Barta24

মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

মিয়ানমার সেনাদের সাহায্য প্রত্যাহারের আহ্বান জাতিসংঘের

মিয়ানমার সেনাদের সাহায্য প্রত্যাহারের আহ্বান জাতিসংঘের
ছবি: সংগৃহীত
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

মিয়ানমার সেনাবাহিনীকে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সব ধরনের সহযোগিতা এখনই বন্ধ করা দরকার বলে মত দিয়েছে জাতিসংঘ। মিয়ানমারের কমান্ডাররা মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ ও গণহত্যার জন্য দায়ী উল্লেখ করে মিয়ানমারে একটি ‘ফ্যাক্ট-ফাইন্ডিং মিশন শেষে জাতিসংঘের পরিদর্শক দল এক বিবৃতিতে এ মন্তব্য করে।

বিবৃতিতে তারা আরও বলেন, সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের রক্ষার্থে তাদের কোনো অগ্রগতি ছিল না। যাদের প্রায় ১০ লাখ ইতোমধ্যেই রাখাইন রাজ্যে হওয়া জাতিগত নিধনে দেশ ত্যাগ করেছেন। জাতিসংঘের স্বাধীন ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশনের সভাপতি মারজুকি দারুসম্যান বলেন, পরিস্থিতি একদম স্থবির হয়ে আছে।

বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ রোহিঙ্গাশূন্য গ্রামগুলো ধ্বংস করছে, নৃশংসতার অপরাধমূলক প্রমাণগুলোও মুছে ফেলছে। প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার মানুষ সামরিক ভীতির জুজুতে আক্রান্ত।

দারুসম্যান বলেন, সেখানে থেকে যাওয়া রোহিঙ্গাদের প্রকৃত উন্নতির জন্য সেখানকার কর্তৃপক্ষের নজর দেওয়া উচিত।

২০১৭ সালে ৭ লাখ ৩০ হাজার মানুষ মিয়ানমার থেকে পালিয়ে দেশ ত্যাগ করে। এসময় দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর হত্যা, গণধর্ষণ, অগ্নিসংযোগসহ নানা অভিযোগ উঠে। এখন প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা নির্বাসনে আছেন।

সূত্র: গার্ডিয়ান।

 

আপনার মতামত লিখুন :

মুম্বাইয়ে ভবন ধসে নিহত ২, ধ্বংসস্তূপের নিচে বহু মানুষ

মুম্বাইয়ে ভবন ধসে নিহত ২, ধ্বংসস্তূপের নিচে বহু মানুষ
মুম্বাইয়ে ধসে পড়েছে একটি চারতলা ভবন

ভারতের মুম্বাইয়ে চারতলা একটি ভবন ধসে পড়েছে। উদ্ধারকারীরা দুই ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছেন। অন্তত ৪০ থেকে ৫০ জন মানুষ ধ্বংসাবশেষের নিচে আটকে পড়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বাইয়ের জনবহুল এলাকা ডোঙ্গরির খুব কাছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ভারতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বাহিনী (এনডিআরএফ) উদ্ধার কাজ শুরু করেছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে অ্যাম্বুলেন্স ও দমকল বাহিনীর গাড়ি।

উদ্ধারকর্মীরা ২ জনের মৃতদেহ ছাড়াও পাঁচজনকে জীবিত উদ্ধার করেছে বলে এনডিটিভি’র খবরে জানা গেছে।

সূত্র: এনডিটিভি

আকাশপথ খুলে দিল পাকিস্তান

আকাশপথ খুলে দিল পাকিস্তান
ছবি: সংগৃহীত

বালাকোট বিমান হামলার পর বন্ধ করে দেওয়া আকাশপথ সব রকম বেসামরিক প্লেন চলাচলের জন্য খুলে দিয়েছে পাকিস্তান।

পাকিস্তান নিজেদের আকাশসীমা খুলে দেওয়ায় ভারতীয় আকাশসীমায় পাকিস্তানি এয়ারলাইন্সের প্লেনের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে ভারতও।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে যুদ্ধ পরিস্থিতিতে বন্ধ করে দেওয়ার প্রায় ৫ মাসের মাথায় মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) বেসামরিক প্লেন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয় বলে জানিয়েছে পাকিস্তান সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ (পিসিএএ)।

পিসিএএ’র জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়— সব রকম বেসামরিক প্লেন চলাচলের জন্য এই মুহূর্ত থেকে পাকিস্তানের আকাশপথ খুলে দেওয়া হলো।

যদিও এর আগে পাকিস্তান সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, যতদিন না ভারত তাদের সীমান্তবর্তী এয়ারবেস থেকে সব ফাইটার জেট সরাচ্ছে ততদিন বন্ধ থাকবে পাকিস্তানের আকাশসীমা।

এপ্রিল মাসের মাঝামাঝি সময়ে ১১টির মধ্যে মাত্র একটি রুট পাকিস্তান খুলে দিয়েছিল ভারত থেকে পশ্চিমে যাওয়া ফ্লাইটের জন্য। ওই পথেই যাওয়া আসা করছিল এয়ার ইন্ডিয়া ও টার্কিশ এয়ারলাইন্সের প্লেনগুলো।

মঙ্গলবার পাকিস্তান তাদের আকাশসীমা খুলে দিলে ভারতীও নিজেদের আকাশসীমায় পাকিস্তানি এয়ারলাইন্সের প্লেনের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেয়।

সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, পাকিস্তান আকাশসীমায় নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ভারতও পরিবর্তিত নির্দেশে তাদের আকাশসীমা খুলে দিয়েছে।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র