Barta24

শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯, ২ ভাদ্র ১৪২৬

English

রাবিতে ৪ দিনব্যাপী আন্তঃহল সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা শুরু কাল

রাবিতে ৪ দিনব্যাপী আন্তঃহল সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা শুরু কাল
প্রতিযোগিতার পোষ্টার, ছবি: সংগৃহীত
রাবি করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) প্রথমবারের মতো শুরু হতে যাচ্ছে চার দিনব্যাপী আন্তঃহল সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা।

শুক্রবার (০৭ ডিসেম্বর) সকল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তন ও শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে (টিএসসিসি) প্রতিযোগিতা শুরু হবে। প্রতিযোগিতাটি চলবে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত। বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিসি প্রতিযোগিতাটির আয়োজন করেছে।

এ প্রতিযোগিতার প্রথম দিন সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিসি ভবনে নজরুল সংগীত, উচ্চাঙ্গ সংগীত ও যন্ত্রসংগীতের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া একই সময় কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে চলবে বাংলা ও ইংরেজি আবৃত্তি প্রতিযোগিতা।

এরপর বিকেল ৩টায় টিএসসিসি ভবনে অনুষ্ঠিত হবে দেশাত্মবোধক গানের প্রতিযোগিতা। অপরদিকে কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে উপস্থিত বক্তৃতা।

প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় দিন শনিবার (৮ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় টিএসসিসি ভবনে লোকসংগীত ও আধুনিক গানের প্রতিযোগিতা চলবে। এরপর একই সময়ে কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে বিতর্ক ও অভিনয় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ওই দিন বিকেল ৩টায় টিএসসিসি ভবনে রবীন্দ্র সঙ্গীতের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে।

এরপর এ সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার তৃতীয় দিন রোববার (৯ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় টিএসসিসি ভবনে উচ্চাঙ্গ নৃত্য, সাধারণ নৃত্য ও লোকনৃত্যে’র প্রতিযোগিতাইয় অংশ নিবে প্রতিযোগিরা। এরপর সোমবার (১০ ডিসেম্বর) বিকেল ৫টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে এ প্রতিযোগিতার সমাপনী পর্বটি অনুষ্ঠিত হবে।

টিএসসিসি’র পরিচালক অধ্যাপক ড. মোঃ হাসিবুল আলম প্রধানের সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহান উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. চৌধুরী মোঃ জাকারিয়া ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক একে এম মোস্তাফিজুর রহমান আল-আরিফ উপস্থিত থাকবেন।

আপনার মতামত লিখুন :

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে বিডিইউ উপাচার্যের শ্রদ্ধা

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে বিডিইউ উপাচার্যের শ্রদ্ধা
বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান বিডিইউ উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর

জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির (বিডিইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর।

বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) সকাল ১০টায় ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (চলতি দায়িত্ব) মো. আশরাফ উদ্দিনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

শ্রদ্ধা জানানো শেষে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর বলেন, সদ্য স্বাধীন যুদ্ধ-বিধ্বস্ত দেশে বঙ্গবন্ধু যখন পুরো জাতিকে নিয়ে সোনার বাংলা গড়ার সংগ্রামে নিয়োজিত, তখনই স্বাধীনতাবিরোধী-যুদ্ধাপরাধী চক্র জাতির পিতাকে হত্যা করে। কিন্তু তার স্বপ্ন ও আদর্শকে রুখে দিতে পারেনি ঘাতকেরা।

উপাচার্য জাতীয় শোক দিবসে জাতির পিতা হারানোর শোককে শক্তিতে পরিণত করে তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর ত্যাগ ও তিতিক্ষার দীর্ঘ সংগ্রামী জীবনাদর্শ ধারণ করে সবাই মিলে একটি অসাম্প্রদায়িক, ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে তরুণ প্রজন্মের প্রতি আহ্বান জানান।

খুবি'র শিক্ষার্থী বহিষ্কার

খুবি'র শিক্ষার্থী বহিষ্কার
খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা স্কুলের (অনুষদ) আওতাধীন প্রিন্টমেকিং ডিসিপ্লিনের (বিভাগ) চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তাকে চিরতরে বহিষ্কার করা হয়েছে। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের ২০২তম জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

শুক্রবার (৯ আগস্ট) বিকেল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ প্রশাসন ভবনের সম্মেলন কক্ষে সিন্ডিকেটের সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামানের সভাপতিত্বে সিন্ডিকেটের জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সিন্ডিকেটের সদস্যবৃন্দ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

খুবি'র জনসংযোগ ও প্রকাশনা বিভাগের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আতিয়ার রহমান বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে জানান, উক্ত শিক্ষার্থী গত ৩ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের একজন ছাত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয়ে যৌন নিপীড়ন করে বলে অভিযোগ ওঠে। এ সংক্রান্ত অভিযোগ প্রাপ্তির পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ঘটনার তদন্তে বিশ্ববিদ্যালয় যৌন নিপীড়ন প্রতিরোধ সংক্রান্ত অভিযোগ কমিটিকে দায়িত্ব দেয়। অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত শেষে কমিটি গত ৪ আগস্ট তদন্ত রিপোর্ট দাখিল করে। সিন্ডিকেটের জরুরি সভায় উক্ত রিপোর্ট পেশ করা হলে কমিটির সুপারিশ পর্যালোচনার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিন্টমেকিং ডিসিপ্লিনের ঐ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চিরতরে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র