Alexa

বয়সসীমা ৩৫-এর দাবি, শাহবাগে লাগাতার অবস্থানের ঘোষণা

বয়সসীমা ৩৫-এর দাবি, শাহবাগে লাগাতার অবস্থানের ঘোষণা

ছবি: বার্তা২৪

 

সরকারি চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা ৩৫ -এ উন্নীত করার দাবিতে শাহবাগ অবরোধ করেছে চাকরি প্রার্থীরা। ৪০তম বিসিএস পরীক্ষার আগেই চাকরিতে প্রবেশের প্রচলিত বয়সসীমা ৩০ বছর থেকে বাড়িয়ে ৩৫ বছর করে প্রজ্ঞাপন জারির দাবীতে দুপুর থেকে 'বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ' এই কর্মসুচি পালন করছে।

চাকরিতে আবেদনের বয়স ৩৫ বছরে উন্নীত করতে জনপ্রশাসন সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি কর্তৃক করা সুপারিশ দ্রুত বাস্তবায়নের দাবিও জানিয়েছেন চাকরি প্রার্থীরা ।

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে প্রেরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, চাকরিতে আবেদনের বয়স ৩৫ করার দাবিতে ২০১২ সাল থেকে আন্দোলন করে আসছে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদ। ঐ বছরের ৩১ জানুয়ারি বর্তমান রাষ্ট্রপতি ও তৎকালীন স্পিকার আব্দুল হামিদ এই দাবীর সাথে একাত্মতা পোষণ করেন। তা জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করেন। তখন একাধিক মন্ত্রী, শতাধিক সাংসদ এমনকি বিরোধী দলীয় নেত্রী ৩৫ বছর এর প্রস্তাব উত্থাপন করেন।  কিন্তু নানা অজুহাত দেখিয়ে তরুণদের এ দাবী আজও পূরণ হয়নি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Oct/27/1540651595462.jpg

গত ২৭ জুন ও ১০ সেপ্টেম্বর জনপ্রশাসন সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি চাকরির বয়স ৩৫-এ উন্নীত করতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে।  কিন্তু তিন মাস অতিবাহিত হয়ে গেলেও সুপারিশ এখনো বাস্তবায়ন হয়নি।

এতে আরো বলা হয়েছে, '৪০তম বিসিএসের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে, কিন্তু এখনো ৩৫ এর প্রজ্ঞাপন হয়নি। তাই দ্রুত প্রজ্ঞাপণ জারি করে তরুণ সমাজের দাবি পূরণ করতে হবে। এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপও কামনা করা হয়।'

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Oct/27/1540651610572.jpg

জানতে চাইলে সাধারণ ছাত্রপরিষদের কেন্দীয় কমিটির সভাপতি ইমতিয়াজ হোসেন বলেন, 'আমরা দীর্ঘদিন যাবত চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫-এ উন্নীত করার দাবিতে আন্দোলন করে আসছি।  জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি তিন বার সুপারিশ করা সত্ত্বেও এটি মন্ত্রণালয়ে ঝুলে আছে। ৪০তম বিসিএসের আগেই প্রজ্ঞাপন জারির কথা। কিন্তু কোন অজানা কারণে তা এখনো হয়নি। তাই আমরা অবিলম্বে প্রজ্ঞাপন জারির দাবিতে শাহবাগে লাগাতার অবস্থান নিয়েছি। দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমরা অবস্থান ছাড়ব না । প্রয়োজনে আমরা গণগ্রেফতার হব।

এদিকে দুপুর ১২টার দিকে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী আন্দোলনকারীদের সাথে কথা বলতে শাহবাগে আসেন। এ সময়  আন্দোলনকারীদের দাবি-দাওয়া প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরার আশ্বাস দেন তিনি। 

দুপুর থেকে শুরু হয়ে এখন পর্যন্ত অবরোধ চলছে। অবরোধের কারণে শাহবাগে যান চলাচল বিঘ্ন ঘটছে। রাস্তায় যানজটের সৃষ্টি হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

 

আপনার মতামত লিখুন :