জাবি উপাচার্যের কুশপুতুল দাহ, ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম

ঢাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
জাবি উপাচার্যের কুশপুতুল দাহ, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

জাবি উপাচার্যের কুশপুতুল দাহ, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

উন্নয়ন প্রকল্পে দুর্নীতি এবং কমিশন কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার অভিযোগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলামকে অপসারণের দাবিতে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজুভাস্কর্যে এক মানববন্ধন থেকে এ আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। এ সময় উপাচার্যের কুশপুতুল দাহ করা হয়।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের আহ্বায়ক আকম জামাল উদ্দীন বলেন, ‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দুর্নীতিবাজ। ছাত্রলীগকে নিয়ে তিনি বড় ষড়যন্ত্রের পরিকল্পনা করেছেন।’

কোনো ধরনের তদন্ত কিংবা ট্রাইব্যুনাল ছাড়া শোভন-রাব্বানীকে অপসারণ করায় জামাল উদ্দীন সরকারের পলিটিক্স মেকারদের তীব্র সমালোচনা করেন। শোভন-রাব্বানীকে স্বপদে বহাল রাখার দাবি জানিয়ে মূল ষড়যন্ত্রকারী ফারজানা ইসলামকে অপসারণের জন্য ২৪ ঘণ্টা সময় বেঁধে দেন।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের ঢাবি শাখার সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, ‘জাহাঙ্গীরনগরের ভিসি অপ্রপ্রচারের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে বিক্রিত করেছেন। ছাত্রলীগকে কলঙ্কিত করেছেন।’

শোভন-রাব্বানীর জন্য হাজার হাজার নেতাকর্মী জীবন দিতে প্রস্তুত উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘যে অভিযোগে তাদের অপসারণ করা হয়েছে, এটার কোনো প্রমাণ নেই। শোভন-রাব্বানী ষড়যন্ত্রের স্বীকার।’

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের ঢাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক আল মামুন বলেন, ‘জাবির ভিসি বিভিন্ন ঠিকাদারিদের কমিশনের বিনিময়ে কাজ পাইয়ে দিচ্ছেন। ভিসি নৈতিকভাবে তার দায়িত্ব হারিয়েছেন। তার অপসারণের দাবি জানাচ্ছি।’

মানববন্ধনে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের প্রায় দেড়শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :