‘উন্নয়নের নামে নদী, বন ও ব্যাংক শেষ করে দেওয়া হচ্ছে’

জাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
সভায় বক্তব্য দেন অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ / ছবি: বার্তা২৪

সভায় বক্তব্য দেন অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ / ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

উন্নয়নের নামে নদী, বন ও ব্যাংক শেষ করে দেওয়া হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন তেল গ্যাস খনিজসম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ।

রোববার (১০ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৩ টায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ইতিহাস বিভাগে ‘প্রজন্মের মুক্তিযুদ্ধ ভাবনা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ইচ্ছা এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

আনু মুহাম্মদ বলেন, ‘উন্নয়নের নামে নদী, বন ও ব্যাংক শেষ করে দেওয়া হচ্ছে। আর এসবের সুবিধা নিচ্ছে কতিপয় মানুষ। গণবিরোধী এসব কাজ হলো মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী কাজ।’

তিনি আরও বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনা হলো তেমন একটা সমাজ প্রতিষ্ঠা যেখানে সাম্য, মানবিকতা ও ন্যায়বিচার থাকবে। সেক্ষেত্রে আমাদের দেখতে হবে কতটুকু সাম্য, মানবিকতা ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠিত হলো। যদি প্রতিষ্ঠিত না হয়ে থাকে তবে সেই চেতনাকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য আমাদের কাজ করতে হবে। চিন্তা প্রকাশের স্বাধীনতা হলো মুক্তিযুদ্ধের চেতনা। যখন কেউ চিন্তাপ্রকাশের স্বাধীনতাকে কেড়ে নিবে, বুঝতে হবে সে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী লোক।’

জাবির অর্থনীতি বিভাগের এ অধ্যাপক বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধ বিপ্লবে বা যে কোনো ঘটনাকে কীভাবে দেখব অথবা কীভাবে বলব সেটার ব্যাখ্যা কখনো ফরমায়েশভাবে দিয়ে হয় না। উপর থেকে নির্দেশ আসলো আর সেভাবে ইতিহাস লিখতে হবে এটার মাধ্যমে ইতিহাস চর্চা হয় না। ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে গবেষণা এবং তার থেকে বর্তমান ও ভবিষ্যৎ সময়ের সামগ্রিক শক্তি অর্জন করার ক্ষেত্রে একটা বড় ধরনের আশঙ্কা আমি করছি।’

সভায় আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাবির প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক এ কে এম শাহনাওয়াজ, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক তারেক রেজা, ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক আরিফা সুলতানা, সহযোগী অধ্যাপক আবু তোয়াব শাকির এবং প্রভাষক নাসিমা হামিদ।

আপনার মতামত লিখুন :