চিরকুটে ভর্তি: ভিসির পদত্যাগ দাবি ছাত্রদলের

ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ঢাবি ভিসির পদত্যাগ দাবিতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল

ঢাবি ভিসির পদত্যাগ দাবিতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল

  • Font increase
  • Font Decrease

চিরকুটের মাধ্যমে ছাত্রলীগের ৩৪ নেতাকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতে সহযোগিতার অভিযোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলামের পদত্যাগ দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ছাত্রদল।

নিয়ম বহির্ভূতভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়া ছাত্রলীগ নেতাদের ডাকসু সদস্যপদ বাতিল ও তাদের বহিষ্কারের দাবি তুলেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সভাপতি।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশ থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি বের হয়। পরে টিএসসি প্রদক্ষিণ করে শহীদ মিনার সংলগ্ন রাসেল টাওয়ারে গিয়ে মিছিল শেষ হয়।

এ সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সভাপতি আল মাহদী তালুকদার বলেন, ভিসি নিজের আসন ধরে রাখার জন্য ছাত্রদের সঙ্গে বেইমানি করেছেন। এই ভিসি ডাকসু নির্বাচনকে ছাত্রলীগের ডাকসুতে পরিণত করার চক্রান্ত করে চিরকুটের মাধ্যমে কোনো ভর্তি পরীক্ষা না নিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ভর্তি করেছেন।

অনতিবিলম্বে ভিসি আখতারুজ্জামান এবং ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলামের পদত্যাগ দাবি করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সভাপতি।

বিক্ষোভ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন—ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রদল মনোনীত সাধারণ সম্পাদক (জিএস) প্রার্থী আনিসুর রহমান খন্দকার অনিক, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক রাশেদ ইকবাল খান, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হাসানুর রহমান প্রমুখ।

গত মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে যথাযথ নিয়ম মেনেই শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা হয়েছে বলে দাবি করেন ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম। তার দাবি ইভেনিং প্রোগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের নয়, এটা অনুষদের নিজস্ব প্রোগ্রাম। আসন খালি থাকা সাপেক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করা শিক্ষার্থীদের সার্কুলারের বাইরেও ভর্তি করানোর সুযোগ রয়েছে। সে ক্ষেত্রে লিখিত পরীক্ষা বাধ্যতামূলক নয়। তাছাড়া শিক্ষার্থীরা একবার লিখিত পরীক্ষা দিয়ে ভর্তি হয়েছেন, দ্বিতীয়বার দেওয়ার যৌক্তিকতা নেই।

একটি জাতীয় দৈনিকে ‘ভর্তি না হয়ে ডাকসু নেতা’ সংবাদ প্রকাশের পর ফুঁসে ওঠেন শিক্ষার্থীরা। ওই সংবাদে বলা হয় উপাচার্য বরাবর চিরকুট দিয়ে ডাকসু নির্বাচনে অংশ নিতে ছাত্রলীগের ৩৪ নেতাকর্মীকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করা হয়। ভর্তি প্রক্রিয়ায় কোনো ধরনের নিয়ম-কানুন মানা হয়নি।

আপনার মতামত লিখুন :