Barta24

মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

ভারতের নাগরিকত্ব পাবে সানিয়া-শোয়েবের ছেলে!

ভারতের নাগরিকত্ব পাবে সানিয়া-শোয়েবের ছেলে!
শোয়েব মালিক ও সানিয়া মির্জা
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

তাহলে একটা বির্তকের ইতি টানল পাকিস্তানির গণমাধ্যম। শোয়েব মালিক ও সানিয়া মির্জার ছেলে ভারতেরই নাগরিক হবেন। বাবা পাকিস্তানের হলেও আইনি জটিলতায় পড়ছে ছেলের নাগরিকত্ব ইস্যু। যেখানে শেষ পর্যন্ত সানিয়ার মুখেই হাসি থাকছে। কারণ সন্তান যে তারই দেশের নাগরিক হতে যাচ্ছে!

ইজহান মির্জা-মালিক! নামের শেষে বাবা-মা দু'জনের পদবিটা নিয়েই বেড়ে উঠবে উপমহাদেশের অালোচিত এই দম্পতির পুত্র সন্তান। গত ৩০ অক্টোবর হায়দরাবাদের রেনবো হাসপাতালে ভারতীয় টেনিস তারকা সানিয়ার কোল জুড়ে আসে এই সন্তান। বাবা শোয়েব মালিক সোশাল মিডিয়ায় খবরটা দিতেই অভিনন্দনের বৃষ্টিতে ভেসে যান তারা।

যদিও এরই সন্তানের নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠে পাকিস্তানের গণমাধ্যমে। তাদের মিডিয়া দাবি করছে কিছুতেই পাকিস্তানের নাগরিকত্ব পাচ্ছে না শোয়েব-সানিয়ার পুত্র সন্তান।

কারণ পাসপোর্ট ও পাক অভিবাসন নীতি অনুযায়ী কোনও ভারতীয় নাগরিক কোনভাবেই পাকিস্তানের নাগরিকত্ব পাবেন না! তাদের ১৯টি দেশের সঙ্গে পাকিস্তানের দ্বৈত নাগরিকত্ব চুক্তি আছে। আর এই তালিকায় নেই ভারত।

শোয়েব মালিককে বিয়ে করে সানিয়া মির্জা ভারতীয় নাগরিকত্ব বহাল রেখেছেন। এ কারণেই ভারতে জন্ম নেওয়া তার সেই সন্তান পাকিস্তানের নাগরিক হতে পারবে না। সেক্ষেত্রে ইজহান মির্জা-মালিক ভারতেরই নাগরিক হবেন!

আপনার মতামত লিখুন :

টি-টুয়েন্টিতে নারিন-পোলার্ডের প্রত্যাবর্তন

টি-টুয়েন্টিতে নারিন-পোলার্ডের প্রত্যাবর্তন
ফের জাতীয় দলে কিয়েরন পোলার্ড ও সুনীল নারিন

প্রায় দুবছর পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের টি-টুয়েন্টি দলে ফিরলেন সুনীল নারিন। জাতীয় দলে এ তারকা স্পিনারের প্রত্যাবর্তনে সঙ্গী হয়েছেন কিয়েরন পোলার্ডও। ভারতের বিপক্ষে আসন্ন টি-টুয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচের জন্য ঘোষিত দলে ডাক পেয়েছেন তারা।

তাদের সঙ্গে দলে অন্তর্ভূক্ত হয়েছেন অনভিজ্ঞ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান অ্যান্থনি ব্রামবল।

হাঁটুর ইনজুরির জন্য বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গিয়ে ছিলেন আন্দ্রে রাসেল। এখনো সন্দেহ রয়েছে তার ফিটনেস নিয়ে। কিন্তু তারপরও দলে জায়গা করে নিয়েছেন তিনিও। তবে শর্ত আছে, ফিটনেস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারলেই কেবল খেলার সুযোগ মিলবে এ তারকা অলরাউন্ডারের।

কানাডা গ্লোবাল টি-টুয়েন্টিতে প্রতিশ্রুতি দেওয়ায় খেলছেন না ক্রিস গেইল। এই সুযোগে ওপেনিংয়ে তার জায়গায় দলে ঢুকে গেছেন জন ক্যাম্পবেল।

