Barta24

শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৪ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

রাশিয়ায় শিল্পীদের ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ

রাশিয়ায় শিল্পীদের ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ
ছবি: সংগৃহীত
আন্তর্জাতিক ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

সমসাময়িক রাশিয়ায় বিতর্কিত বিভিন্ন ঘটনা, মানবাধিকার লঙ্ঘন, নারী নির্যাতন ও দুর্নীতির প্রতিবাদ জানিয়েছেন দেশটির শিল্পীরা। তবে কোনো স্লোগান বা নাশকতা করে নয়, প্রতিবাদের মাধ্যম হিসেবে তারা বেছে নিয়েছিলেন প্রতীকী চিত্রকর্ম।

সম্প্রতি রাশিয়ায় সরকার এ ধরনের শিল্পকে আর গ্রহণ করছে না বলে অভিযোগ দেশটির শিল্পীদের। প্রতিবাদ করতে গিয়ে নির্যাতন কিংবা হয়রানির স্বীকারও হয়েছেন তারা। এমনকি কারাভোগও করতে হয়েছে অনেককে। শুধু তাই নয়, কেউ কেউ দেশ ছাড়তেও বাধ্য হচ্ছেন।

গত বছর মে মাসে ‘মনস্ট্রেশন’ নামে তারা একটি র‍্যালি বের করে। পায়ে শিকল, গায়ে কালো পোশাক এবং মুখোশ পড়ে প্লাকার্ড হাতে নিয়ে রাস্তায় নামেন তারা। সেই প্রতিবাদে স্লোগান ছিল- ‘এসবের কোনো মানে নেই’। প্রতিবাদ র‍্যালিটি বিশ্বব্যাপী বেশ আলোচনার জন্ম দেয়।

Protest in Russia

নারীদের ওপর অত্যাচার ও নিপীড়ন বন্ধের দাবিতে রাজধানী মস্কোতে প্রতিবাদ করেছিলেন শিল্পী ক্যাথরিন নেহাসেবা। প্রতিবাদ স্বরূপ তিনি এক নারীকে লোহার খাঁচায় বন্দী অবস্থায় দেখান। সম্প্রতি তাকে গ্রেফতার করে রাশিয়ার পুলিশ।

এরপর বন্ধ হয়ে যায় রাশিয়ার রাস্তায় প্রতিবাদ মিছিল। কিন্তু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদ থামেনি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তারা তাদের প্রতিবাদী শিল্পকর্মের ছবি দিচ্ছেন। তারা মনে করছেন এভাবে আরও বেশি মানুষের কাছে তাদের ম্যাসেজ পৌঁছে দিতে পারবেন।

শিল্পী ওলগা কুরাচিওভা বলেন, শিল্পের একটা শক্তি আছে বলে আমি বিশ্বাস করি। আমার মনে হয়, শিল্প দিয়ে পৃথিবীর সব অনিয়ম পরিবর্তন করা সম্ভব।

আপনার মতামত লিখুন :

জাপানের অ্যানিমেশন স্টুডিওতে আগুন: নিহত ৩৩

জাপানের অ্যানিমেশন স্টুডিওতে আগুন: নিহত ৩৩
জাপানের অ্যানিমেশন স্টুডিওতে আগুন, ছবি: সংগৃহীত

জাপানের কিয়োটোর অ্যানিমেশন স্টুডিওতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৩-এ দাঁড়িয়েছে। এই ঘটনায় ডজনখানেক আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) সকালে ওই স্টুডিওর তিনতলা ভবনে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

দেশটির পুলিশ জানায়, স্টুডিওটি লক্ষ্য করে এক ব্যক্তি তরল দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপ করে। পরবর্তীতে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

এই ঘটনায় পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে। তবে সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তির নাম এখনো প্রকাশ করা হয়নি।

ফায়ার সার্ভিস কর্তৃপক্ষ জানায়, তিনতলার প্রতিটি কক্ষই আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আহতদের হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। উদ্ধারকাজ অব্যাহত রয়েছে।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে বলেছেন, ‘এ ঘটনায় বেশ আতঙ্ক ছড়িয়েছে।‘

এদিকে এই ঘটনাকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর দেশটিতে ঘটে যাওয়া ভয়াবহ দুর্ঘটনার অন্যতম একটি বলে আখ্যা দেওয়া হয়েছে।

কিয়োটোর ওই স্টুডিওতে সিনেমা ও গ্রাফিক্স তৈরির কাজ হতো। মানসম্পন্ন কাজের জন্য স্টুডিওটি বেশ জনপ্রিয় বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিওতে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২৬

তুরস্কে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৫, বাংলাদেশি থাকার আশঙ্কা

তুরস্কে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৫, বাংলাদেশি থাকার আশঙ্কা
তুরস্কে বাস দুর্ঘটনা

দক্ষিণ পূর্ব তুরস্কে এক মিনিবাস দুর্ঘটনায় অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছেন এবং প্রায় ২০ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। এই অবৈধ অভিবাসীদের মধ্যে বাংলাদেশি নাগরিক থাকার সম্ভাবনাও রয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

তার্কিশ টিভি চ্যানেল এনটিভি'র এক ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, তুরস্কের ভ্যান প্রদেশে এই দুর্ঘটনা ঘটে। পথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি গড়িয়ে একটি খাদে যেয়ে পড়ে।  আহতরা রাস্তার পাশে পড়ে আছে।

এনটিভি জানিয়েছে, বাসটি খাদে পড়ার আগেই কয়েকজন যাত্রী বাস থেকে ঝুলে পড়েন। বাসটির গন্তব্য এবং অভিবাসীদের জাতীয়তা সর্ম্পকে এখনো কিছু জানা যায়নি। ভ্যান প্রদেশের গভর্নর মেহমেত এমিন বিলমেজ এনটিভিকে বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, বাসে থাকা যাত্রীরা আফগান, পাকিস্তানি এবং বাংলাদেশি।

 

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র