Alexa

বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে সহবাস ধর্ষণ নয়: ভারত সুপ্রিম কোর্ট

বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে সহবাস ধর্ষণ নয়: ভারত সুপ্রিম কোর্ট

ছবি: সংগৃহীত

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কেউ যদি সহবাস করে সেটাকে ধর্ষণ বলে গণ্য করা হবে না। যদি বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করে পরবর্তীতে বিয়ে না করে সেক্ষেত্রে প্রতারণা বলা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট।

এক্ষেত্রে কোর্টের যুক্তি হলো, বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে সহবাস নারী-পুরুষ দুজনের সম্মতিতে হয়ে থাকে। কিন্তু ধর্ষণ সব সময়ই ভিকটিমের অমতে হয়।

শনিবার (২০ এপ্রিল) বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে সহবাসে জড়িয়ে প্রতারণার শিকার হওয়া এক তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে এ রায় দেন সুপ্রিম কোর্ট।

কলকাতা ভিত্তিক দৈনিক আজকালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০০৯ সালে ফার্মেসিতে পড়ুয়া ওই তরুণী এক চিকিৎসকের সাথে ভালবাসার সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। পরবর্তীতে তারা বেশ কয়েকবার শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। এতে চিকিৎসক প্রেমিক ওই তরুণীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতিও দেন।

কিন্তু পরবর্তীতে ওই তরুণী জানতে পারেন তার প্রেমিক আরেকজনকে বিয়ে করেছেন। এই বিষয়ের মীমাংসার জন্য তিনি আদালতের দ্বারস্থ হন। ওই চিকিৎসকের নামে ধর্ষণ মামলা করেন।

এই মামলায় আদালতে অনেক তর্ক বিতর্ক শেষে আদালত রায় দেন, ধর্ষণে কখনো ধর্ষিতার মত নেয়া হয় না। কিন্তু বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে যে কেউই সহবাস করতে পারেন। এতে যদি পরে বিয়ে নাও করে তাহলে সেটা প্রতারণা কিংবা মিথ্যাচার বলে গণ্য হবে কিন্তু ধর্ষণ হিসেবে নয়।

আপনার মতামত লিখুন :