Alexa

মাওলানা নবীবুরের খুতবা ও বয়ানের ভক্ত সাধারণ মানুষ

মাওলানা নবীবুরের খুতবা ও বয়ানের ভক্ত সাধারণ মানুষ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে বয়ান করছেন মাওলানা নবীবুর রহমান, ছবি: বার্তা২৪.কম

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে ইমামতি করেন মাওলানা নবীবুর রহমান। প্রায় ১৪ বছর ধরে বিশাল এই মসজিদে ইমামতি করছেন। শুক্রবারের দিন জুমা পূর্ব বয়ান ও জুমার খুতবায় খুতবায় ভিন্নতার প্রেক্ষিতে তিনি দারুণ জনপ্রিয়। তার বয়ান ও খুতবায় মুগ্ধ হয়ে উপজেলার বিভিন্নস্থান থেকে মুসল্লিরা ভিড় জমান জুমার নামাজ পড়তে।

মসজিদটিতে একসঙ্গে প্রায় দেড় হাজার মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারেন। তবে রোজার বেড়ে যায় মুসল্লির সংখ্যা দ্বিগুণ হয়।

এই মসজিদের নিয়মিত মুসল্লি আশরাফুল ইসলাম বার্তা২৪.কমকে বলেন, মাওলানা নবীবুর রহমানের বয়ান ও খুতবা থেকে অনেক কিছু শেখা যায়। তিনি ধারাবাহিকভাবে কোরআন ও হাদিসের আলোকে আলোচনা করেন। সে জন্যই তিনি নিজ গ্রামের মসজিদ ছেড়ে শিবগঞ্জে জুমার নামাজ আদায় করতে আসেন। সামনের কাতারে জায়গা পেতে আজানের আগেই তিনি মসজিদে প্রবেশ করেন।

একই কথা বলেন, শ্যামপুর এলাকার আরাফাত হোসেন। তিনি জানান, প্রায় চার বছর আগে শুক্রবারের দিন একটি বিশেষ কাজে শিবগঞ্জ আসেন। ওই দিন শিবগঞ্জ কেন্দ্রীয় মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করেন। তখন থেকেই ইমাম সাহেবের খুতবা শুনে নিয়মিত এই মসজিদের মুসল্লি হয়ে যান আরাফাত হোসেন।

তার দাবি, শিবগঞ্জ বাজার মসজিদে নামাজ পড়তে এসে খুতবা শুনে অনেক জ্ঞান অর্জন করা সম্ভব।

মাওলানা মো. নবীবুর রহমান ১৯৮০ সালে জন্মগ্রহণ করেন। ভোলাহাট উপজেলার জামবাড়িয়া দারুস সুন্নত নেছারিয়া দাখিল মাদরাসায় প্রাথমিক শিক্ষা অর্জন শেষে ভর্তি হন নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুর উপজেলার মাকলাহাট দারুল
কোরআন দাখিল মাদরাসায়। সেখান থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে দাখিল পাশ করে ভর্তি হন রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার ধুরইল এমডি ফাজিল মাদরাসায়। সেখান থেকে আলিম ও ফাজিল পাশ করেন।

এর পর ভর্তি হন চাঁপাইনবাবগঞ্জ টাউন আলিয়া মাদরাসায়। সেখানে তাফসির বিভাগে কামিল পাশ করেন। সেই সঙ্গে তিনি হাটহাজারী মাদরাসা থেকে দাওরায়ে হাদিস পাশ করেন।

মাওলানা মো. নবীবুর রহমান জানান, ছাত্র অবস্থায়ই তিনি ইমামতি শুরু করেন। এখনও তিনি ইমামতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

তিনি দেশের বিভিন্ন স্থানে কোরআনে কারিমের তাফসির করেন। তাফসির ও ওয়াজ করতে তিনি ভারত, নেপাল, ভূটান, সৌদিআরব ও দুবাইসহ বিভিন্ন দেশ সফর করেছেন।

মাওলানা নবীবুর প্রতি শুক্রবার শিবগঞ্জ বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুমার নামাজ পড়ান এবং রমজান মাসে নিয়মিত তারাবির ইমামতি করেন।

আপনার মতামত লিখুন :