Alexa

ভুয়া পাসপোর্ট-ভিসার চক্র 'বাংরাজ' মালয়েশিয়ায় আটক

ভুয়া পাসপোর্ট-ভিসার চক্র 'বাংরাজ' মালয়েশিয়ায় আটক

ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশি পাসপোর্ট এবং মালয়েশিয়ার টেম্পোরারি এমপ্লয়মেন্ট ভিসার জাল কপি তৈরির দুটি বাংলাদেশি চক্রকে আটক করেছে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ। এর মধ্যে বাংরাজ ছাড়াও আরেকটি চক্র গত ৫-৬ বছর ধরে মালয়েশিয়ায় এই অবৈধ ব্যবসা করে আসছিল।

শুক্রবার (৮ মার্চ) ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক খায়রুল ডিজাইমি দাউদ বলেন, গত সপ্তাহে দেশের বিভিন্ন স্থানে এই দু’টি চক্রকে ধরতে জোর অভিযান পরিচালিত হয়। গত মঙ্গলবার (৫ মার্চ) কুয়ালালামপুরের আমপাংয়ে এক অভিযানে আটজন বাংলাদেশিকে আটক করা হয়। এই চক্রটি বাংরাজ নামে পরিচিত ছিল। গত তিন বছরেরও বেশি সময় ধরে জাল ভিসার ব্যবসা করে আসছিল তারা।

তিনি জানান, আমরা ১১০টি বাংলাদেশি পাসপোর্ট জব্দ করি। তার মধ্যে তিনটি ছিল জাল পাসপোর্ট। এছাড়া ল্যাপটপ ও প্রিন্টারসহ আরো কিছু কাগজপত্র জব্দ করা হয়।

এরপর বুধবার (৬ মার্চ) সুবাংজায়াতে আরেকটি অভিযানে ১০ জনের একটি চক্রকে আটক করা হয়। এর মধ্যে মালয়েশিয়ার একজন ছাড়া বাকি সকলেই বাংলাদেশি। এই চক্রের কাছ থেকে ১০৪০টি পাসপোর্ট জব্দ করা হয়। যেগুলোর বেশিরভাগই বাংলাদেশি পাসপোর্ট। এই চক্রটি গত ৫-৬ বছর ধরে অবৈধ কাজ করছিলে বলে জানান দাতুক খায়রুল ডিজাইমি দাউদ। নিজ দেশিদের কাছ থেকে এই অবৈধ ভিসা তৈরি করতে তিন হাজার রিঙ্গিত বা ৬৩ হাজার টাকা চার্জ করতো ওই সিন্ডেকেট৷

তিনি জানান, এই ধরনের অপরাধের সঙ্গে যুক্তদের বিরুদ্ধে আরও কঠোর ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে দেশটির সরকার। অপরাধীদের অভিবাসন অ্যাক্ট ১৯৫৯/৬৩ এর ৫৫ডি ধারার অধীনে বিচারের আওতায় আনা হয়েছে। যার শাস্তি ৩০ হাজার রিঙ্গিতের কম জরিমানা নয়। এছাড়া কমপক্ষে পাঁচ বছরের জেল এবং সর্বোচ্চ ছয়টি বেত্রাঘাত।

আপনার মতামত লিখুন :