ঢাবি ক্যাস্পাসে নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে গণপরিবহন

ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
প্রক্টরিয়াল কমিটির এক সভা, ছবি: বার্তা২৪.কম

প্রক্টরিয়াল কমিটির এক সভা, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে গণপরিবহন। এখন থেকে ভারী কোনো যানবাহন ক্যাম্পাসে ঢুকতে পারবে না। এছাড়া নীলক্ষেত থেকে টিএসসি অভিমুখী সড়কে বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত যানবাহন নিয়ন্ত্রণে প্রহরী বসানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনের সেমিনার কক্ষে প্রক্টরিয়াল কমিটির এক সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এ কে এম গোলাম রাব্বানীর সভাপতিত্বে সভায় সহকারী প্রক্টররা, বিএনসিসি ও রোভার স্কাউটের প্রতিনিধিরা, ডাকসুর পরিবহন সম্পাদক শামস-ই-নোমান এবং ঢাবি সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাহদী আল মুহতাসিম নিবিড় উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরীণ রাস্তা দিয়ে লরি, তেলের ট্যাংকার, বড় ট্রাকসহ সব ধরনের ভারী যানবাহন প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে তা কঠোরভাবে পালন করার নির্দেশ দেওয়া হয়। এছাড়া শাহবাগ, দোয়েল চত্বর, শহিদুল্লাহ হল সংলগ্ন এশিয়াটিক সোসাইটির গেট, চানখারপুল-ডিএসসি, পলাশী ও নীলক্ষেত মোড় দিয়ে ক্যাম্পাসে যানবাহন প্রবেশ নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে আলোচনা হয়। এসব প্রবেশমুখ দিয়ে অতিরিক্ত যানবাহনের প্রবেশ ঠেকাতে প্রাথমিকভাবে প্রক্টরিয়াল টিম, বিএনসিসি, রোভার ও স্বেচ্ছাসেবকদের সমন্বয়ে পৃথকভাবে পাহারা বসানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। মঙ্গলবার থেকেই এসব জায়গায় পাহারা বসানো হতে পারে। সভায় ক্যাম্পাসে ছিনতাই রোধ, ভাসমান বস্তি উচ্ছেদ, টোকাই, ভিক্ষুক ও হিজরাদের দৌরাত্ম রোধে ব্যবস্থা নেওয়ারও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ডাকসুর পরিবহন সম্পাদক যানবাহন নিয়ন্ত্রণে স্বেচ্ছাসেবক টিম গঠনে সবার সহযোগিতা চেয়েছেন।

সভায় প্রক্টর গোলাম রাব্বানী বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে যান চলাচল পুরোপুরি বন্ধ করা সম্ভব না। তাই আমরা সীমিত রাখার চেষ্টা করছি। এজন্য বিভিন্ন জায়গায় পরীক্ষামূলকভাবে স্বেচ্ছাসেবক টিম দিয়ে যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

এ বিষয়ে সবার সহযোগিতা চান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :