‘ভারতীয় আগ্রাসনের জবাব দেবে পাকিস্তান’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
এনএসসির বৈঠক শেষে ইসলামাবাদে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানান পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি (মাঝখানে), ছবি: সংগৃহীত

এনএসসির বৈঠক শেষে ইসলামাবাদে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানান পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি (মাঝখানে), ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ‘জঙ্গি ঘাঁটি’তে ভারতীয় সেনাবাহিনীর হামলার ঘটনায় জাতীয় নিরাপত্তা কমিটির (এনএসসি) জরুরি বৈঠক করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ভারতের দাবি করা কাশ্মীরের জঙ্গি ঘাঁটি ও সেখানে হামলা চালিয়ে ব্যাপক হতাহত হওয়ার বিষয়টি ওই বৈঠকে জোরালোভাবে প্রত্যাখান করা হয়।

মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকের পর এক বিবৃতিতে বলা হয়, ভারতের সরকার আবারো স্বঘোষিত, অবিবেচিত এবং কল্পনাপ্রসূত দাবি করেছে। নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক ফায়দা নিতেই তারা এই হামলা চালিয়েছে। এর মধ্য দিয়ে আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতি মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দিল ভারত।

বিবৃতিতে জানানো হয়, সত্য ঘটনা জানতে হামলার শিকার ওই স্থান বিশ্ববাসীর জন্য উন্মুক্ত রয়েছে। দেশি ও বিদেশি সাংবাদিকদের ঘটনাস্থলে নেওয়া হবে। ভারতের এই আগ্রাসনের জবাব পাকিস্তান নির্ধারিত সময় ও স্থানে দেবে।

ওই বৈঠকে, পাকিস্তানের সশস্ত্র বাহিনী ও জনগণকে সব ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলার প্রস্তুতি গ্রহণে নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

বিবৃতিতে জানানো হয়, ভারতের দায়িত্বহীন নীতি প্রকাশ করতে বিশ্বনেতাদের সাথে আলোচনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী। ভারতীয় প্রচেষ্টা প্রতিহত করতে পাকিস্তানি বিমান বাহিনীকে যথাসময়ে উপযুক্ত জবাব দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

বুধবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) পাকিস্তানের ন্যাশনাল কমান্ড অথরিটিরও (এনসিএ) বিশেষ বৈঠক ডেকেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

উল্লেখ্য, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরে পুলওয়ামায় ভারতের কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশ বাহিনীর (সিআরপিএফ) সদস্যদের উপর জঙ্গি হামলায় ৪৯ জন সেনা নিহত হন। এর বদলা নিতে মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ভোররাতে নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের ‘জঙ্গি ঘাঁটি’তে হামলা চালায় ভারত। এতে স্থানীয় মুজফফরাবাদ সেক্টরের সকল ‘জঙ্গি ঘাঁটি’ ভারতীয় বায়ুসেনা সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়েছে বলে দেশটির গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ করা হয়। খবরগুলোতে বলা হয়, হামলায় এক হাজার কেজি বোমা বর্ষণ করে ২০০ থেকে ৩০০ জঙ্গিকে হত্যা করেছে ভারতীয় বায়ুসেনা।

সূত্র: ডন

আপনার মতামত লিখুন :