তামিম-সৌম্যর সেঞ্চুরিতে বিশাল জয়

প্রস্তুতি ম্যাচে শতরান পেলেন তামিম-সৌম্য

ম্যাচ শেষে একজন বললেন-ওয়েস্ট ইন্ডিজ যদি এই ম্যাচে ৫০০ রানও করতো, তাও বিসিবি একাদশই জিততো!

বিসিবি একাদশ পুরো ম্যাচে এমন দাপুটে ব্যাটিং করেছে, যা দেখে এই মন্তব্য। ৩৩২ রানের টার্গেটকে ৫০ ওভারের ম্যাচে বিশাল টার্গেট মানতেই হবে। কিন্তু সেই বিশাল টার্গেটও ও যে বিসিবি একাদশের সামনে একেবারে ‘মামুলি’ হয়ে গেল! ৯ ওভার হাতে রেখে ৫১ রানে বিসিবি একাদশের ম্যাচ জয়ী স্কোরকার্ড যে সেই প্রমাণই দিচ্ছে! আলোর স্বল্পতায় দিনের শেষভাগে আম্পায়াররা যখন খেলা শেষ করেন তখন ডার্কওয়ার্থ লুইস মেথেডে বিসিবি একাদশ অনেক এগিয়ে। সেই ডিএল মেথেডে বিসিবি একাদশ ম্যাচ জেতে ৫১ রানের বড় ব্যবধানে।

তামিম ইকবাল সেঞ্চুরি করে বিসিবি একাদশকে ম্যাচ জয়ের পথ দেখান। আর খানিকবাদে সৌম্য সরকারের সেঞ্চুরিতে জয়ের বাকি কাজটা সহজেই সেরে ফেলে বিসিবি একাদশ। তামিম করেন ৭৩ বলে ১০৭ রান। সৌম্যর ব্যাট থেকে আসে ৮৩ বলে অপরাজিত ১০৩ রান। অর্থাৎ জয়ের টার্গেট ৩৩২ রান। এই দুজনেই মিলে করলেন ২১০ রান!

হোক না প্রস্তুতি ম্যাচ। তাতে কি? বিকেএসপিতে এই প্রস্তুতি ম্যাচে ডিএল পদ্ধতিতে ৫১ রানের বিশাল জয়ে মাশরাফির দল জানিয়ে দিলো তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য অপেক্ষা করছে কঠিন সময়।

বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে সকালে টসে জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাট করে ৮ উইকেটে ৩৩১ রানের বিশাল সংগ্রহ দাড় করায়। ওপেনার সাঁই হোপ এবং মিডলঅর্ডারে রোস্টন চেজের হাফসেঞ্চুরিতে এই বড় যোগাড় দাড় করায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শেষের দিকে ফ্যাবিয়েল অ্যালেনের ৩২ বলে ৪৮ রানের ইনিংসও বিকেএসপির মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ব্যাটিংয়ের দ্যুাতি ছড়ায়।

তবে জবাব দিতে নেমে শুরু থেকেই বিসিবি একাদশের মারমার কাটকাট ব্যাটিংয়ের সামনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলিং চুপসে পড়ে। প্রথম পাওয়ার প্লেতে সত্যিকার অর্থেই ‘পাওয়ার’ দেখান তামিম ইকবাল। ওপেনিং জুটিতে ৮১ রান উঠলো মাত্র ৯ ওভারে। ইমরুল কায়েস ২৫ বলে ২৭ রান করে ফিরলেও তামিম ইকবার সেঞ্চুরি তুলেই মাঠ ছাড়লেন। ১৫ সেপ্টেম্বর ইনজুরিতেতে পড়ার পর এই প্রথম মাঠে নামলেন তামিম। আর নেমেই সেঞ্চুরি! মাত্র ৭০ বলে সেঞ্চুরি পুরো হয় তার। ১৩ বাউন্ডারি ও ৪ ছক্কায় ৭৩ বলে ১০৭ রান তামিম যখন ফিরে আসছেন বিসিবি একাদশ তখন ম্যাচ জয়ের শক্ত ভিত পেয়ে গেছে। সৌম্য সরকার অপরাজিত সেঞ্চুরি করে সেই ফিনিসিংটা পুরো করেন।

সকালে ৮ ওভার বল করে সৌম্য সরকার কোন সাফল্য ছাড়াই ৭২ রান খরচা করেছিলেন। ব্যাটিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলারদের ধুমসে পিটিয়ে সেই ক্ষোভ যেন মিটিয়ে নিলেন!

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ আগামী ৯ ডিসেম্বর মিরপুরে মুখোমুখি হবে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৩৩১/৮ (৫০ ওভারে, সাঁই হোপ ৮১, পাওয়েল ৪৩, ব্রাভো ২৪, হেটমায়ার ৩৩, চেজ ৬৫, অ্যালেন ৪৮, অতিরিক্ত ২০, ওয়াইড বল ১৩, রুবেল ২/৫৫, মাশরাফি ১/৩৭, মেহেদি হাসান রানা ২/৬৫, অপু ২/৬১, শামীম পাটোওয়ারি ১/১৬)। বিসিবি একাদশ: ৩১৪/৬ (৪১ ওভারে, তামিম ১০৭, ইমরুল ২৭, সৌম্য ১০৩*, মিঠুন ৫, আরিফুল ২১, তৌহিদ ০, শামীম ৯, মাশরাফি ২২*,  চেজ ২/৫৭)। ফল: ডার্কওয়ার্থ লুইস মেথেডে বিসিবি একাদশ ৫১ রানে জয়ী।

খেলা এর আরও খবর

//election count down