Barta24

বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯, ৯ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

তদন্তে আটকে আছে দিয়াজ হত্যার রহস্য

তদন্তে আটকে আছে দিয়াজ হত্যার রহস্য
দিয়াজ ইরফান চৌধুরী /ছবি: বার্তা২৪
রকিব কামাল
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

দুই বছর পার হতে চললেও তদন্ত কর্মকর্তার হাত বদলেই আটকে আছে ছা্ত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা দিয়াজ ইরফান চৌধুরী হত্যাকাণ্ডের রহস্যের জট। তদন্ত কর্মকর্তারা বলছেন, দ্রুত সময়ের মধ্যে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

এদিকে দিয়াজের পরিবার দাবি করছে, আসামির প্রকাশ্য ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে না। ফলে সুষ্ঠু বিচার নিয়ে সংশয় প্রকাশ করছেন দিয়াজের পরিবারসহ সংশ্লিষ্টরা।

জানা যায়, ২০১৬ সালের ২০ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্গত দুই নং গেইট এলাকার একটি ভাড়া বাসায় দিয়াজের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। প্রথম ময়নাতদন্তে দিয়াজ আত্মহত্যা করেছেন এমন প্রতিবেদনের পর তার মা জাহেদা আমিন চৌধুরী ও দিয়াজের অনুসারীরা এটি প্রত্যাখ্যান করেন।

পরে ঐ বছরের ২৪ নভেম্বর তিনি বাদি হয়ে আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন সহকারী প্রক্টর মো. আনোয়ার হোসেন, সাবেক বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. আলমগীর টিপুসহ বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মীকে আসামি করেন।

আদালত মামলাটি এজাহারে নিয়ে ২০১৭ সালের ২৩ অক্টোবর হাটহাজারী থানাকে তদন্তের নির্দেশ দেয়। পরিবারের দাবিতে দ্বিতীয় ময়নাতদন্তে দিয়াজকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে উঠে আসে। এরপর মামলাটি পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) তদন্তের ভার পায়। এর মধ্যে অনেকটা অজ্ঞাত কারণেই তিনবার তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তন হয়।

তদন্তের বিলম্ব আর আসামিদের বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রকাশ্যে চলাফেরা করতে দেখে নিজেকে সামলাতে পারেন না মা জাহেদা আমিন। ছেলে হত্যার বিচার চেয়ে গত ৩০ অক্টোবর ছেলের মরদেহের পোস্টার নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থান নিয়েছেন তিনি। গত বছরও তিনি অনশন পালন করতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Nov/20/1542705222324.jpg

কী কারণে দিয়াজকে হত্যা করা হয়েছে তা এখনও অজানা। তবে বরাবরের মতই দিয়াজের অনুসারীদের দাবি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন নির্মাণ কাজের দরপত্র নিয়ে কোন্দলের সূত্র ধরেই পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে। এক্ষেত্রে রাজনৈতিক প্রভাবের কারণেও মামলা বিলম্ব হচ্ছে বলেও মনে করেন তারা। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদকরে আগে দিয়াজ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

এ মামলায় সাবেক সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেন তিন মাস জেলহাজতে থাকার পরে জামিনে বেরিয়ে আসেন। তবে মামলার অন্য আসামিদের ছয় মাসের মেয়াদ শেষ হলেও তারা প্রকাশ্য ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এমনকি তারা দিয়াজের পরিবারকে হুমকি দিচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেন তার বোন অ্যাডভোকেট জোবাইয়দা সরওয়ার নিপা।

তিনি বার্তা২৪কে জানান, আদালত থেকে আসামিদের গ্রেফতারের নির্দেশ থাকলেও তাদের গ্রেফতার করছে না পুলিশ। ফলে আসামিরা আলামত নষ্ট ও সাক্ষীদের হুমকি দিয়ে দমিয়ে রাখার চেষ্টা করছে। প্রশাসন ও আসামিরা এ মামলাকে প্রভাবিত করতে চাইছে। তদন্ত কর্মকর্তারা আশ্বস্ত করেছেন। নির্বাচনী ঝামেলা শেষ হলেই তারা তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ করবেন।

জানতে চাইলে সিআইডি’র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. জসিম বার্তা২৪কে বলেন, এখনো তদন্ত চলছে। নিরপেক্ষভাবে জবানবন্দি নিচ্ছি। বাদীপক্ষ থেকে যেসব তথ্য দেওয়া হয়েছে তা সংগ্রহ করেছি। তবে সাক্ষ্য প্রমাণ সংগ্রহের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে।’ তবে মামলার আসামি গ্রেফতার ও তদন্ত রিপোর্ট কখন জমা দেওয়া হবে সে বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু জানাতে পারেননি তিনি।

