Barta24

শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৪ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

চীনের প্রত্যর্পণ বিলের প্রতিবাদে নতুন ‘আমব্রেলা মুভমেন্ট’

চীনের প্রত্যর্পণ বিলের প্রতিবাদে নতুন ‘আমব্রেলা মুভমেন্ট’
প্রত্যর্পণ বিলের প্রতিবাদে হংকংয়ের রাস্তায় হাজারো মানুষ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

চীনের প্রস্তাবিত প্রত্যর্পণ বিলের বিরুদ্ধে হংকংয়ের রাস্তায় সমবেত হয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন হাজারো বিক্ষোভকারী। ধারণা করা হচ্ছে, ২০১৪ সালের আমব্রেলা মুভমেন্টের চেয়েও বড় আকার ধারণ করতে পারে এই আন্দোলন।

ছাত্র-শিক্ষক, ব্যবসায়ী, আইনজীবীসহ সর্বস্তরের মানুষ আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন। আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম জানায়, হংকংয়ের নেতা ক্যারি লাম জুলাই মাসেরর আগে প্রত্যর্পণ বিলটি পাশ করার জন্য সরকারকে চাপ দেন। তার সমর্থকরা বলছেন, বিলটিতে রাজনৈতিক কিংবা ধর্মীয় নিপীড়ন প্রতিরোধের জন্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে।

অন্যদিকে বিক্ষোভকারীরা বলছেন, এটাই হংকংয়ের শেষ খেলা। এটি জীবন-মৃত্যুর শামিল। এটি একটি মন্দ আইন।

বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থী ইভান ওং বলেন, গণতন্ত্রের কণ্ঠ আর শোনা যাচ্ছে না। এই বিল আন্তর্জাতিক আমাদের দেশের ভাবমূর্তিকে নষ্ট করবে, পাশাপাশি বিচার ব্যবস্থাকেও প্রভাবিত করবে।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/09/1560098468758.jpg
হংকং চীনের বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চল হিসেবে বিবেচিত হলেও ২০৪৭ সাল অবধি অঞ্চলটির স্বায়ত্তশাসনের নিশ্চয়তা দিয়েছে চীন। ১৯৯৭ সালে হংকংয়কে চীনের কাছে ফেরত দেওয়া হয়েছিলো। গতবছরের এক ঘটনার প্রেক্ষিতে প্রস্তাবিত বিলটি তৈরি করা হয়৷

২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে তাইওয়ানে ঘুরতে গিয়ে ২০ বছর বয়সী এক নারী তার প্রেমিকের দ্বারা নিহত হন। গর্ভবতী অবস্থায় তাকে কুপিয়ে হত্যা করে হংকংয়ে পালিয়ে যান ঘাতক। তাইওয়ানের কর্মকর্তারা অভিযুক্ত ব্যক্তিকে কতৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করতে বলেন। হংকং প্রত্যর্পণ চুক্তির কারণে সেটি করতে অস্বীকৃতি জানায়। পরবর্তীতে তাইওয়ান সরকার প্রত্যর্পণ চুক্তির মাধ্যমে না গিয়ে হংকং-কে পৃথকভাবে মামলা পরিচালনা করার জন্য বলে।

সরকার এক বিবতিতে জানায়, তাইওয়ানে সংঘটিত ওই হত্যাকাণ্ড প্রমাণ করে যেকোন সময় যেকোন স্থানে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। আইনের ত্রুটিগুলো আমরা দ্রুতই সমাধানের চেষ্টা করছি।

আপনার মতামত লিখুন :

তুরস্কে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৫, বাংলাদেশি থাকার আশঙ্কা

তুরস্কে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৫, বাংলাদেশি থাকার আশঙ্কা
তুরস্কে বাস দুর্ঘটনা

দক্ষিণ পূর্ব তুরস্কে এক মিনিবাস দুর্ঘটনায় অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছেন এবং প্রায় ২০ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। এই অবৈধ অভিবাসীদের মধ্যে বাংলাদেশি নাগরিক থাকার সম্ভাবনাও রয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

তার্কিশ টিভি চ্যানেল এনটিভি'র এক ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, তুরস্কের ভ্যান প্রদেশে এই দুর্ঘটনা ঘটে। পথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি গড়িয়ে একটি খাদে যেয়ে পড়ে।  আহতরা রাস্তার পাশে পড়ে আছে।

এনটিভি জানিয়েছে, বাসটি খাদে পড়ার আগেই কয়েকজন যাত্রী বাস থেকে ঝুলে পড়েন। বাসটির গন্তব্য এবং অভিবাসীদের জাতীয়তা সর্ম্পকে এখনো কিছু জানা যায়নি। ভ্যান প্রদেশের গভর্নর মেহমেত এমিন বিলমেজ এনটিভিকে বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, বাসে থাকা যাত্রীরা আফগান, পাকিস্তানি এবং বাংলাদেশি।

 

জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিওতে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২৬

জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিওতে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২৬
জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিওতে আগুন/ছবি: বিবিসি

জাপানের কিয়োটো শহরের একটি অ্যানিমেশন স্টুডিওতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২৬ জন নিহত হয়েছেন। উদ্ধারকৃত ১২ জন আহত এবং ৩০ জনের বেশি নিখোঁজ রয়েছে। 

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) সকালে কিয়োটোর একটি অ্যানিমেশন স্টুডিওর তিনতলা  ভবনে আগুন লাগে।

পুলিশ জানায়, ঘটনার সময় স্টুডিওতে লক্ষ্য করে এক ব্যক্তি তরল দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপ করে। পরবর্তীতে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

পুলিশ ইতোমধ্যে একজনকে গ্রেফতার করেছে। সন্দেহভাজনের  নাম এখনও  প্রকাশ করা হয়নি।

ফায়ার সার্ভিস কতৃপক্ষ জানায়, তিনতলার প্রতিটি কক্ষই আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আহতদের হাসপাতলে নেওয়া হয়েছে।   উদ্ধারকাজ অব্যাহত রয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র