Alexa

রাবি সাংবাদিককে মারধর: ছাত্রলীগ নেতার বহিষ্কার দাবি

রাবি সাংবাদিককে মারধর: ছাত্রলীগ নেতার বহিষ্কার দাবি

ছবি: বার্তা২৪

 
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক খোলা কাগজের রাবি প্রতিনিধি আলী ইউনুস হৃদয়কে মারধরকারী ছাত্রলীগ নেতা সাবরুন জামিল সুষ্ময়ের বহিষ্কারের দাবি জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকরা।
 
রোববার (০২ ডিসেম্বর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকদের ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়। এ সময় সংহতি জানিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেন বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ এবং রাবি প্রগতিশীল ছাত্রজোটের নেতাকর্মীরা।
 
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংবাদিকদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনা নতুন নয়। প্রতিনিয়ত বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকরা ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীদের দ্বারা নির্যাতিত হয়ে আসলেও এর কোনো বিচার আমরা পাইনি। গত শনিবার (১ ডিসিম্বের) সাংবাদিক আলী ইউনুসকে মারধর করেছে সুষ্ময়। গণতান্ত্রিক দেশে যে কারও কোনো সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানানোর অধিকার রয়েছে। কিন্তু সেই প্রতিবাদ কর্মসূচিতে ছাত্রলীগকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করার অধিকার কে দিয়েছে? ছাত্রলীগই যদি শান্তি বজায়ে ভূমিকা রাখতে চায় তাহলে পুলিশ প্রশাসন রাখার কি দরকার?
 
বক্তারা আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরের উপস্থিতিতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সাধারণ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করলেও প্রক্টর সেখানে নীরব ছিলেন। হামলা হতে দেখেও তিনি এগিয়ে আসেননি আর পুলিশকেও কোনো নির্দেশনা দেননি। 
 
যে প্রক্টর শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা দিতে পারে না তার দায়িত্বে থাকার কোনো অধিকার নেই বলেও দাবি করেন বক্তারা।
 
মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি ছালেকীন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম জাহিদ, যুগ্ম সাধারণ  সম্পাদক  সাইফ সাইফুল্লাহ,  কোষাধ্যক্ষ  মঈন উদ্দিন, দপ্তর সম্পাদক সুজন আলী, রাবি প্রেসক্লাবের সভাপতি তুষার আহমেদ, সহ-সভাপতি ইমদাদুল হক সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক মানিক রায়হান বাপ্পী, কোষাধ্যক্ষ জাহিদুল ইসলাম জয়, রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি শিহাবুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক ফরিদ আহমেদ, দপ্তর সম্পাদক আরাফাত রহমানসহ সাংবাদিকতা বিভাগের বিভিন্ন বর্ষের অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী ও ছাত্রজোটের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী।
 
উল্লেখ্য, রাবির কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে ১-৬ ডিসেম্বর জাজ মাল্টিমিডিয়া ‘দহন’ সিনেমাটি প্রদর্শনীর আয়োজন করে। প্রথমদিন প্রদর্শনী শুরুর আগ মুহূর্তে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সেখানে জড়ো হয়ে প্রদর্শনীর প্রতিবাদ জানালে প্রক্টরের উপস্থিতিতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে। এ সময় দৈনিক খোলা কাগজের রাবি প্রতিনিধি আলী ইউনুসের ওপর হামলা করে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাবরুন জামিল সুষ্ময়।

আপনার মতামত লিখুন :

ক্যাম্পাস এর আরও খবর