Alexa

বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে অনিশ্চয়তা!

বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে অনিশ্চয়তা!

মাঠে ফের এভাবে দেখা যাবে কি ভারত-পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের?

অনেক দিন ধরেই দুই দেশের ক্রিকেট সম্পর্কটা বৈরি। দ্বি-পাক্ষিক সিরিজও খেলছে না ভারত-পাকিস্তান। ক্রিকেটপ্রেমীদের জন্য আইসিসি কিংবা এসিসির টুর্নামেন্টই ছিল ভরসা। এবার তেমন কোন লড়াইয়ে দুই দেশের সাক্ষাত নিয়েও দেখা দিয়েছে শঙ্কা! জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় পাকিস্তানবিরোধী প্রতিবাদে উত্তাল এখন ভারত। সেই আঁচ এসে লেগেছে ক্রিকেটেও।

দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর শীতল সম্পর্কটা আরো খারাপ হয়ে গেল। এমন কী ইংল্যান্ডে মে-তে শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ বয়কটেরও কথাও নাকি ভাবছে ভারত। খোদ ক্রিকেট ক্লাব অব ইন্ডিয়ার (সিসিআই) সচিব সুরেশ বাফনা এমন প্রস্তাব দিয়েছেন। তার সঙ্গে এখন গলা মেলাচ্ছেন অনেকেই। যেখানে সাবেক ক্রিকেটারদের পাশাপাশি আছেন রাজনীতিবিদরাও।

ভারতের তারকা অফস্পিনার হরভজন সিংও মনে করেন পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটা বয়কট করা উচিত ভারতের। ভারতশাসিত জম্মু-কাশ্মীরে বোমা হামলায় সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের ৪০  সদস্যের মৃত্যুর পর প্রতিবাদী হয়ে উঠেছেন দেশটির নাগরিকরা। পাকিস্তান ভিত্তিক সন্ত্রাসী সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ এই হামলার দায় স্বীকার করেছে। তারপরই পাকিস্তানের সঙ্গে সব ধরণের সম্পর্কের ইতি টানতে চাইছে ভারতীয়রা।

চাপের মুখে আছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডও (বিসিসিআই)। পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) খেলা ক্রিকেটারদের আইপিএলে খেলার অনুমতি না দেয়ার দাবি করেছেন অনেকে।

তবে এরইমধ্যে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও '৯২ বিশ্বকাপজয়ী দলের অধিনায়ক ইমরান খানসহ একাধিক ক্রিকেটারের ছবি ঢেকে দিয়েছে ক্রিকেট ক্লাব অব ইন্ডিয়া। পাকিস্তান সুপার লিগের সম্প্রচার বন্ধ করেছে আইএমজি-রিলায়েন্স।

এরমধ্যে ২০১৯ বিশ্বকাপের পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ ভারত বয়কট করলে অবশ্য ঝামেলায় পড়বে আইসিসি। ম্যাচটি ঘিরে দর্শকদের আকাশচুম্বী আগ্রহ। আর টিভি ও অন্য বাণিজ্যিক স্বত্ব বিক্রি হয়ে গেছে। তবে ম্যাচ বয়কট করলে লাভ হবে পাকিস্তানের। পূর্ণ পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়বে। আগামী ১৬ জুন ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা।

আপনার মতামত লিখুন :