কাউকে পাশে পাইনি, টুইটারে রাহুলের ক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
রাহুল গান্ধী, পুরনো ছবি

রাহুল গান্ধী, পুরনো ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই টুইটারে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন রাহুল গান্ধী। শুক্রবার (৪ জুলাই) একটি খোলা চিঠি লিখে পদত্যাগের কথা প্রকাশ্যে ঘোষণা করেছেন তিনি।

টুইট বার্তায় তিনি নিজেকে কংগ্রেসের সভাপতি হিসেবে উল্লেখ করেননি। নিজের পরিচয়ে তিনি লিখেছেন কংগ্রেস ও সংসদের সদস্য।

টুইটারের ওই খোলা চিঠিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, বিজেপি ও রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) বিরুদ্ধেও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন রাহুল। নিজ দলের নেতাদের বিরুদ্ধেও ক্ষোভ তার।

ইঙ্গিত দিয়েছেন, লোকসভা নির্বাচনে আরএসএস -এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে তিনি অনেকটা একা হয়ে গিয়েছিলেন, কাউকে পাশে পাননি। তাই ভোটে হারের দায় দলের অনেক নেতারই এবং তাদেরও পদত্যাগ করা উচিৎ।

টুইট বার্তায় রাহুল গান্ধী লিখেছেন- ‘সভাপতি হিসেবে ভোটে হারের দায় আমার। দলের বৃদ্ধির জন্য দায়বদ্ধতা জরুরি। তাই আমি পদত্যাগ করেছি। দলকে নতুন করে তৈরি করা কঠিন সিদ্ধান্ত। এবং ভোটে হারের জন্য অনেককে দায়বদ্ধ করা উচিৎ। কিন্তু নিজের দায়িত্ব উপেক্ষা করে অন্যদের দায়ী করা ঠিক নয়। প্রধানমন্ত্রী, আরএসএসের বিরুদ্ধে কখনও আমি পুরো একা লড়েছি।’ 

এর আগে সংসদ অধিবেশন থেকে বের হলে সাংবাদিকরা তাকে ঘিরে ধরেন। তখন অনেকটা ক্ষোভ নিয়েই রাহুল বলেন, ‘আমি তো সভাপতি নেই। এক মাস আগেই কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির উচিৎ ছিল নতুন সভাপতি ঠিক করে নেওয়া। দেরি হয়ে যাচ্ছে। ওদের দ্রুত করা উচিৎ। আমি এ সব ঠিক করব না।’

এদিকে, দল থেকে ভাইয়ের পদত্যাগ করাকে সাহসেরই বহিঃপ্রকাশ বলে মন্তব্য করেছেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

এক টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন- ‘খুব অল্প লোকেরই এমন সাহস রয়েছে, যা তুমি দেখালে। তোমার সিদ্ধান্তের জন্য আমার গভীর শ্রদ্ধা রইল।’

সূত্র: আনন্দবাজার

আরও পড়ুন: পদত্যাগ করলেন রাহুল গান্ধী

আপনার মতামত লিখুন :