ঢাবিতে ছাত্রদল নেতাকে ছাত্রলীগের মারধর 

ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছাত্রলীগের হামলায় আহত ছাত্রদল নেতা বুরহান/ ছবি: বার্তা২৪.কম

ছাত্রলীগের হামলায় আহত ছাত্রদল নেতা বুরহান/ ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের অতর্কিত হামলায় ছাত্রদলের এক নেতা আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (৩০ জানুয়ারি) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ভবন সংলগ্ন মল চত্বর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত ছাত্রদল নেতাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) ভর্তি করা হয়েছে।

আহত ছাত্রদল নেতা বুরহান উদ্দিন বিশবিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র। তিনি শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল শাখা ছাত্রদলের যুগ্ম-আহবায়ক।

বুরহান বার্তা২৪.কমকে জানান, তিনি ব্যক্তিগত কাজে রেজিস্ট্রার ভবনে গিয়েছিলেন। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের ১০ থেকে ১৫ জন নেতাকর্মী তার ওপর হামলা চালান। রামদা দিয়ে তার পায়ের নিচে কোপ দেয় এবং স্ট্যাম্প দিয়ে মারতে থাকেন। এতে তিনি অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পরে যান।

প্রক্টরিয়াল বডির বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বুরহান বলেন, প্রক্টর অফিস থেকে সহযোগিতা পাইনি। আমি প্রক্টর অফিসে গিয়ে বলেছিলাম 'হাঁটতে পারছি না'। তখন একজন সহকারী প্রক্টর বলেন, 'তোমার জন্য কি প্লেন পাঠাবো নাকি?' এর পর আমাকে মেডিকেলের সামনে রেখে 'কাজ আছে' বলে তারা চলে এসেছেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সভাপতি আল মেহেদি তালুকদার বার্তা২৪.কমকে বলেন, 'ডাকসু নির্বাচনে প্রার্থী হতে চাওয়ায় ছাত্রলীগ তাকে মেরেছে। সামনে ডাকসু নির্বাচন। বিশ্ববিদ্যালয়ে সহাবস্থান নিশ্চিত না করেই প্রশাসন কেন নির্বাচনের তারিখ দিয়ে দিছে? আমরা এর জবাব চাই।'

অভিযোগ অস্বীকার করে সনজিত চন্দ্র দাস বার্তা২৪.কমকে বলেন, 'আমি কিছু বলতে পারি না। আমি ক্যাম্পাসের বাইরে, এখনো পর্যন্ত কিছু শুনিনি। তবে খোঁজ নিয়ে দেখতেছি।'

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক একেএম গোলাম রব্বানী বার্তা২৪.কমকে বলেন, 'এই তথ্যটা আমার কানে এসেছে। প্রক্টরিয়াল বডি ঐখানে গিয়েছে। ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। সে যদি ছাত্র হয় এবং লিখিত অভিযোগ দেয়, তাহলে এ বিষয়ে আমাদের যা যা করণীয় আমরা তা করবো।'

আপনার মতামত লিখুন :