জবি'র বাসে শ্রমিকদের হামলা, ১০ শিক্ষার্থী আহত

হামলায় ভাঙচুর করা বাস, ছবি: বার্তা২৪

জবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম

নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জ এলাকায় উল্টোপথে শ্রমিকবাহী বাস চলতে নিষেধ করায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ‘নোঙর’ নামের একটি বাস ভাঙচুর ও শিক্ষার্থীদের উপর আক্রমণের ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার (১০জানুয়ারি) সন্ধ্যার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এতে ১০ শিক্ষার্থীসহ ১ জন শ্রমিক আহত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জবির শিক্ষার্থী পরিবাহী নারায়ণগঞ্জগামী বাসটি রূপগঞ্জ এলাকায় জ্যামে আটকা পড়ে। এ সময় ‘জাপান বাংলাদেশ টেক্সটাইল’ নামক একটি গার্মেন্টসের কর্মীবাহী বাস জ্যাম এড়াতে উল্টো পথে যাত্রা শুরু করে। এর প্রতিবাদ জানাতে বেশ কিছু জবি শিক্ষার্থী বাস থেকে নেমে পড়েন এবং উল্টোপথে যেতে নিষেধ করেন।

এ নিয়ে এক পর্যায়ে শ্রমিকদের সাথে বিবাদে জড়িয়ে পড়েন ছাত্ররা। এ সময় জবির বাসে কর্মরত রিয়াজ নামের এক স্টাফকে গার্মেন্টস ফ্যাক্টরির ভেতরে নিয়ে যায় শ্রমিকরা। বিষয়টি নিয়ে দুপক্ষের কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতির এক পর্যায়ে শ্রমিকরা ছাত্রদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় বাসে বসে থাকা মেয়ে শিক্ষার্থীদের উপরেও হামলা চালায় তারা। ঘটনার কিছু সময় পর পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

তবে পুলিশ আসার পরেও জবির বাসটি আটকে রাখে এবং ভাঙচুর করে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা। পরে রাত ৯ টার দিকে বাসটিকে ছেড়ে দেয় তারা। এ ঘটনায় জবি শিক্ষার্থী প্রান্ত, রাহাদ, উজ্জ্বল, শান্ত, সৌরভ, উদিতা, শিমলা ও এক গার্মেন্টস শ্রমিকসহ প্রায় ১১ জন আহত হন। আহতদের স্থানীয় আবদুল মালেক হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ঘটনার সময় বাসে থাকা শিক্ষার্থী সাদিয়া রাহা বলেন, 'আমাদের ওপর তারা অন্যায়ভাবে এ সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে। তাদের আক্রমণ এতটাই হিংস্র ছিল যে বাসে বসে থাকা মেয়েরাও এর থেকে রেহাই পায়নি।'

এ বিষয়ে জবি প্রক্টর অধ্যাপক ড. নূর মোহাম্মদ বলেন, 'আমরা রূপগঞ্জ থানায় এ বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছি। এছাড়াও আগামীকাল প্রক্টর অফিস ও পরিবহন পুলের প্রতিনিধি দল ঘটনাস্থলে যাবেন এবং থানায় অভিযোগ দায়ের করবেন।'

ক্যাম্পাস এর আরও খবর