হ্যামিল্টন টেস্টেই শুরু হোক বদলে যাওয়ার গল্প!

এম. এম. কায়সার, স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম
টেস্ট মিশনের আগে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ- ছবি : বিসিবি

টেস্ট মিশনের আগে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ- ছবি : বিসিবি

  • Font increase
  • Font Decrease

টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে একটা বিষয়ে দু’দলের মধ্যে আপাতত একটা মিলই খুঁজে পাওয়া গেল। নিউজিল্যান্ড দেশের মাটিতে তাদের সর্বশেষ তিন টেস্ট সিরিজে জিতেছে। বাংলাদেশও নিজ মাটিতে সর্বশেষ তিন টেস্টে জয় পেয়েছে।

ব্যস বাকি সবকিছুতেই দু’দলের মধ্যে ব্যবধান অনেক বড়। দুইয়ের সঙ্গে নয়ের পার্থক্যকে তো বড় মানতেই হচ্ছে! এই মূহূর্তে টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে নিউজিল্যান্ডের অবস্থান ২। আর বাংলাদেশ সেই পুরানো ৯ নম্বরে। ২৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার ভোরে শুরু হতে যাওয়া এই টেস্ট সিরিজে নিউজিল্যান্ড হট ফেভারিট। বাংলাদেশের পক্ষে বাজারে বাজি ধরার লোক কই?

সিরিজটা নিউজিল্যান্ডে বলেই সিরিজ পূর্ব হিসেব নিকেষে এত বড় ব্যবধান! বাংলাদেশের মাটিতে হলে র‌্যাঙ্কিং যাই থাকুক না কেন, হিসেবের মধ্যে রাখতেই হতে বাংলাদেশকে। হ্যামিল্টনে সিরিজের প্রথম টেস্টে বাংলাদেশ হিসেব বা ধর্তব্যের মধ্যে থাকছে কিনা-তার সিংহভাগই মুলত নির্ভর করছে দলের ব্যাটসম্যানদের ওপর।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Feb/27/1551270345202.jpg

টপঅর্ডার ক্লিক করলে বাংলাদেশ ঠিক। টপঅর্ডার ব্যর্থ মানে দলও ডিসঅর্ডার! আর তাই সিরিজ পূর্ব পরিকল্পনায় দলের ব্যাটসম্যানদের কাছে সুশৃঙ্খল ব্যাটিংয়ের প্রত্যাশাই করছেন বাংলাদেশ কোচ স্টিভ রোডস। দেশের মাটিতে যে উইকেটে খেলে অভ্যস্ত বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা, এখানে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে সেই উইকেট মিলবে না। এখানে বল শরীর ধেয়ে আসবে। বাউন্স থাকবে। সুইং থাকবে। স্টিভ রোডস সেই প্রসঙ্গে বলছিলেন-‘এখানকার উইকেটে কখনো সামনের পায়ে কখনো পেছনের পায়ে গিয়ে খেলতে হবে। বাউন্সের সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। বাতাস থাকবে। সুইংয়ের মোচড়ও মিলবে। ব্যাটসম্যানদের এই বাউন্স ও সুইংয়ের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে হবে।’

দুঃখজনক বিষয় হলো ওয়ানডে সিরিজে মানিয়ে নেয়ার সেই প্রাথমিক শর্তটাই পুরণ করতে পারেনি দলের টপঅর্ডার ব্যাটসম্যানরা। শটস খেলার তাড়াহুড়োর প্রবণতায় শুরুতেই হারায় বাংলাদেশ দল। সেই ধাক্কা থেকে দল আর বেরিয়ে আসতে পারেনি। কোচ আশায় আছেন সাদা পোষাকের ক্রিকেটে সফরে এবার বাংলাদেশ রঙিন পারফরমেন্স দেখাতে সক্ষম হবে। তবে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে বাংলাদেশের টেস্ট পরিসংখ্যানের পাতা উল্টালে সমর্থকদের মন খারাপ হয়ে যাওয়ারই কথা! এখন পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের মাটিতে বাংলাদেশ যত টেস্ট খেলেছে সব টেস্টেই হেরেছে। এমনকি শেষবারের সফরে ওয়েলিংটন টেস্টে ৮ উইকেটে ৫৯৫ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা দেয়া ম্যাচেও বাংলাদেশ হেরে যায়!

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Feb/27/1551270362887.jpg

দুঃখ কাহিনী আরো আছে। বৃষ্টিতে প্রথম দুদিন খেলা হয়নি এমন টেস্ট ম্যাচও বাংলাদেশ হেরেছে এই নিউজিল্যান্ডের মাটিতে।

হিসেবটা বদলে দিতে পারবে বাংলাদেশ এবার? এই প্রথম নিউজিল্যান্ডের মাটিতে তিন টেস্টের সিরিজ খেলতে নামছে বাংলাদেশ। বড় পরিধির টেস্ট সিরিজেই তাহলে পরিসংখ্যান এবং হিসেব বদলে যাওয়ার স্মরনীয় গল্পটা শুরু হোক!

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Feb/27/1551270383195.jpg

সিরিজের প্রথম টেস্টে বাংলাদেশ পুরো শক্তির দল নিয়েও খেলতে পারছে না। ইনজুরির কারণে মুশফিকুর রহিম হ্যামিল্টন টেস্টে খেলছেন না। নিয়মিত টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান তো সফরেই নেই। আঙ্গুলের চোট সারাতে বিশ্রামে সাকিব। দলের সবচেয়ে সিনিয়র দুজনেই নেই সিরিজের প্রথম টেস্টে। অভিজ্ঞ বলতে মুলত তিনজন তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মমিনুল হক। ব্যাটিংয়ে সঙ্গে থাকা মোহাম্মদ মিঠুন, লিটন দাস সৌম্য সরকার ও সাদমান ইসলাম। হ্যামিল্টন টেস্টের একাদশে মুলত এই সাত ব্যাটসম্যান নিয়েই খেলবে বাংলাদেশ। এই সাত ব্যাটসম্যানের মধ্যে কেবলমাত্র তামিম, মাহমুদউল্লাহ ও মুমিনুলের টেস্ট সেঞ্চুরি রয়েছে। এই তিনজনের সম্মিলিত টেস্ট সেঞ্চুরির যোগফল ১৯।

নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের টেস্ট সেঞ্চুরির সংখ্যাও একেবারে ঠিক তাই; ১৯!

সংখ্যায় কি অদ্ভুত মিল। তবুও কি বিশাল ব্যবধান!

আপনার মতামত লিখুন :