ক্যারিবিয়ানদের ওয়ানডে বিশ্বকাপ পরিকল্পনায় ছিলেন নারিন। কিন্তু আঙ্গুলের চোটের জন্য ৫০ ওভার ক্রিকেটের মহাযজ্ঞে অংশ নিতে ঠিক নিজের ওপর আস্থা রাখতে পারেননি এ মেগাস্টার। তবে এ সিরিজে স্পিন আক্রমণে তার সঙ্গী হিসেবে থাকবেন খারি পিয়ের।

আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় বসতে যাচ্ছে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ। নির্বাচকদের দৃষ্টি তাই এখন ওই টুর্নামেন্টের দিকে। যেখানে তারা শিরোপা ধরে রাখার লড়াইয়ে নামবে।

লক্ষ্যটা সামনে রেখে দলের নেতৃত্বভার তুলে দেওয়া হয়েছে কার্লোস ব্র্যাথওয়েটের কাঁধে। ওয়ানডে বিশ্বকাপ সামনে রেখে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে অবশ্য নেতৃত্ব দিয়ে ছিলেন জেসন হোল্ডার।

২৮ বছরের ব্রামবল গত তিন বছরের মধ্যে অফিসিয়াল কোনো টি-টুয়েন্টি ম্যাচ খেলেন। কিন্তু তারপরও নিকোলাস পুরানের উইকেটকিপিং ব্যাক-আপ হিসেবে দলে রাখা হয়েছে তাকে।

বিরাট কোহলির ভারতের বিপক্ষে লডারহিলে ৩ আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে টি-টুয়েন্টি সিরিজ। একই ভেন্যুতে দ্বিতীয় টি-টুয়েন্টি হবে ৪ আগস্ট।

৬ আগস্ট গায়ানার তৃতীয় টি-টুয়েন্টিতে দলে পরিবর্তন আনতে পারেন নির্বাচকরা। টি-টুয়েন্টি সিরিজের পর ভারতের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টেস্ট খেলবে উইন্ডিজ।

উইন্ডিজ টি-টুয়েন্টি দল
কার্লোস ব্র্যাথওয়েট (অধিনায়ক), অ্যান্থনি ব্রামবল (উইকেটরক্ষক), জন ক্যাম্পবেল, শেলডন কটরেল, শিমরন হেটমার, এভিন লুইস, সুনীল নারিন, কিমো পল, খারি পিয়ের, কিয়েরন পোলার্ড, নিকোলাস পুরান (উইকেটরক্ষক), রভম্যান পাওয়েল, আন্দ্রে রাসেল ও ওশানে টমাস।

প্রস্তুতি ম্যাচেই কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে বাংলাদেশ

প্রস্তুতি ম্যাচেই কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে বাংলাদেশ
দুই উইকেট তুলে নিয়েছেন সৌম্য সরকার

আসল লড়াইয়ের আগে প্রস্তুতি পর্বেই বড় লক্ষ্যের সামনে বাংলাদেশ দল। কলম্বোতে তামিম ইকবালদের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশ। এই লড়াইয়ে মঙ্গলবার শুরুতে ব্যাট করতে নেমে বড় সংগ্রহ গড়েছে নিরোশান ডিকভেলার দল।

৮ উইকেটে ৫০ ওভারে শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশ করেছে ২৮২ রান। ৩২ রানে ৩ উইকেট হারালেও শেষ পর্যন্ত বড় সংগ্রহ তুলে নিয়েছে দলটি।

এদিন কলম্বোতে টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে নামে তামিম ইকবালের দল। আর শুরুতেই চেপে ধরেছিল স্বাগতিকদের। কিন্তু শুরুর ধাক্কা সামলে লঙ্কান বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশ গড়ে বড় সংগ্রহ। ম্যাচে দাসুন শানকা ৬৩ বলে খেলেন ৮৬ রানের অপরাজিত এক ইনিংস। শেহান জয়সুরিয়ার ব্যাটে ৭৮ বলে ৫৬।

বাংলাদেশের পক্ষে রুবেল হোসেন ও সৌম্য সরকার নেন দুটি করে উইকেট। মুস্তাফিজুর রহমান ও তাসকিন আহমেদ শিকার করেছেন একটি করে উইকেট। ম্যাচে ৯ বোলারকে দিয়ে বল করিয়েছেন অধিনায়ক তামিম।

২৬, ২৮ ও ৩১ জুলাই স্বাগতিকদের সঙ্গে তিনটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ১ আগস্ট দেশে ফেরার কথা রয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র