এদিকে প্রতিবারের মতো দিয়াজের স্মরণে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছে তার অনুসারী ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা।

আপনার মতামত লিখুন :

অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে আন্দোলনকারীদের পাহারা দিচ্ছে ছাত্রলীগ

অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে আন্দোলনকারীদের পাহারা দিচ্ছে ছাত্রলীগ
আন্দোলনকারীদের পাহারা দিচ্ছে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) অপ্রীতিকর ঘটনা রোধ করতে এবং প্রশাসনিক কার্যক্রম যাতে কেউ নষ্ট না করতে পারে সেজন্য আন্দোলনকারীদের পাহারা দিচ্ছে ছাত্রলীগ।

বুধবার (২৪ জুলাই) ভোর থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ফটকের সামনে সতর্ক অবস্থানে দেখা যায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের।

জানা যায়, অধিভুক্তির স্থায়ী সমাধানে কাজ করছে ছাত্রলীগ। আগামী আগস্টের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে এর একটি যৌক্তিক সমাধান হবে বলে আশ্বস্ত করেছেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ডাকসু জিএস গোলাম রাব্বানী। সে পর্যন্ত আন্দোলনকারীদের ক্লাসে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

ঢাবি ছাত্রলীগের হল শাখার কয়েকজন নেতাকর্মী বলেন, ‘শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সদা প্রস্তুত এবং এটাকে দায়িত্ব মনে করে। সেই বোধ থেকে আমরা আন্দোলনকারীদের পাহারা দিচ্ছি।’

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/24/1563939834268.jpg

সরেজমিনে বিশ্ববিদ্যালয় ঘুরে দেখা যায়, ঢাবির বিভিন্ন হলের সামনে ভোর ৬টা থেকে পাহারা দিচ্ছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এদিকে সকাল সাড়ে ১০টায় আন্দোলনকারীদের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়েছে। পরে সেখান থেকে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরে সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের আন্দোলনে সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে পড়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ক্লাস, পরীক্ষাসহ প্রশাসনিক কার্যক্রম।

আরও পড়ুন:আন্দোলনকারীরা তালা দিলে ভাঙতে প্রস্তুত ছাত্রলীগ!

আন্দোলনকারীরা তালা দিলে ভাঙতে প্রস্তুত ছাত্রলীগ!

আন্দোলনকারীরা তালা দিলে ভাঙতে প্রস্তুত ছাত্রলীগ!
তালা দিলে ভাঙতে প্রস্তুত ছাত্রলীগ, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

গত তিন দিন ধরে সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের আন্দোলনে সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে পড়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস, পরীক্ষাসহ প্রশাসনিক কার্যক্রম।

আন্দোলনকারীরা প্রশাসনিক এবং গুরুত্বপূর্ণ ভবনে তালা লাগানোর ফলে অকার্যকর হয়ে পড়ে পুরো বিশ্ববিদ্যালয়। বুধবারও (২৪ জুলাই) রয়েছে আন্দোলনকারীদের কর্মসূচি।

তবে ক্যাম্পাসে যেকোনো ধরনের তালা ঝোলানো কিংবা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম বিঘ্ন ঘটাবে এমন কাজে বাধা প্রদান করার জন্য প্রস্তুত ঢাবি ছাত্রলীগ। বিভিন্ন হলের নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ছাত্রলীগ নেতা বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম-কে বলেন, 'আগামীকাল ভোর ৬টায় আমাদের কর্মসূচি রয়েছে। আন্দোলনকারীরা প্রশাসনিক কার্যক্রম বন্ধ রাখতে তালা ঝোলাতে এলে তাদের বাধা প্রদান করা হবে। তাতে কাজ না হলে, যা করার তাই করতে হবে এমন নির্দেশনা রয়েছে।'

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে উত্তেজনা দেখা যায়। এক পর্যায়ে ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেনকে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া যায়। সে ঘটনা থেকে ক্যাম্পাসে উত্তেজনাকর পরিবেশ বিরাজ করছে।

আরও পড়ুন: ঢাবিতে পাল্টাপাল্টি অবস্থানে ছাত্রলীগ-আন্দোলনকারীরা

আরও পড়ুন: মার খাইতে অভ্যস্ত, প্রয়োজনে জীবন দেব: ভিপি নুর

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র