Alexa

মেয়াদোত্তীর্ণ ভিসা নিয়ে ভারতে বাংলাদেশি অভিনেতা গাজী নুর

মেয়াদোত্তীর্ণ ভিসা নিয়ে ভারতে বাংলাদেশি অভিনেতা গাজী নুর

বাংলাদেশি অভিনেতা গাজী আবদুন নুর/ ছবি: সংগৃহীত

অভিনয় করার ভিসা (ওয়ার্কিং ভিসা) নিয়ে ভারতে গিয়ে রাজনৈতিক প্রচারে সম্পৃক্ত হওয়ায় নির্বাচন কমিশনের নজরে ছিলেন জি-বাংলার 'করুণাময়ী রাণী রাসমণি' সিরিয়ালের অভিনেতা বাংলাদেশি গাজী আবদুন নুর। অভিনেতা ফেরদৌসের পাশাপাশি একই ধরণের ভিসা নিয়ে ভারতে এসেছিলেন নুর। সেই তথ্য জমা পড়েছিল ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে।

এরপর বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানা গেছে, শুধু রাজনৈতিক প্রচার নয়, অভিনেতা গাজী নুরের বৈধ ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও তিনি বেআইনিভাবে ভারতে অবস্থান করছেন।

এর আগে কলকাতায় তৃণমূল কংগ্রেসের এক নেতার সঙ্গে প্রচার মিছিলে দেখা গিয়েছিল নুরকে। জি-বাংলার রাণী রাসমণির স্বামীর ভূমিকায় অভিনয় করে ইতোমধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছেন গাজী আবদুন নুর। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, দমদমে তৃণমূলে প্রার্থী সৌগত রায়ের হয়ে প্রচারণায় অংশ নেন এই বাংলাদেশি অভিনেতা।

যদিও নুর জানিয়েছিলেন তিনি তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা পশ্চিমবঙ্গের সাবেক মন্ত্রী মদন মিত্রকে একটি জিনিস দিতে গিয়েছিলেন। তিনি জানতেন না সেখানে ভোটের প্রচার হচ্ছে। মদন মিত্র সেই একই কথা জানিয়েছিলেন।

এর আগে রাজনৈতিক প্রচারে সম্পৃক্ত হয়ে পড়ায় ভারত ছাড়তে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল নায়ক ফেরদৌসকে।

নুরের ভিসা কতো দিন আগে মেয়াদোত্তীর্ণ হয়েছে সেই তথ্য জানা যায়নি। ভারতের নিয়ম অনুসারে অবৈধভাবে বসবাস করলে সেই ব্যক্তিকে জরিমানা দিয়ে দেশ ছাড়তে হয়। বিষয়টি বাংলাদেশ হাইকমিশনকে জানিয়েছে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। 

গাজী নুরের কোনো জরিমানা হবে কিনা তা জানা যায়নি। ফেরদৌসের পর গাজী নুরকে নিয়ে ভারতের সংবাদ মাধ্যমে ইতোমধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে। ফলে আলোচনা শুরু হয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যেও। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একটি অংশের ধারনা, এই বিষয়টি পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে যথেষ্ট প্রভাব বিস্তার করতে চলছে। এর জন্য বাড়তি সুযোগ পেতে পারে বিজেপি। 

ভারতীয় রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, খুব স্বাভাবিকভাবে বিদেশি সেলিব্রেটিদের এই ধরণের প্রবণতা তৃণমূলের বিরোধীদলগুলোকে রসদ জোগাবে। শুধু তাই নয়, বেআইনিভাবে পূর্ব ভারত তথা পশ্চিমবঙ্গে বসবাস ও অনুপ্রবেশের যে বিষয়টি বিজেপি প্রায়ই অভিযোগ করে থাকে, সেই অভিযোগের পালেও নতুনভাবে হাওয়া যোগাবে।

আপনার মতামত লিখুন :