Alexa

কলকাতায় বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনে শহীদ দিবস পালিত

কলকাতায় বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনে শহীদ দিবস পালিত

কলকাতায় বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশন অফিস, ছবি: সংগৃহীত

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, কলকাতা, বার্তা২৪.কম

কলকাতায় অবস্থিত বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনে যথাযোগ্য মর্যাদায় দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পালিত হয়েছে মহান শহীদ দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।

বৃহস্পতিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দিনের শুরুতে উপ-হাইকমিশন চত্বরে ভাষা শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে জাতীয় সংগীতের সঙ্গে পতাকা অর্ধনমিত করার মাধ্যমে দিবসের সূচনা করা হয়। পতাকা অর্ধনমিত করেন উপ-হাইকমিশনার তৌফিক হাসান।

দিনের শুরুতে ভাষা শহীদদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে এক মিনিট নীরবতা পালন এবং বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এর পর বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশন আয়োজিত প্রভাত ফেরি শুরু হয়। এটি সোহরাওয়ার্দী এভিনিউয়ে ‘বাংলাদেশ গ্রন্থাগার ও তথ্যকেন্দ্র’ থেকে শুরু হয়ে উপ-হাইকমিশন চত্বরে এসে শেষ হয়। এতে অংশগ্রহণ করেন কলকাতার কবি, সাহিত্যিক, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও বুদ্ধিজীবী, বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং তাদের পরিবারের সদস্যরা, কলকাতায় অবস্থানরত বাংলাদেশের নাগরিকবৃন্দ, কলকাতার ভাষাপ্রেমী, কলকাতায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা এবং বিভিন্ন নাট্য সংগঠনের সভ্যবৃন্দ।

প্রভাত ফেরি শেষে উপ-হাইকমিশন চত্বরে অবস্থিত শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হয়। এর পর মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করে শোনানো হয়।

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রাসঙ্গিকতা তুলে ধরতে বিকেলে কলা মন্দিরের কলাকুঞ্জ সভাগৃহে (৪৮, শেক্সপীয়র সরণি, কলকাতা-৭০০০১৭) এক বহুভাষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। কলকাতায় বিভিন্ন দেশের কনস্যুলেট প্রতিনিধিরা এতে নিজ নিজ ভাষায় সাংস্কৃতিক পরিবেশনা উপস্থাপন করেন। এ সব পরিবেশনা দর্শক-শ্রোতাদের মুগ্ধ করে।

কলকাতা এর আরও খবর