Alexa

ক্রাইষ্টচার্চেও সেই একই ব্যাটিংয়ের বাংলাদেশ!

ক্রাইষ্টচার্চেও সেই একই ব্যাটিংয়ের বাংলাদেশ!

আবারও ব্যাটে হাতে দাপট মোহাম্মদ মিঠুনের

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম

ব্যাটিং চিত্রের সেই পুরানো গল্প!

নেপিয়ারের ব্যাটিং ব্যর্থতাকেই যেন ক্রাইষ্টচার্চের দ্বিতীয় ওয়ানডেতেও ফিরিয়ে আনলো বাংলাদেশ। অবশ্য এবার মোট রান আরেকটু কম, ২২৬ রান!

তবে দলের ব্যর্থতায় রুখে দাড়ানোর চিত্রনাট্যে এখানেও মোহাম্মদ মিঠুন এবং সঙ্গী সাব্বির রহমান। টপঅর্ডারের ভয়াবহ ব্যর্থতায় মোহাম্মদ মিঠুন করলেন ৬৯ বলে ৫৭ রান। সাত নম্বরে ব্যাট করতে নামা সাব্বিরের ব্যাটে এলো ৬৫ বলে ৪৩ রান। এই দুইয়ের ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে যোগ হওয়া ৭৫ রান এবং লেজের সারির ব্যাটসম্যানদের টিকে থাকার ব্যাটিংয়ের কল্যানে  সোয়া দু’শো পার করলো বাংলাদেশের সঞ্চয়। তবে দলের এই সংগ্রহের জন্য নিউজিল্যান্ডের ফিল্ডারদের অবদানও কম নয়! সবমিলিয়ে পাঁচটি ক্যাচ মাটিতে ফেলে নিউজিল্যান্ড এই ম্যাচে! ক্যাচ পড়ার সেই তালিকায় আছে ইনিংসের সর্বোচ্চ রান করা ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন ও সাব্বির রহমানের নামও।

২২৬ রান, নিউজিল্যান্ডের উইকেটে স্বাগতিকদের চ্যালেঞ্জ জানানোর মতো এই স্কোর মোটেও যথেষ্ট কিছু নয়।

ক্রাইষ্টচার্চের বৃষ্টিভেজা আবহাওয়ায় টসে জিতে নিউজিল্যান্ড বোলিং বেছে নেয়। যথারীতি আরেকদফা বাংলাদেশের টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান ব্যর্থ নিউজিল্যান্ডের গতির ঝড় সামাল দিতে।

লিটন দাস যে কায়দায় আউট হলেন, তাতে সিরিজের শেষ ম্যাচের একাদশে তার জায়গা ধরে রাখা কঠিন হবে। মাত্র ৪ বল খেলার পর তার মনে হলো পেস বোলার ট্রেন্ট বোল্টকে সামনে বেড়ে মারি! সেই অ্যাডভেঞ্চারে উইকেট খুঁইয়ে দিয়ে ফিরলেন লিটন। তামিম ইকবাল  এই ম্যাচেও ব্যর্থ। সৌম্য সরকারও ঠিক তার নেপিয়ারের ইনিংসকে ফিরিয়ে আনলেন এই ম্যাচে। আউটও হলেন সেই ‘ধারা’ মেনেই! ২৩ বলে ২২ রান করে উইকেট হারালেন। ক্যারিয়ারের ২০০ নম্বর ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে নেমে মুশফিক ২৪ রানে হার মানলেন লকি ফার্গুসনের গতি ঝড়ে। মাহমুদউল্লাহ যখন ফিরলেন স্কোরবোর্ডে বাংলাদেশের সংগ্রহ তখনো তিন অংকে পৌছায়নি! ২০.৫ ওভারে ৯৩ রানে নেই ৫ উইকেট।

এরপর মোহাম্মদ মিঠুন ও সাব্বির রহমানের ষষ্ঠ উইকেটে প্রতিরোধ। তবে হঠাৎ করে হ্যামস্ট্রিং ইনজুরিতে পড়ার পর মিঠুন ব্যাটিংয়ে কিছুটা মনোযোগ হারিয়ে ফেলেন। সিরিজে নিজের টানা দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরির পর টড অ্যাস্টলের স্পিনে বোল্ড হয়ে ফিরলেন। লকি ফার্গুসন ভাল খেলতে থাকা সাব্বির রহমানকে ফেরালেন নিজের শেষ স্পেলের বোলিংয়ে। মেহেদি হাসান, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, মাশরাফি এবং মুস্তাফিজুর রহমান-শেষের এই চারজনের যৌথ সংগ্রহ ৪৪ রান।

তাতেই বাংলাদেশের স্কোর গিয়ে পৌছালো ২২৬ রানে। এই স্কোরকে মান বাঁচানো বলা যায়, তবে ম্যাচ বাঁচানো নয়!

সিরিজের প্রথম ম্যাচে নেপিয়ারে বাংলাদেশ ৮ উইকেটে হেরেছিলো।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: বাংলাদেশ: ২২৬/১০ (৪৯.৪ ওভারে, তামিম ৫, লিটন ১, সৌম্য ২২, মুশফিক ২৪, মিঠুন ৫৭, মাহমুদউল্লাহ ৭, সাব্বির ৪৩, মেহেদি ১৬, সাইফুদ্দিন ১০, মাশরাফি ১৩, মুস্তাফিজ ৫, ফার্গুসন ৩/৪৩, হেনরি ১/৩০)।

খেলা এর আরও খবর