Alexa

১২ আগস্ট ঈদুল আজহা হতে পারে

১২ আগস্ট ঈদুল আজহা হতে পারে

১২ আগস্ট ঈদুল আজহা হতে পারে বলে জানিয়েছে আইএসি, ছবি: সংগৃহীত

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম দেশ ওমান সৌদি আরবের নিকটতম দেশ হলেও এবারের ঈদুল ফিতর সৌদি আরবের সঙ্গে উদযাপন করেনি। সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের প্রায় দেশ ৪ জুন ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়েছে, আর ওমানে পালিত হয়েছে ৫ জুন। বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ায় ঈদ উদযাপিত হয়েছে ৫ জুন। মূলতঃ চাঁদ উদয়ের ভিন্নতার জন্য এমন হয়ে থাকে।

ইসলাম ধর্ম মতে, অধিকাংশ ইবাদত-বন্দেগি চাঁদ দেখার ওপর নির্ভরশীল। তাই ধর্মে চাঁদ দেখাকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। তবে নানা হিসাবকষে বেশ আগেই আবু ধাবির ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সেন্টার (আইএসি) জানিয়ে দিলো ঈদুল আজহার সম্ভাব্য তারিখ। তাদের দেওয়া হিসাব মতে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে জিলহজ মাসের নতুন চাঁদ দেখা যেতে পারে ১ আগস্স্ট। সে হিসেবে মধ্যপ্রাচ্যে পবিত্র ঈদুল আজহা পালিত হবে ১১ আগস্ট।

আবু ধাবির ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সেন্টার (আইএসি) জিলহজের নতুন চাঁদের সম্ভাব্য এ তারিখ ঘোষণা করেছে বলে খবর জানিয়েছে খালিজ টাইমস।

আইএসির পরিচালক মোহাম্মদ শওকত বলেন, ‘আশা করি জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা নিয়ে কোনো ধরনের মতভেদ হবে না।’ তিনি বলেন, ‘আরব বিশ্বের অধিকাংশ এলাকায় মানুষ খালি চোখে এবং টেলিস্কোপের মাধ্যমে খুব সহজে এবং পরিষ্কারভাবে জিলহজের নতুন চাঁদ দেখতে পাবেন।’

প্রতি বছর জিলহজের নতুন চাঁদ দেখার দিন ঘোষণা করে সৌদি আরব। অধিকাংশ মুসলিম দেশই এই তারিখ মেনে নেয়, চাঁদ উদয়ের হিসেবে পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা সম্পৃক্ত তাই সৌদি আরবের ঘোষণাকে গুরুত্ব দিয়ে থাকে মধ্যপ্রাচ্যের অন্যদেশগুলো।

তবে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, উপমহাদেশসহ বাংলাদেশে চাঁদ দেখা অনুসারে সাধারণত মধ্যপ্রাচ্যের একদিন পর ঈদ পালন করা হয়। সে হিসাবে এসব অঞ্চলে জিলহজের নতুন চাঁদ দেখা যেতে পারে ২ আগস্ট। আর ১২ আগস্ট শুক্রবার পবিত্র ঈদুল আজহা পালিত হবে। তবে ইউরোপ ও পশ্চিম আমেরিকার অধিকাংশ দেশ সৌদি আরবকে অনুসরণ করে।

এদিকে আরব ইউনিয়ন ফর স্পেস অ্যান্ড অ্যাস্ট্রোনমি সায়েন্সেস (এইউএএস) জানিয়েছে, জিলহজের নতুন চাঁদ ওঠার সম্ভাব্য তারিখ ১ আগস্ট।

এইউএএসর গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ইবরাহিম আল জারহওয়ান বলেন, ‘এদিন সূর্যাস্তের পর ২৮ মিনিট পর্যন্ত স্থায়ী থাকবে নতুন চাঁদ।’

চাঁদ দেখা নিয়ে মাঝে-মধ্যেই বিভ্রান্তিকর খবর আসে। এ প্রেক্ষিত্রে সৌদি আরব সম্প্রতি ঘোষণা করেছে, মক্কার জমজম টাওয়ারে অবস্থিত সৌদি আরবের চাঁদ পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রকে অত্যাধুনিক করা হবে। এ পর্যবেক্ষণ টাওয়ার নতুন চাঁদ অনুসন্ধানের বিষয়ে কাজ করবে। ইসলাম মতে, চাঁদ অনুসন্ধানের জন্য বিজ্ঞানের ওপর ভরসা করতে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই। কিন্তু জোর্তিবিজ্ঞানের হিসাব কিংবা গণনার ওপর আস্থা রাখার বিষয়ে বিধি-নিষেধ রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :