Barta24

বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

English

শেষ ওভারে ফ্রাইলিঙ্কের তিন ছক্কায় ম্যাচ চিটাগংয়ের

শেষ ওভারে ফ্রাইলিঙ্কের তিন ছক্কায় ম্যাচ চিটাগংয়ের
হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হলো ঢাকার সমর্থকদের
এম. এম. কায়সার
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

লড়াইটা ছিলো একের সঙ্গে দুইয়ের। পয়েন্টের শীর্ষে ঢাকার সঙ্গে দ্বিতীয় স্থানে থাকা চিটাগংয়ের।

ম্যাচের শেষে সেই হিসেবটা বদলে গেলো। সমান পাঁচ জয়ে পয়েন্ট তালিকায় এখন ঢাকার সঙ্গে সমতায় চিটাগং। আর সেই হিসেব বদলে দিলো ম্যাচের শেষ ওভারে রোবি ফ্রাইলিঙ্কের তিন ছক্কা! ১ বল হাতে চিটাগং ম্যাচ জিতলো ৩ উইকেটে। শেষ ওভারে ১৬ রানের বড় লক্ষ্যকে তিন ছক্কায় মামুলি বানিয়ে দিলেন ফ্রাইলিঙ্ক। শেষ ওভারের ঢাকার বেচারা বোলার মোহর শেখ! ১০ বলে অপরাজিত ২৫ রান হাঁকিয়ে ম্যাচ সেরার মর্যাদাও পেলেন ফ্রাইলিঙ্ক।

শেষ ২৪ বলে চিটাগং ভাইকিংসের জেতার জন্য প্রয়োজন দাড়ায় ২৬ রান। সাকিব ও রুবেল হোসেনের শেষের দুর্দান্ত বোলিং চিটাগংয়ের জন্য সহজ কাজটা ক্রমশ কঠিন করে দেয়। ১৭ থেকে ১৯ এই তিন ওভারে চিটাগং মাত্র রান তুলতে পারে। হারায় দুই উইকেট। শেষ ওভারের হিসেবটা দাড়ায় এমন; ৬ বলে চাই ১৬ রান। সাকিব সম্ভবত ম্যাচে সবচেয়ে বড় ভুলটা তখনই করেন; আন্দ্রে রাসেলের হাতে বল না দিয়ে মোহর শেখকে শেষ ওভার করতে ডাকেন। সেই ওভারে দ্বিতীয়, চতুর্থ এবং পঞ্চম বলে তিন ছক্কা হাঁকিয়ে ফ্রাইলিঙ্ক আরেকবার চিটাগং ভাইকিংসের ম্যাচ জয়ের নায়ক।
একটু অন্যভাবে বললে বলা হচ্ছিলো এটি সাকিব বনাম মুশফিকের ম্যাচ। তো সেই নামের ম্যাচে ব্যাট হাতে দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি রান করলেন সাকিব। ২ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ৩৪ বলে ৩৪ রান। বল হাতেও যে দলের পারফরমেন্স তারই; ১৬ রানে ৪ উইকেট। একেবারে পারফেক্ট অলরাউন্ড নৈপূন্য।  বিপিএলে এটি সাকিবের সেরা বোলিং পারফরম্যান্স। অন্যদিকে মুশফিক সঙ্কটে পড়া তার দলকে ভালই টেনে নিয়ে চলছিলেন। কিন্তু ২৩ বলে ২২ রানের ইনিংস তার শেষ হয়ে গেলো অ্যাডভেঞ্চার শটে! তখনো ম্যাচ জয় থেকে তার দল বেশ পেছনে; ৪৫ রান দুরে।

শেষের সেই দুরুত্ব ঘুচিয়ে দিচ্ছিলো মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের ব্যাট। কিন্তু তিনিও ফিনিসার হতে পারেননি। আরেকবার চিটাগং ভাইকিংসকে ব্যাট হাতে ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ জেতালেন রোবি ফ্রাইলিঙ্ক। ব্যক্তিগত পারফরমেন্সে মুশফিককে হারালোও ম্যাচ যে জিততে পারলেন না সাকিব।

টসে জিতে ঢাকা ডায়নামাইটস ব্যাটিং বেছে নেয়। টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত ব্যাটিংয়ে সবচেয়ে সবল পেশি দেখিয়েছে ঢাকা। তবে এই ম্যাচে ঢাকার ১৩৯ রানের ইনিংসকে খুব শক্তিশালী কিছু বলার উপায় নেই। ভাল খেলতে থাকা ব্যাটসম্যানদের কেউ ফিনিশার হতে পারেননি। তাই বড় স্কোরের স্বপ্ন ছড়িয়েও ১৪০ এর নিচে আটকে গেলো ঢাকা। ওপেনিংটা আরেকবার ভাল হলো না। মিডলঅর্ডারে সাকিব আল হাসান যথারীতি হাল ধরলেন। উইকেট পরিস্থিতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে ব্যাট করে চলছিলেন সাকিব। উইকেটকিপার কাম ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহান ও সাকিবের জুটিতে ঢাকা দাপট নিয়েই সামনে বাড়ছিলো। প্রায় হঠাৎ করেই এই সময় বল হাতে নিয়ে ক্যামেরন স্কট দেলপোর্ট ম্যাচের মোড় বদলে দিলেন। সিলেট পর্বের শেষ ম্যাচে টাইটানসের বিপক্ষে দুই উইকেট শিকারি দেলপোর্টের পারফরম্যান্স অধিনায়ক মুশফিকের সুখস্মৃতিতে তরতাজা ছিলো। এই ম্যাচেও মুলত পার্টটাইম বোলার হিসেবেই দেলপোর্টের হাতে বল তুলে দেন চিটাগং ভাইকিংস অধিনায়ক। ছয় নম্বর বোলার হিসেবে বল হাতে নিয়ে দেলপোর্ট এবারো যে পারফরমেন্স দলের স্ট্রাইক বোলারদেরও ছাপিয়ে গেলো! ৪ ওভারে ২৫ রানে ৩ উইকেট! সাকিবকে ফেরালেন ৩৪ রানে। সোহানকে বিদায় করলেন সেই একই ওভারে। শেষের দিকে মোহাম্মদ নাঈমকে ইয়র্কারে বোল্ড করলেন!

একসময় মাত্র ৩ ওভারে ২৭ রান তোলা ঢাকা ডায়মাইটসের ইনিংস ৯ উইকেটে ১৩৯ রানে থেমে গেলো। চিটাগং ভাইকিংসের এই কৃতিত্বে দেলপোর্টের সঙ্গে দলের তিন পেসার ফ্রাইলিঙ্ক, আবু জায়েদ ও খালেদ আহমেদও পিঠ চাপড়ে দেয়ার মতো প্রশংসা পাচ্ছেন।

তবে ম্যাচ শেষে কারো এদের কারো বোলিং নয়; শেষ ওভারে ফ্রাইলিঙ্কের তিন ছক্কার ইনিংসই সব আলো ছিনিয়ে নিলো!

সংক্ষিপ্ত স্কোর: ঢাকা ডায়নামইটস: ১৩৯/৯ (২০ ওভারে, নারিন ১৮, কুন ১৮, সাকিব ৩৪, সোহান ২৭, শুভগত ২৮, দেলপোর্ট ৩/২৫, ফ্রাইলিঙ্ক ২/১৯, আবু জায়েদ ২/২৬, খালেদ ১/২৭)। চিটাগং ভাইকিংস: ১৪৫/৭ (১৯.১ ওভারে, দেলপোর্ট ৩০, ইয়াসির আলী ১৫, মুশফিক ২২, মোসাদ্দেক ৩৩, ফ্রাইলিঙ্ক ২৫*, সাকিব ৪/১৬, রুবেল ১/২৪)। ফল: চিটাগং ভাইকিংস ৩ উইকেটে জয়ী। ম্যাচ সেরা: রোবি ফ্রাইলিঙ্ক।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রথম ম্যাচেই হতাশ করল বাংলাদেশের মেয়েরা

প্রথম ম্যাচেই হতাশ করল বাংলাদেশের মেয়েরা
শুরুটা ভাল হয়নি বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ২১ নারী হকি দলের

জয়ের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নেমে উল্টো অর্ধ ডজন গোল হজম! হতাশা নিয়েই প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ শেষ করেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ২১ নারী হকি দল। ভারতের সাই একাডেমির মেয়েরা অনায়াসেই হারাল স্বাগতিকদের।

আগামী ৯ সেপ্টেম্বর থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর সিঙ্গাপুরে ওমেন্স জুনিয়র এএইচএফ কাপ। এই লড়াইয়ের আগে ঘরের মাঠে প্রস্তুতি পর্বে ভারতের সাই জাতীয় হকি একাডেমির নারী দলের সঙ্গে লড়েছে মেয়েরা। ৬ ম্যাচের সিরিজ খেলবে দল দুটো।

তবে শুরুতেই মঙ্গলবার মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব ২১ নারী হকি হার মেনেছে ৬-০ গোলে।

অবশ্য ভারতের সাই (স্পোর্টস অথরিটি অব ইন্ডিয়া) একাডেমি বেশ শক্তিশালী। গত ৩ বছর ধরে অনুশীলন করছে তারা। আর বাংলাদেশ প্রস্তুতি নিচ্ছে মাত্র ৩ মাস ধরে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/20/1566314459387.jpg

অবশ্য ম্যাচের প্রথম কোয়ার্টারে বেশ প্রতিরোধ গড়েছিল স্বাগতিক মেয়েরা। কিন্তু হতাশ করে দ্বিতীয় কোয়ার্টারে। ম্যাচের ১৮তম মিনিটে সাই একাডেমির বিনব্রতা যাদব পেনাল্টি স্ট্রোকে গোল করে এগিয়ে নেন দলকে। তারপর ২০তম মিনিটের মাথায় লালান পুই ফিল্ড গোলে দ্বিগুণ করেন ব্যবধান।

২৯তম মিনিটে বিনব্রতা করেন আরেকটি গোল। ৩২ মিনিটে তানিয়ার ফিল্ড গোলে আরও পিছিয়ে পড়ে মেয়েরা। ৪২ মিনিটে লতিয়া মেরি ও ৪৬ মিনিটে গোল করেন লালরুয়াতফেলি মেসাবি।

এর আগে প্রস্তুতি সিরিজের উদ্বোধন করেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. জাফর উদ্দীন।

সিরিজের পরের দুই ম্যাচ ২২ ও ২৩ আগস্ট। শেষ তিনটি ২৫, ২৬ ও ২৭ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে।

ডিআরইউ মিডিয়া ফুটবলে বার্তাটোয়েন্টিফোর

ডিআরইউ মিডিয়া ফুটবলে বার্তাটোয়েন্টিফোর
টুর্নামেন্টের ট্রফি হাতে ডিআরইউ ও স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা

আগামী বৃহস্পতিবার শুরু হচ্ছে ওয়ালটন-ডিআরইউ মিডিয়া ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০১৯। ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) আয়োজনে ও ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় এই টুর্নামেন্ট চলবে ২৯ আগস্ট পর্যন্ত। রাজধানীর ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী জাতীয় হ্যান্ডবল স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার সকালে এই টুর্নামেন্টের উদ্বোধন হবে।

এবারের আসরে খেলবে দেশের প্রথম মাল্টিমিডিয়া অনলাইন নিউজপোর্টাল বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম। সব মিলিয়ে ৪০টি গণমাধ্যমের রিপোর্টাররা অংশ নেবেন এবারের টুর্নামেন্টে। প্রতি গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন দল কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে যাবে।

নকআউট পদ্ধতিতে ৪০ দল ৮টি গ্রুপে ভাগ হয়ে লড়বে। বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম রয়েছে গ্রুপ-জি'তে। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ জিটিভি, ইত্তেফাক, আলোকিত বাংলাদেশ এবং বাসস।

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) ডিআরইউ সভাপতি ইলিয়াস হোসেনের সভাপতিত্বে সাগর-রুনি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ড্র অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানান ক্রীড়া সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শামীম। এ সময় পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক এফ এম ইকবাল বিন আনোয়ার ডন, ডিআরইউ অর্থ সম্পাদক জিয়াউল হক সবুজ, সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল বারী, দফতর সম্পাদক মো. জেহাদ হোসেন চৌধুরী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শেখ মাহমুদ এ রিয়াতসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ট্রফি, মেডেল ও ৩০ হাজার টাকা প্রাইজমানি। রানার্স-আপ দল ট্রফি, মেডেলের সঙ্গে পাবে ২০ হাজার টাকা প্রাইজমানি। প্রত্যেকটি দল প্রতি ম্যাচে ১ হাজার টাকা করে ম্যাচ ফি পাবে। গ্রুপ পর্বের প্রতিটি ম্যাচের ম্যাচসেরা খেলোয়াড় ক্রেস্ট পাবেন।

টুর্নামেন্টের গ্রুপিং-

গ্রুপ-এ: ১. আমাদের সময় ২. ডেইলি সান ৩.বাংলাদেশ পোস্ট ৪.বাংলা ট্রিবিউন ৫. চ্যানেল ২৪
গ্রুপ-বি: ১. এটিএন বাংলা ২. সময়ের আলো ৩. ভোরের কাগজ ৪. রাইজিং বিডি ৫. জনকন্ঠ
গ্রুপ-সি: ১. বাংলাভিশন ২. নয়া দিগন্ত ৩. বাংলাদেশের খবর ৪. ইনকিলাব ৫. আমাদের অর্থনীতি
গ্রুপ-ডি: ১. চ্যানেল আই ২. কালের কন্ঠ ৩. দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট ৪. মানবজমিন ৫. জাগোনিউজ২৪
গ্রুপ-ই: ১. এসএ টিভি ২. আজকালের খবর ৩. সারাবাংলা.নেট ৪. বাংলাদেশ টেলিভিশন ৫. বিডিনিউজ২৪.কম
গ্রুপ-এফ: ১. আরটিভি ২. আমার সংবাদ ৩. যুগান্তর ৪. এটিএন নিউজ ৫. বাংলাদেশ প্রতিদিন
গ্রুপ-জি: ১. বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম ২. জিটিভি ৩. ইত্তেফাক ৪. আলোকিত বাংলাদেশ ৫. বাসস
গ্রুপ-এইচ: ১. এনটিভি ২. নাগরিক টিভি ৩. ঢাকা টাইমস ৪. সংগ্রাম ৫. জাগরণ।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র