কুমিল্লায় ৮ বছরের শিশু কোরআনের হাফেজ

ইসলাম ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
হাফেজ রাফসান মাহমুদ জিসান, ছবি: বার্তা২৪.কম

হাফেজ রাফসান মাহমুদ জিসান, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

বয়স সবে আট বছর পেরিয়েছে। কিন্তু কীর্তি তার অনন্য। এ বয়সেই সে মাত্র ৪৯ দিনে পুরো কোরআনে কারিম মুখস্থ করে বিস্ময় জাগিয়েছে।

বিস্ময় জাগানিয়া এই শিশুর নাম রাফসান মাহমুদ জিসান। কুমিল্লা জেলার মনোহরগঞ্জের এই কৃতি সন্তান শহরের ইবনে তাইমিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজের হিফজ বিভাগের ছাত্র।

রাফসানের গ্রামের বাড়ি উপজেলার বিপুলাসার ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামে। তার বাবা প্রবাসী বাহার উদ্দিন।

ইবনে তাইমিয়া স্কুল অ্যান্ড কলেজ সূত্রে জানা গেছে, ‘রাফসান মাহমুদ ২০১৬ সালের শেষ দিকে নূরানী পদ্ধতিতে পড়ালেখা শুরু করে। ২০১৮ সালের নভেম্বরের আগে নাজেরা (কোরআন দেখে পড়ার যোগ্যতা) শেষ করে। এরপর নভেম্বরের ৪ তারিখে কোরআন শরিফ হেফজ (মুখস্থ) শুরু করে। হেফজ শুরুর পর সে মাত্র দুই দিনে কোরআনে কারিমের ৩০তম পারাটি সম্পূর্ণ মুখস্থ করে শোনায়। তখন আমরা মনে করেছিলাম, রাফসানের এই পারাটি আগেই মুখস্থ ছিলো। তাই সে দুই দিনেই পড়া শুনিয়ে দিতে পেরেছে। পরের দিন আমরা তাকে প্রথম পারা মুখস্থ করতে বলি। এবারও সে পুরো পারাটি মাত্র দুই দিনে মুখস্থ করে শোনায়। এভাবে সে দুই দিনে এক পারা করে মুখস্থ করতে থাকে। ১০ পারা পর্যন্ত এভাবে চলতে থাকে।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/30/1548856202805.jpg

কিশোর রাফসানের এমন অভাবনীয় অবস্থা দেখে ইবনে তাইমিয়ার শিক্ষকরা বুঝেন, সে অত্যন্ত মেধাবী; তীক্ষ্ম ধীশক্তির অধিকারী।

এরপর রাফসান ১৪ দিনে কোরআনের ১১ পারা থেকে ২৫ পারা পর্যন্ত মুখস্থ করে এবং আর ৪ দিনে বাকি পারাগুলো মুখস্থ করে।’

মাত্র ৪৯ দিনে কোরআনে কারিম পুরোটা মুখস্থ করায় তাকে মাদরাসার পক্ষ থেকে সম্মানসূচক পাগড়ি দেওয়া হয়েছে। সে এখন পূর্ণাঙ্গ কোরআন শরিফ পুনরায় শিক্ষকদের মুখস্থ শোনাচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :