জাকসুর দাবিতে সমাবেশের ডাক জাবি ছাত্রফ্রন্টের

জাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রফ্রন্টের জাবি ক্যাম্পাস নেতাকর্মীরা, ছবি: বার্তা২৪

সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রফ্রন্টের জাবি ক্যাম্পাস নেতাকর্মীরা, ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) গণতান্ত্রিক পরিবেশ তৈরি করে অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্রসংসদ (জাকসু) নির্বাচনের দাবি জানানো হয়েছে। সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট বিশ্ববিদ্যালয় শাখার পক্ষ থেকে এ দাবি জানানো হয়েছে। এ লক্ষ্যে আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি সংহতি সমাবেশের ঘোষণা দেন তারা।

বুধবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে তিনটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের কমন রুমে এক সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচনের দাবি জানান সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক মাহাথির মোহাম্মদ। এ সময় তারা পাঁচ দফা দাবি পেশ করেন। জাকসুর দাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় একটি গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সকলের মতামতের ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত হওয়ার কথা। কিন্তু প্রতিবছর শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও ২৬ বছর যাবৎ ছাত্রদের প্রতিনিধি নির্বাচন হচ্ছে না। ফলে শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে গিয়ে প্রশাসন অবৈধ উন্নয়ন ফি চালু করেছে। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের ক্লাস উপস্থিতি নম্বর চালু, ছাত্রবৃত্তি না বাড়ানো, আবাসন সংকট, শিক্ষা ও গবেষণা খাতে বরাদ্দ বাড়ানো হচ্ছে।'

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jan/30/1548847427061.jpg

এজন্য অনতিবিলম্বে জাকসু নির্বাচনের গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টি করে নির্বাচনের দাবি জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে। গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে নেতারা বলেন, ‘ক্ষমতাসীন ছাত্র সংগঠনের সন্ত্রাস, দখলদারিত্ব, টেন্ডারবাজি, গেস্টরুম কালচার, র‌্যাগিং, মত প্রকাশের স্বাধীনতা ক্যাম্পাসে নাই। প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের রাজনৈতিকভাবে জোরপূর্বক ব্যবহার করছে। যা অগণতান্ত্রিক এবং সুষ্ঠু ছাত্র সংসদ নির্বাচনের জন্য প্রধান প্রতিবন্ধক।'

এজন্য দলমত নির্বিশেষে সকল রাজনৈতিক ছাত্র সংগঠনগুলোর সহাবস্থান নিশ্চিত করতে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবিও জানান তারা।

সংবাদ সম্মেলনে পাঁচ দফা দাবি উপস্থাপন করেন নেতাকর্মীরা। দাবিগুলো হলো- গণতান্ত্রিক পরিবেশ নির্মাণ করে সুষ্ঠু পরিবেশে জাকসু নির্বাচন, হলের গেস্টরুম প্রথা বন্ধ করে আবাসন সুবিধা নিশ্চিত করা, পরিবহন সংকট নিরসন, বিভাগ উন্নয়ন ফি ও বাণিজ্যিক কোর্স বন্ধ, সেশনজট নিরসন ও উপস্থিতি নম্বর বাতিল এবং শিক্ষা ও গবেষণা খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধি করা।

এছাড়া জাকসুর লক্ষ্যে নিয়মিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে আগামী ৪ ফেব্রুয়ারি সংহতি সমাবেশ এবং গণস্বাক্ষর গ্রহণের ঘোষণা দেন।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রাফিকুজ্জামান ফরিদ সহ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :