Alexa

কুমিল্লাকে হারিয়ে বদলা রাজশাহীর

কুমিল্লাকে হারিয়ে বদলা রাজশাহীর

ব্যাটসম্যানদের হাত ধরে দুর্দান্ত জয় রাজশাহীর

শেষের ৩৬ বলে ম্যাচ জিততে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের প্রয়োজন ছিলো ৬৭ রানের। কঠিন টার্গেট সন্দেহ নেই। শহীদ আফ্রিদি কুমিল্লার সম্ভাবনার স্বপ্নে আলো জ্বেলেছিলেন। কিন্তু সেই আলো যে নিভিয়ে দিলো রাজশাহী কিংসের মুস্তাফিজুর রহমানের আড়াআড়ি বোলিং। আফ্রিদি ব্যাট চালালেন। বাতাসে ব্যাট শাঁই শাঁই শব্দ করলো কেবল! ব্যাটে-বলেও হলেই না! আফ্রিদি অসহায়! ১৭ নম্বর ওভারে মুস্তাফিজ দিলেন মাত্র ৩ রান। সেই ওভারটাই ম্যাচের বড় পার্থক্য গড়ে দিলো। শেষের হিসেব আরো কঠিন থেকে কঠিন হয়ে গেলো কুমিল্লার জন্য। টার্গেট ছুঁতে পারলো না তারা। রাজশাহী কিংস ম্যাচ জিতলো ৩৮ রানে।

এই মাঠে ১১ জানুয়ারি প্রথম মোকাবেলায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ৫ উইকেটে হারিয়েছিলো রাজশাহী কিংসকে। ফিরতে লড়াইয়ে সেই হারের বদলা নিলো রাজশাহী।

কামরুল ইসলাম রাব্বীর করা ১৮ নম্বর ওভারের প্রথম বলে শহীদ আফ্রিদি আউট হতেই এই ম্যাচে তখন হট ফেভারিট রাজশাহী। ওভারের তৃতীয় বলে ডাউসন আউট। চতুর্থ বলে মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনও শূন্য রানে ক্যাচ হয়ে ফিরলেন। এক ওভারের প্রথম চার বলে তিন উইকেট তুলে কামরুল তখন বড় শিকারি। মুস্তাফিজ আগের ওভারে চাপ তৈরি করেন। পরের ওভারে অন্যপাশ থেকে কামরুল ইসলাম উইকেট শিকারে নামেন। এই ধাক্কায় কুমিল্লার ইনিংস থেমে গেলো ১৩৮ রানে। রাজশাহী কিংস টুর্নামেন্টে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচ জিতলো।

৩ ওভারে ১০ রানে ৪ উইকেট শিকার করা কামরুল ইসলাম রাব্বীর জন্যও দুর্দান্ত সময় কাটলো এই ম্যাচে। আর বরাবরের মতো মুস্তাফিজ এই ম্যাচে ব্যাটসম্যানদের সামনে রহস্য বোলার। ৩.২ ওভারে শিকার ১ উইকেট। খরচ মাত্র ৮ রান!

বোলিংয়ে রাজশাহীর এই কাজটা অবশ্য ব্যাটিং পর্বে সহজ করে দেন রাজশাহী কিংসের লরি এভান্স। টুর্নামেন্টের প্রথম সেঞ্চুরি এলো তার ব্যাটে। মাত্র ৬১ বলে চলতি বিপিএলের প্রথম সেঞ্চুরি করলেন রাজশাহীর এই ইংলিশ ব্যাটসম্যান। মিডলঅর্ডার ছেড়ে এই ম্যাচে ওপেনার হিসেবে খেলতে নামেন এভান্স। খেললেন ২০ ওভারের পুরোটা। এভান্সের ৬২ বলে অপরাজিত ১০৪ এবং রায়ান টেন ডেসকাটের হার নামা ৫৯ রান রাজশাহীকে ১৭৬ রানের বিশাল স্কোর এনে দেয়।

রান তাড়ায় নামা কুমিল্লার টপঅর্ডার ব্যাটসম্যানরা শুরুটা ভাল করলেও কেউ ব্যক্তিগত ইনিংসগুলো বড় করতে পারেননি। ঠিক যে কাজটা খুব সুচারুভাবে করেন রাজশাহী কিংসের লরি এভান্স ও রায়ান ডেন ডেসকাট।  

সংক্ষিপ্ত স্কোর: রাজশাহী কিংস:১৭৬/৩ (২০ ওভারে, শাহরিয়ার নাফীস ৫, এভান্স ১০৪*, মিরাজ ০, মার্শাল ২, ডেসকাট ৫৯*, ডাউসন ২/২০)। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স: ১৩৮/১০ (১৮.২ ওভারে, তামিম ২৫, আনামুল ২৬, শামসুর ১৫, জিয়াউর ১২, ইমরুল ১৫, ডাউসন ১৭, পেরেইরা ০, আফ্রিদি ১৯, কামরুল ৪/১০, কায়েস ২/৪৬, ডেসকাট ২/১৫, মুস্তাফিজ ১/৮) ফল: রাজশাহী কিংস ৩৮ রানে জয়ী। ম্যাচ সেরা: লরি এভান্স।

আপনার মতামত লিখুন :