Alexa

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নেতৃত্বে সর্বদলীয় বৈঠকে সমর্থন করল বিরোধীরা

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নেতৃত্বে সর্বদলীয় বৈঠকে সমর্থন করল বিরোধীরা

ছবি: সংগৃহীত

কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সদ্য হয়ে যাওয়া জঙ্গি হামলার ৪০ জন সেনার মৃত্যুর বদলা নিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নেতৃত্বে দিল্লিতে ডাকা এক সর্বদলীয় বৈঠকে শনিবার বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো ঘটনার একত্রে তীব্র নিন্দা করেছে এবং সরকারের যেকোনো পদক্ষেপের পাশে আছে বলে জনিয়েছেন তারা। তবে ভারত সরকারের কী পদক্ষেপ সমর্থন করল তারা?

বৈঠক শেষে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলা হয়, হামলার জেরে দেশের সব মানুষ উত্তেজিত। সকলেরই রক্ত ফুটছে। পুলওয়ামায় বীর শহীদ জওয়ানদের বলিদানের বদলা নিতে সেনাকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হলো। দেশের মানুষের সেনার উপর সম্পূর্ণ আস্থা রয়েছে। অপরাধীরা তাদের কাজের শাস্তি অবশ্যই পাবে। ভারত সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই আরও জোরদার করবে। সন্ত্রাসবাদী সংগঠন ও তাদের মদতদাতাদের বড়সড় ভুল করে ফেলেছে। আমাদের প্রতিবেশী দেশ (পাকিস্তান) এখন বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে। এই ঘৃণ্য ষড়যন্ত্র করে যদি তারা মনে করে ভারতের মধ্যে অস্থিরতা তৈরি করবে, তাহলে তারা বড় ভুল করছে। এই হামলার বিরুদ্ধে ভারত কড়া মোকাবিলা করবে। ভারত সবর্দা -অখণ্ড ভারত থাকবে।

এছাড়া সম্মেলনে আরও বলা হয়েছে, সারা বিশ্ব আজ আমাদের সঙ্গে রয়েছে। যেকোনো পরিস্থিতি থেকে আমরা ঠিক বেরিয়ে আসব। শহীদ জওয়ানদের শ্রদ্ধাঞ্জলিতে কোনো খামতি না থাকে। দেশের সেবার জন্য ওরা প্রাণ দিয়েছেন। ওদের পরিবারের প্রতি আমাদের সমেবদনা রয়েছে। সকলের কাছে অনুরোধ, এটা খুব সংবেদনশীল পরিস্থিতি। এখন রাজনীতি না করে আসুন সকলে একসঙ্গে লড়াই করি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Feb/16/1550324336433.jpg

টুইটারে শহীদদের স্যালুট জানিয়ে সচিন লিখেছেন, এই ঘটনা কাপুরুষোচিত, ঘৃণ্য চক্রান্ত ৷ দেশকে রক্ষা করতে গিয়ে যারা প্রাণ হারিয়েছেন, তাঁদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানায়৷ আর যাঁরা হাসপাতালে এখনও মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন তাঁদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করি৷ সচিনের মতো টিম ইন্ডিয়ার ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলি, ভাইস-ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মা, হার্দিক পান্ডিয়া, শিখর ধাওয়ান এবং দুই প্রাক্তন তারকা ক্রিকেটার বীরেন্দ্র শেওবাগ ও ভিভিএস লক্ষণ জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে জঙ্গি হামলার তীব্র নিন্দা করে শহিদদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন৷ এছাড়া সমবেদনা জানিয়েছে বিনোদন জগতের তারাকারা। পাকিস্তানের এক অনুষ্ঠানে যাওয়ার কথা ছিল শাবানা আজমির। এ ঘটনার পর শাবানা বাতিল করে দিয়েছেন।

ইতিমধ্যে নিজ নিজ রাজ্যে সেনা শহীদদের শবদেহ আসতে শুরু করেছে। যার মধ্যে আছে পশ্চিমবঙ্গের দুই তরুণ সেনা। হাওড়ার বাবলু সাঁতরা, নদীয়ার সুদীপ বিশ্বাস। রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাদের শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

আপনার মতামত লিখুন :