৯ বছর বয়সে হাফেজ

হাফেজ আহমাদ তাইমিয়া, ছবি: সংগৃহীত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, ঝিনাইদহ, বার্তা২৪.কম

শারীরিকভাবে দুর্বল ও অসুস্থ একটি ছেলে মাত্র ২ মাস ৫ দিনে পুরো কোরআন মুখস্থ করেছে ‘হাফেজ’ খেতাব অর্জন করেছে। এই কীর্তিমান হাফেজ ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর কওমি কেরাতুল মাদরাসার শিক্ষার্থী।

৯ বছর বয়সী এই কৃতি ছাত্রের নাম আহমাদ তাইমিয়া। সে ঝিনাইদহ জেলার কোটচাঁদপুর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের আসলাম হোসেনের ছেলে। এমন মেধাবী শিশু কীর্তি নিয়ে এলাকায় চলছে তুমুল আলোচন। অনেকে এই শিশু হাফেজে কোরআনকে দেখতেও আসছেন।

অল্পসময়ে কোরআন মুখস্থ করা প্রসঙ্গে কোটচাঁদপুর কওমি কেরাতুল মাদরাসার পরিচালক মুফতি ইবরাহিম খলিল জানান, ২ বছর আগে শিশু তাইমিয়া এই মাদরাসায় ভর্তি হয়। সেখানে নার্সারি ও প্রথম শ্রেণি শেষ করে। এর পর গত বছরের জুলাই মাসে কোরআনে কারিম পড়া শুরু করে। প্রথমে সহিহ-শুদ্ধভাবে দেখে দেখে কোরআন তেলাওয়াত শেখা শেষে কোরআন শরিফ মুখস্ত শুরু করে শুরু করে। গত ১৯ জানুয়ারি তার ৩০ পাড়া কোরআন মুখস্ত শেষ হয়। মাদরাসার পরীক্ষা, ছুটি বাদ দিয়ে মাত্র ৬৫ দিনে তাইমিয়া কোরআনে কারিমের হাফেজ হয়েছেন।

মুফতি ইবরাহিম আরও বলেন, আমাদের প্রত্যাশা- আল্লাহতায়ালা তাকে দ্বীনের জন্য কবুল করবেন।

শিশু হাফেজ তাইমিয়ার পিতা আসলাম হোসেন বলেন, আমার আশা ছিল ছেলেকে কোরআনের হাফেজ বানানোর। আমার সেই আশা পূরণ হয়েছে। তাইমিয়ার বাবা ও তার পরিবারের ইচ্ছা সে যেন বড় আলেম হয়।

ইসলাম এর আরও খবর