Alexa

পুজারার সেঞ্চুরিতে রক্ষা ভারতের

পুজারার সেঞ্চুরিতে রক্ষা ভারতের

পুজারার ব্যাটেই দিন শেষ করতে পারল ভারত

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টেই মুদ্রার অপর পিঠ দেখলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। শুরুতেই বুঝে গেলেন এখানে রান তোলা সহজ নয়। এক পর্যায়ে ৪১ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল সফরকারীরা। তারপর ৮৬ রানে ৫ উইকেট। সেই দলটাই অবশ্য অ্যাডিলেড টেস্টের প্রথম দিন শেষে কিছুটা হলেও স্বস্তিতে আছে। কারণ বৃহস্পতিবার দিন শেষে তারা তুলেছে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৫০ রান।

চেতেশ্বর পূজারার ব্যাটেই রক্ষা। এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান তুলে নিয়েছেন শতরান। অন্যরা অজি আক্রমণের মুখোমুখি দাঁড়াতেই পারলেন না! দুর্ভাগ্য পুজারার। দিন পারই করে দিয়েছিলেন। কিন্তু ৮৮তম ওভারে এসে রান চুরি করে নিতেই সর্বনাশ। রানআউটে কাটা পড়েন এই সেঞ্চুরিয়ান। 

শুক্রবার অ্যাডিলেড ওভারে মোহাম্মদ সামির (৬) সঙ্গে ব্যাট হাতে নামবেন জসপ্রিত বুমরাহ (০)।

একাই পুরোটা দিন লড়াই করে ২৪৬ বলে পূজারা করেন ১২৩ রান। তুলে নেন টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৬তম সেঞ্চুরি। স্রোতের বিপরীতে একাই হাল ধরেছিলেন এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান। অন্যরা যেখানে আসা-যাওয়াতেই ব্যস্ত তখন তিনি ২৩১ বল খেলে পা রাখেন তিন অঙ্কের ম্যাজিকেল স্কোরে।

পূজারা শতরান করার পথে টপকে গেলেন ৫ হাজার রানের মাইলফলক। বিস্ময়কর হলেও সত্য টেস্ট ক্যারিয়ারের ৩ হাজার, ৪ হাজার ও ৫ হাজার রানের মাইলফলক রাহুল দ্রাবিড়ের সঙ্গে মিল রেখে ছুঁয়েছেন তিনি। কিংবদন্তি ক্রিকেটার দ্রাবিড় ক্যারিয়ারের ৬৭তম, ৮৪তম ও ১০৮তম ইনিংসে এসে যথাক্রমে এই তিন মাইলফলক ছুঁয়েছিলেন। ঠিক একইভাবে এই মাইলফলকে পা রাখেন পুজারা। কাকতলীয় ব্যাপার হলো তিনিও দ্রাবিড়ের মতো তিন নম্বরেই ব্যাট করেন!

তিনি ছাড়া অন্য ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের কথা আলাদা করে বলার সুযোগ নেই। একটা সময় তো মনেই হয়নি যে দল দুইশ পেরোতে পারবে। ওপেনার লোকেশ রাহুল (২) আর মুরালি বিজয় (১১) অনেকটা পত্রপাঠ বিদায়। এরপর অধিনায়ক বিরাট কোহলি (৩) আর অজিঙ্কা রাহানেও (১৩) দ্রুত ফিরে গেলে ভয়াবহ বিপর্যয়ে পড়ে দল। প্যাট কামিন্সের বলে দুর্দান্ত ক্যাচে কোহলিকে ফেরান উসমান খাজা। তখন পুজারা চেষ্টা করে গেছেন। রোহিত শর্মা বড় ইনিংস খেলার ইঙ্গিত দিয়ে ফিরেন ৩৭ রানে।

শেষ দিকে রিশভ পান্তের ব্যাট থেকে আসে ২৫ আর রবিচন্দ্রন অশ্বিনও করেন ২৫ রান। তাদের নিয়ে লড়েছিলেন পুজারা। কিন্তু যোগ্য সঙ্গ পেলেন না।

চার টেস্টের এই সিরিজে প্রথম দিনই ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মনে ভয় ধরিয়ে দিল অজি বোলাররা। মিচেল স্টার্ক, মার্ক হ্যাজলউড, প্যাট কামিন্স ও নাথান লায়ন জানিয়ে দিলেন সামনে আরো কঠিন পরীক্ষা অপেক্ষা করছে কোহলিদের জন্য। এই চার বোলারই নিয়েছেন দুটি করে উইকেট।