কানাডায় তিমি ও ডলফিন আটকে রাখা নিষিদ্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

কানাডায় আর তিমি ও ডলফিন আটকে রাখা যাবে না। এখন থেকে কানাডায় সামুদ্রিক এসব প্রাণী (ক্যাটায়েশান-তিমি, ডলফিন এবং পিপোজাইজ) বন্দী করে রাখা নিষিদ্ধ।

সেই সঙ্গে বন্দী করে এসব স্তন্যপায়ী প্রাণীর প্রজনন ঘটানো এবং এসব প্রাণী ও এদের ভ্রূণ ও শুক্রাণু আমদানি ও রফতানি করা নিষিদ্ধ।

কেউ এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কানাডায় তিমি ও ডলফিন বন্দী করে না রাখতে একটি বিল তোলা হয় সব শেষ সংসদ অধিবেশনে। বিলটি ‘ফ্রি উইলি’ বিল নামে পরিচিত।

এই বিলটি জুন মাসের শেষ দিকে কানাডার আইনে অন্তর্ভূক্ত করা হচ্ছে। গত সোমবার এই বিলটি তৃতীয় বারের মতো হাউজ অব কমন্সে উত্থাপিত হয়।

এই বিল পাস হওয়ার পর দেশটির গ্রিন পার্টির নেতা এলিজাবেথ মে বলেন, ‘আজ কানাডার জীবজন্তুর জন্য সত্যিই একটি ভালো দিন।’

কানাডার শুধুমাত্র দু’টি স্থান- মারিনল্যান্ড এবং ভ্যানকুভার অ্যাকুইরিয়ামে তিমি, ডলফিন এবং পিপোজাইজ বন্দী করে রাখা হয়েছে।

কানাডার অবসরপ্রাপ্ত সিনেটর উইলফ্রেড মুর ২০১৫ সালে প্রথম এই বিলটি উত্থাপন করেছিলেন।

বিলটি পাস হওয়ার পর তিনি সংবাদ মাধ্যমে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, বিলটি পাস হওয়ায় তিনি অত্যন্ত আনন্দিত এবং এক ধরনের মুক্তির স্বাদ অনুভব করছেন। বলেছেন, কানাডা এই জন্যই ভালো।

তবে তার অভিযোগ, কনজারভেটিভ (রক্ষণশীল) সিনেটররা এতোদিন তার বিলটি পদ্ধতিগত কৌশলে রেড চেম্বারে (যে চেম্বারে সিনেট বসে) দুর্বল করে রেখেছিলেন।

সূত্র: হাফ পোস্ট

আপনার মতামত লিখুন :