গরুর কারণে ভারতে আরেকজনকে পিটিয়ে হত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

 

ভারতের রাজস্থানে গরু বহন করার জন্য আরো একজন মুসলিম যুবককে পিটিয়ে হত্যা করেছে কট্ররপন্থী হিন্দু গ্রামবাসী। নিহত যুবকের নাম আকবর খান এবং রাজস্থানের উত্তর পশ্চিম অঞ্চলে গভীর রাতে গরু নিয়ে যাওয়ার সময় কট্রর হিন্দু ধর্মালম্বীরা তাকে পিটিয়ে হত্যা করে বলে রাজস্থান পুলিশ জানিয়েছে।

পুলিশ কর্মকতা মোহন সিং বলেন, উত্তেজিত জনতা রাতে আকবর ও আরেকজনকে দুইটি গরু নিয়ে যেতে দেখে এবং তাদের পথ রোধ করে। এরপর এসব কট্ররপন্থী লোক আকবর ও তার সঙ্গীকে এলোপাতাড়ি কিলঘুষি মারতে থাকে। এসময় সঙ্গী যুবক পালিয়ে যেতে সমর্থ হলেও আকবর মাটিতে পড়ে যায়।

এ অবস্থায় গোঁড়া হিন্দুরা আকবরকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতরভাবে জখম করে। পরে অজ্ঞান আকবরকে স্থানীয় হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কয়েক দিন আগেই ভারতের উচ্চ আদালত হিন্দুত্ববাদী বিজেপী সরকারকে সংঘবদ্ধ জনতা কর্তৃক এভাবে মানুষ হত্যা করা বন্ধে আইন তৈরি করার নির্দেশ দেয়।

কিন্তু বিজেপি সরকার এই বিষয়ে এখনো কোন আইন তৈরি করেনি বা আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেয়নি।

গো রক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে বিজেপি সংশ্লিষ্ট কট্ররপন্থী শিবসেনা ও আরএসএসকে সক্রিয় দেখা যায়।

বিজেপির শীর্ষস্থানীয় অনেক নেতাও ভারতে গরু জবাই দেয়ার শাস্তি মৃত্যুদণ্ড হওয়া উচিত বলে মতামত দেয়।

রাজস্থানের শুক্রবারের এই হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে রাজ্যের মূখমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে ‘ নিন্দাযোগ্য ঘটনা’ বলে টুইট করেন।

গত মাসেও গরু খাওয়ার অপরাধে ভারতের ঝাড়খণ্ডে ২ মুসলিম যুবককে প্রকাশ্যে পিটিয়ে মেরে ফেলে কট্ররপন্থীরা।

বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর গোরক্ষা ও গোহত্যা বিষয়ে ভারত জুড়ে বিতর্ক শুরু হয়।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নিজের রাজ্য গুজরাটে গরু হত্যা করাকে আইনের দৃষ্টিতে অপরাধ হিসেবে চিহ্ণিত করা হয় এবং এর শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড।

ভারত পৃথিবীর অন্যতম গরুর গোশতো রপ্তানীকারক দেশ এবং গরুর চামড়াও রপ্তানী করে দেশটি। এ নিয়ে কট্ররপন্থীদের অবস্থা পরিষ্কার নয়।

 

আপনার মতামত লিখুন :