Barta24

সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

মালয়েশিয়ায় ভাইরাল বাংলাদেশি তরুণের চোখ

মালয়েশিয়ায় ভাইরাল বাংলাদেশি তরুণের চোখ
মালয়েশিয়ান ফটোগ্রাফারের তোলা নাম না জানা বাংলাদেশি তরুণের ভাইরাল হওয়া ছবি/ ছবি: সংগৃহীত
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

মালয়েশিয়ার মনোরেইল সাইটে কাজ করা একজন বাংলাদেশি শ্রমিকের আশ্চর্য সুন্দর চোখ সেই দেশের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। আবেদেন মুং নামে একজন ফ্রি-ল্যান্স ফটোগ্রাফার তার টুইট একাউন্টে ছবিটি পোস্ট করেন।

ঐ শ্রমিকের নাম জানেন না মুং। তবে তার কাটা-কাটা চোখের নিঁখুত চাহনি এক অসাধারণ সুন্দর পোর্ট্রেটের সৃষ্টি করেছে। 

এখন পর্যন্ত প্রায় ৩০ হাজার বার রিটুইট হয়েছে টুইটারের পোস্টটি এবং প্রায় ৭০ হাজার লাইক পেয়েছে। টুইটে মুং ছবিটি তোলার গল্পও শেয়ার করেছেন। 

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/25/1553529196669.jpg

তিনি বলেন, 'প্রতিদিন আমি জালান ইপোহ্ এর যে স্থানে সকালের নাস্তা করি, সেখানেই একটি স্থানে এমআরটির নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন ঐ বাংলাদেশি। আমি সেখানে একটি ভিডিও ব্লগের কাজ করার সময় প্রথম তাকে দেখি। আমি সেদিন আর তার ছবি নিতে পারিনি, কারণ আমি ভিডিও চিত্রে ব্যস্ত ছিলাম। পরের দিন সকালে আবারো তাকে একই স্থানে পাই।'

মুংয়ের তখনই মনে হয়, এই ধরণের চোখের রং এর আগে দেখা যায়নি। অবশ্যই একটি স্থির ছবি তোলা প্রয়োজন। তবে ঐ শ্রমিক খুবই লজ্জা পাচ্ছিলেন এবং বার বার এমআরটি'র রানওয়ের দিকে তাকাচ্ছিলেন।

মুং বলেন, 'তিনি খুবই লজ্জিত ছিলেন এবং বুঝতে পারছিলেন না, কোনদিকে তাকাবেন। কেননা আমি একটি মোবাইলে ছবি তুলছিলাম। বার বার ক্যামেরায় তাকাতে বলছিলাম, তবে সোজাসুজি লেন্সে না তাকানো পর্যন্ত সঠিক ছবিটি পাওয়া যাচ্ছিল না। তিনি ঘামতে শুরু করেছিলেন।'

মুং লিখেছেন, 'অবশেষে আমি তার চোখের ছবি তুলতে পেরেছি। এটা কি সুন্দর নয়?'

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/25/1553529213956.jpg

ছবিটি টুইট করার পর অনেকেই মুংকে অনুরোধ করেছেন ঐ বাংলাদেশি শ্রমিককে আবারো খুঁজে বের করতে এবং আরও সঠিকভাবে তার চোখের ছবি তুলতে।

টুইটে বেশিরভাগ মানুষই ঐ বাংলাদেশি শ্রমিকের চোখ জোড়ার প্রশংসা করেছেন। অনেকেই তাকে মডেলিংয়ে প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন। আবার কিছু মানুষ একজন অভিবাসী শ্রমিককে ব্যাঙ্গাত্মক ভাষায় মন্তব্য করেছেন। তবে মুং তাদের এক হাত নিয়ে বলেছেন, 'আরেকজনের সম্পর্কে মন্তব্য করার আগে নিজেকে আয়নায় দেখে নিন।'

আপনার মতামত লিখুন :

আফগানিস্তানে বিয়ের অনুষ্ঠানে বোমা হামলায় নিহত ৬৩

আফগানিস্তানে বিয়ের অনুষ্ঠানে বোমা হামলায় নিহত ৬৩
ছবি: সংগৃহীত

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৬৩ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ১৮০ জনের বেশি মানুষ আহত হয়েছেন।

রোববার (১৮ আগস্ট) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

খবরে বলা হয়, শহরের পশ্চিমে পাশে শিয়া মুসলিমদের ঘন বসতিপূর্ণ একটি এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/18/1566111715635.jpg

