রাবিতে সপ্তাহব্যাপী একুশে গ্রন্থমেলা

রাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা ২৪.কম
মেলায় শিক্ষার্থী ও দর্শনার্থীরা, ছবি: বার্তা২৪

মেলায় শিক্ষার্থী ও দর্শনার্থীরা, ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

উনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানে পাকিস্তানী বাহিনীর গুলিতে নিহত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) রসায়ন বিভাগের শিক্ষক ও তৎকালীন প্রক্টর ড. শামসুজ্জোহাকে উৎসর্গ করে রাবিতে সপ্তাহব্যাপী একুশে গ্রন্থমেলা শুরু হয়েছে।

সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে গ্রন্থমেলার উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. লায়লা আঞ্জুমান বানু।

আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল নয়টা থেকে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত চলবে এ মেলা। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নবজাগরণ ফাউন্ডেশন এ গ্রন্থমেলার আয়োজন করে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র-উপদেষ্টা অধ্যাপক সাদেকুল আরেফিন মাতিন বলেন, ‘১৮ই ফ্রেব্রুয়ারি তৎকালীন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর শহীদ ড. শামসুজ্জোহা ছাত্রদের রক্ষা করার জন্য নিজের প্রাণ উৎসর্গ করে দেন। শিক্ষার্থীদের জন্য জীবন দেয়ার নজির এর আগে আমরা দেখিনি। তাই ড. জোহাকে উৎসর্গ করে আজকের এই গ্রন্থমেলা। এই গ্রন্থমেলা থেকে যে উদ্ধিতি পাওয়া যাবে তা সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের জন্য খরচ করবে নবজাগরণ ফাউন্ডেশণ। তাদের এমন সৎ উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাই।’

জানতে চাইলে সংগঠনটির সভাপতি এনামুল ইসলাম তুহিন বলেন, ‘আমরা ২০১৪ সাল থেকে জোহা স্যারকে উৎসর্গ করে একুশে গ্রন্থমেলার আয়োজন করে আসছি। তবে আমরা কোনো বাণিজ্যিক উদ্দেশে মেলাটি করি না। আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে কিংবা এই অঞ্চলের শিক্ষার্থীরা যারা নানা ধরণের লেখালেখি করে তাদের বইগুলো এখানে প্রদশর্নীর সুযোগ দেয়া হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘মেলায় রাজশাহীর পাঁচ থেকে ছয়জন নতুন লেখকের বই গ্রন্থমেলায় পাওয়া যাবে। এতে করে শিক্ষার্থীরা লেখার প্রতি উৎসাহিত হবে এবং বই মেলা থেকে যে মুনাফা পাওয়া যাবে তার পুরোটা সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের জন্য খরচ করা হবে।’

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নবজাগরণ ফাউন্ডেশনের যাত্রা শুরু হয়। এরপর থেকেই সংগঠনটি নানা ধরণের উন্নয়নমূলক কাজ করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় প্রতিবছর ১৮ই ফেব্রুয়ারি শহীদ ড. জোহা দিবসে একুশে গ্রন্থমেলার আয়োজন করে সংগঠনটি এবং মেলা থেকে যে মুনাফা অর্জন করে সেটার পুরো টাকা ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জন্য খরচ করে।

আপনার মতামত লিখুন :