছবি: বার্তা২৪
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

পর্তুগাল থেকে: পর্তুগালে বাংলাদেশি সংবাদ মাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠিত করার লক্ষ্যে পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে সম্প্রতি গঠন করা হয়েছে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাব আহ্বায়ক কমিটি। স্থানীয় সময় বুধবার লিসবনের ফুড গার্ডেন রেস্টুরেন্টের হল রুমে পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাবের কমিটি গঠনের জন্য পর্তুগাল অবস্থানরত প্রবাসী সাংবাদিক, লেখক ও ব্লগারদের নিয়ে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় রনি মোহাম্মদকে আহ্বায়ক ও নাঈম হাসান পাভেলকে সদস্য সচিব করে সাত সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। আহ্বায়ক কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, জহুরুল হক জহুর, মো: রাসেল আহম্মেদ, জাহিদ হাসান সোহাগ, তৌহিদুল ইসলাম এনি প্রমুখ।

পর্তুগালের অনলাইন পত্রিকা বাংলা পিটি সম্পাদক মাহবুব সুয়েদের সভাপতিত্বে এবং রাসেল আহম্মেদের সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন অল ইউরোপ বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের আহ্বায়ক ফয়সাল আহমেদ দীপ, পর্তুগাল প্রবাসী সাংবাদিক রনি মোহাম্মদ, নজরুল ইসলাম সুমন, এবি সামাদ, জাহিদুল ইসলাম সোহাগ, তৌহিদুর ইসলাম এনি, সুমন আহমেদ, ফখরুল হাসান, মঈন উদ্দিন, মুমিনুল ইসলাম মুমিন ও আশরাফ প্রমুখ।

সভায় উপস্থিত সকলের পরামর্শের ভিত্তিতে পর্তুগালে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের সফলতার সম্ভাবনাময় কর্মক্ষেত্র, ব্যবসা বাণিজ্য এর সঠিক তথ্য চিত্র তুলে ধরার, প্রবাসে ঐক্যবদ্ধ বাংলাদেশ কমিউনিটি গড়ার চেষ্টা এ কমিটি কাজ করবে। এ্রছাড়া, পর্তুগালের বাংলা মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকদের একটি ঐক্যবদ্ধ প্ল্যাটফর্ম তৈরি করাও কমিটির লক্ষ্য থাকবে।

সেই সঙ্গে এই কমিটি আগামী ছয় মাসের মধ্যে সকলের সঙ্গে পরামর্শের ভিত্তিতে পর্তুগালের বিভিন্ন শহরে বসবাসরত বাংলাদেশি মিডিয়ায় কর্মরত বর্তমান ও সাবেক কর্মীদের অংশগ্রহণে একটি পুর্ণাঙ্গ কমিঠি গঠন করার আহবান জানায়।

আপনার মতামত লিখুন :

দিল্লিতে হাসপাতালে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড

দিল্লিতে হাসপাতালে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড
দিল্লিতে হাসপাতালের আগুন, ছবি: সংগৃহীত

ভারতের দিল্লিতে অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সাইন্স (এআইআইএমএস) হাসপাতালে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে। আগুনের কালো ধোঁয়া হাসপাতালের আশেপাশে সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছে। এখনও পর্যন্ত হাসাপাতলটিতে আগুন নেভানর কাজে ফায়ার সার্ভিসের ৩৮টি ইউনিট কাজ করছে। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, শনিবার (১৭ আগস্ট) বিকেল ৫টায় হাসপাতালটিতে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। এখনও পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। 

খবরে আরও জানানো হয়, হাসপাতালের জরুরী বিভাগের পাশে আগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। প্রাথমিকভাবে আগুন লাগার কারণ এখনও জানা যায়নি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/17/1566045678296.jpg

 

এ মূহুর্তে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আগুন নেভানোর কাজ করছে। ইতোমধ্যে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা হাসপাতাল থেকে মানুষকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছেন।

ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মকর্তা জানান, হাসপাতালের প্রথম ও দ্বিতীয় তলায় আগুনের কালো ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়েছে। পিটিআই সংবাদসংস্থা থেকে মোবাইল ফোনে হাসপাতালের কম্পিউটার থেকে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে বলে জানানো হয়।   

এদিকে হাসপাতালটিতে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুণ জেটলি চিকিৎসারত ছিলেন। গত ৯ আগস্ট  তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, তিনি হাসপাতালের যে ভবনে আছেন সেটি নিরাপদ রয়েছে।

রাত সাড়ে ৮টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে বলে ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছে৷

বিদেশি পর্যটকদের মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চল ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা

বিদেশি পর্যটকদের মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চল ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা
মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চল ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা, ছবি: সংগৃহীত

বিদেশি পর্যটকদের মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চল ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। একইসঙ্গে এ অঞ্চলের পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে স্বদেশী নাগরিকদের এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) উত্তরাঞ্চলীয় শান স্টেটে সশস্ত্র বিদ্রোহী জোটের হামলার পরে বিদেশিদের জন্য পাইয়ন ওও লুইন, ন্যাংচো এবং থিবাবের ভ্রমণ বাতিল করতে ট্র্যাভেল এজেন্সিগুলোকে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/17/1566022354804.jpg

 

মিয়ানমার পর্যটন উদ্যোক্তা সমিতির কার্যালয়ের কর্মকর্তা ইউ ময়ো ইয়ে বলেন, ট্র্যাভেল এজেন্সিগুলোকে বলা হয়েছে তারা যেন এখন বিদেশি পর্যটক এদিকে না নিয়ে আসে।

বৃহস্পতিবার মিয়ানমারে বিদ্রোহী গোষ্ঠী একজোট হয়ে আর্মি একাডেমিসহ ছয়টি স্থানে সমন্বিত হামলা চালায়। এটি ভয়াবহ ঘটনা। কারণ এ বিদ্রোহী জোটটি আক্রমণগুলিতে ১০৭ মিলিমিটার রকেট ব্যবহার করেছে বলে নিশ্চিত হয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী। হামলায় সামরিক বেসামরিকসহ কমপক্ষে ১৪ জন নিহত হয়েছেন।

আরাকান আর্মি (এএ), মিয়ানমার ন্যাশনাল ডেমোক্র্যাটিক অ্যালায়েন্স আর্মি এবং তাআং ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মি এক জোট হয়ে এ হামলা চালায়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/17/1566022335753.jpg

 

পর্যটন উদ্যোক্তা সমিতির কার্যালয়ের কর্মকর্তা ইউ ময়ো ইয়ে বলেন, কিছু বিদেশ ভ্রমণকারী ইতোমধ্যে থিবা পৌঁছেছে এবং কিছুদিনের জন্য সেখানে তারা আটকে যেতে পারে। আমরা তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি তবে আমরা জানি না কতজন সেখানে আটকে রয়েছেন। আমরা পর্যটন এজেন্সিগুলোকে সতর্কতা  অবলম্বন এবং ট্যুর বাতিল করতে বলেছি। ট্র্যাভেল এজেন্টদের যে অঞ্চলে  যুদ্ধ চলছে সে এলাকায় যেতে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

পর্যটক নির্দেশক ইউ থান নাইং জানান, বর্ষাকাল হওয়ায় পাইয়ন ওও লুইন, ন্যাংচো এবং থিবাওতে দেশি পর্যটকদের সংখ্যা কম। তবে শুধুমাত্র ইউরোপীয় দেশগুলির পর্যটকরা বর্ষাকালে এই জায়গাগুলি পরিদর্শন করেন। কিন্তু ইতিমধ্যে অনেকে তাদের ভ্রমণ বাতিল করেছেন।

আরও পড়ুন, 

মিয়ানমারে বিদ্রোহী গোষ্ঠী একজোট হয়ে হামলা চালাচ্ছে

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র