গোল উৎসব করেই জিতল রিয়াল-ম্যানসিটি

দাপট দেখিয়ে অনায়াস জয় তুলে নিয়েছে রিয়াল

একেই বলে উড়ন্ত সূচনা। রিয়াল মাদ্রিদের কোচ হয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অভিষেকেই একেবারে হেসে-খেলে জয় পেলেন সান্তিয়াগো সোলারি। শিষ্যরা কোপা দেল রে আর লা লিগার পর এই টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচেও তাকে এনে দিলেন সাফল্য। বুধবার রাতে ভিক্টােরিয়া প্লজেনকে উড়িয়ে দিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ।

রাতের আরেক ম্যাচেও হেসে-খেলে জিতেছে ম্যানচেস্টার সিটি। ম্যাচে হ্যাটট্রিক করেছেন দলের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড গাব্রিয়েল জেসুস। তারই পথ ধরে শাখতার দোনেৎস্ককে বিধ্বস্ত করল তারা। আর তুলে নিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজেদের ইতিহাসে  সবচেয়ে বড় জয়। ‘এফ’ গ্রুপের ম্যাচে ৬-০ গোলে জিতেছে তারা।

রিয়াল মাদ্রিদের সামনে রীতিমতো উড়ে গেছে প্লজেন। ‘জি’ গ্রুপের ম্যাচে প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে ৫-০ গোলের জয় নিয়ে ফিরেছে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। এর আগে প্রথম লেগে ২-১ গোলে জিতেছিল তারা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Nov/08/1541650371390.jpg

ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পুরোটাতেই ছিল রিয়ালের দাপট। তারই পথ ধরে ২০তম মিনিটেই লিড নেয় তারা। টনি ক্রুসের পাস ধরে গোল করেন করিম বেনজেমা। ২২তম মিনিটে ব্যবধানটা দ্বিগুণ করে নেয় তারা। সেই ক্রুসের ভাসানো কর্নারে মাথা ছুঁইয়ে দেন কাসেমিরো।

খেলার ৩৭তম মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলটা পেয়ে যান রিয়ালের ফরাসি তারকা বেনজেমা। ৪০ মিনিটে সেই গোল উৎসবে সামিল হন গ্যারাথ বেল। তারপর দলের হয়ে পঞ্চম গোলটি করেন টনি ক্রুস।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এ অবস্থায় ৪ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে রিয়াল। সিএসকেএ মস্কোকে ২-১ গোলে হারানো এএস রোমার পয়েন্টও ৯। অবশ্য হেড টু হেডে রিয়ালের চেয়ে পিছিয়ে তারা।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Nov/08/1541650420865.jpg

এদিকে নিজেদের মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে ‘এফ’ গ্রুপের ম্যাচে শাখতার দোনেৎস্কের জালে হাফডজন গোল দিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। দুই লেগ মিলিয়ে জিতল ৯-০ গোলে!

খেলার ১৩তম মিনিটে ডেভিড সিলভার গোলে এগিয়ে যায় ইংলিশ জায়ান্টরা। ২৪তম মিনিটে হ্যাটট্রিক অভিযান শুরু হয় জেসুসের। স্পট কিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন এই দলের এই ব্রাজিলিয়ান।

দ্বিতীয়ার্ধে রাহিম স্টার্লিংয়ের গোলে জয় নিশ্চিত হয়ে যায় সিটির। এরইমধ্যে ৭২তম মিনিটে ফের পেনাল্টি পেয়ে যায় দলটি। এবারো স্পটকিকে গোল করতে ভুল করলেন না জেসুস। অার ৮৪তম মিনিটে রিয়াদ মাহারেজের গোল আনন্দে ভাসে ইংলিশ জায়ান্টরা। জেসুস তার হ্যাটট্রিক গোলটা পেয়ে যান ইনজুরি সময়ে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Nov/08/1541650449341.jpg

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ‘এফ’ গ্রুপে ৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। অলিম্পিক লিওঁ ৬ পয়েন্ট নিয়ে আছে এরপরই।

এদিকে এইকে অ্যাথেন্সকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্ব প্রায় নিশ্চিত করেছে বায়ার্ন মিউনিখ। লেভানদফস্কির জোড়া গোলে ২-০ ব্যবধানে জিতেছে জার্মান জায়ান্টরা। ৪ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে ‘ই’ গ্রুপে শীর্ষে আছে বায়ার্ন।

খেলা এর আরও খবর