 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার (১৭ আগস্ট) বিয়ের অনুষ্ঠানে রাত ১০টা ৪০ মিনিটে এ আত্মঘাতী বোমা হামলার ঘটনা ঘটে।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বরাতে নুসরাত রাহিমি বলেন, হামলাকারী অতিথিদের মধ্যে লক্ষ্য করে বোমা হামলা করেন। তবে অনুষ্ঠানে পুরুষ এবং মহিলাদের আলাদা বসার ব্যবস্থা ছিল। পুরুষ কক্ষের দিকে লক্ষ্যে করে বোমা হামলা করা হয়। এর ফলে প্রায় সব পুরুষ নিহত হয়েছেন। পাশাপাশি মহিলা ও শিশু আহতদের সংখ্যাও বাড়তে পারে। 

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/18/1566111770833.jpg 

 

এদিকে এ হামলার দায় অস্বীকার করেছে দেশটির তালেবান জঙ্গিগোষ্ঠী।

দেশটির জঙ্গিসংগঠক ইসলামিক স্টেট গ্রুপও এ হামলার দায় অস্বীকার করে বলেন, 'আমরা এমন কোনো বোমা হামলার সঙ্গে জড়িত ছিলাম না।'

এদিকে শুক্রবার (১৫ আগস্ট) পাকিস্তানের কোয়েটা শহরের কাছে একটি মসজিদে পেতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে তালেবান নেতা হাইবাতুল্লাহ নিহত হন। তার একদিন পর আফগানিস্তানে এ হামলা করা হয়।

 

স্যান্ডউইচ দিতে দেরি, ওয়েটারকে গুলি করলেন ক্রেতা

স্যান্ডউইচ দিতে দেরি, ওয়েটারকে গুলি করলেন ক্রেতা
প্যারিসের উপকণ্ঠের একটি রেস্তোরাঁ/ ছবি: সংগৃহীত

ফ্রান্সের প্যারিস শহরের উপকণ্ঠে এক রেস্তোরাঁয় স্যান্ডউইচ পরিবেশন করতে দেরি করায় রেস্তোরাঁর এক কর্মীকে (ওয়েটার) গুলি করে হত্যা করেছেন এক গ্রাহক।

ঘটনার তদন্ত সংশ্লিষ্টরা শনিবার (১৭ আগস্ট) বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানান, স্যান্ডউইচ দিতে দিতে দেরি করায় রেগে গিয়ে ঐ গ্রাহক রেস্তোরাঁর কর্মীকে গুলি করেন।

সূত্র জানায়, প্যারিসের পূর্বে শহরতলীর নয়েজি-লে-গ্রান্ডে শুক্রবার রাতে এই ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত গ্রাহক ঐ ওয়েটারের কাঁধে গুলি করেন। গুলির ঘটনার পর রেস্তোরাঁর অন্য কর্মীরা পুলিশে খবর দেন।

এরই মধ্যে গুলিবিদ্ধ ওয়েটারকে বাঁচানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন তার সহকর্মীরা। কিছুক্ষণ পর ঐ রেস্তোরাঁয় মারা যান ঐ ওয়েটার।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, অস্ত্রধারী ঐ ব্যক্তি ওয়েটারকে একটি স্যান্ডউইচ আনতে বলেছিলেন। কিন্তু ওয়েটার স্যান্ডউইচ পরিবেশন করতে দেরি করায় চরমভাবে ক্ষিপ্ত হন অস্ত্রধারী ব্যক্তি। এক পর্যায়ে ওয়েটারকে গুলি করে পালিয়ে যান তিনি।

স্থানীয় পুলিশ বার্তা সংস্থা এএফপি-কে জানায়, এই ঘটনায় তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। যদিও শনিবার পর্যন্ত ঐ অস্ত্রধারী ব্যক্তিকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

গুলির ঘটনার পর আশেপাশের মানুষজন রেস্তোরাঁয় ভিড় জমান। সকলের চোখে-মুখে বিস্ময় ছিল যে, একটি স্যান্ডউইচের জন্য ওয়েটারকে কেউ গুলি করতে পারে? কেউ বিশ্বাস করতে পারছিলেন না।

প্রত্যক্ষদর্শী এক নারী জানান, রেস্তোরাঁটিতে সব সময় সুনশান নীরবতা বিরাজ করত। কোনো সমস্যা ছিল না। মাত্র কয়েক মাস আগে রেস্তোরাঁটি খুলেছিল।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র