Alexa

মেসি ম্যাজিকে রেকর্ড জয় বার্সার

মেসি ম্যাজিকে রেকর্ড জয় বার্সার

জয়ের ছন্দে লিওনেল মেসির বার্সেলোনা

স্রোতের বিপরীতে পিছিয়ে পড়েছিল দল। এরপর একাই দৃশ্যপট বদলে দিলেন তিনি। লিওনেল মেসি বুঝিয়ে দিলেন কেন তিনি সেরা। তার ম্যাজিক ফুটবলেই রায়ো ভাইয়েকানোকে অনায়াসেই হারাল বার্সেলোনা। ন্যু ক্যাম্পে নিজেদের মাঠে লা লিগার ম্যাচে ৩-১ গোলে জিতেছে কাতালান ক্লাবটি।

এই জয়ের পথ ধরেই ইর্ষনীয় এক রেকর্ড গড়ল বার্সা। লা লিগায় কোনো এক ক্লাবের বিপক্ষে নিজেদের ইতিহাসে টানা সর্বোচ্চ ১৩ জয়ের রেকর্ড গড়েছে মেসির দল।

শনিবার যদিও ম্যাচটিতে প্রথমে পিছিয়ে পড়েছিল বার্সা। রাউল দে তমাসের গোলে এগিয়ে যায় ভাইয়েকানো। এরপর স্বস্তি ফেরান জেরার্ড পিকে। তারপর স্পট কিক থেকে গোল করে  মেসি এগিয়ে দেন দলকে। জয় নিশ্চিত হয়ে যায় লুইস সুয়ারেসের গোলে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/10/1552186248973.jpg

নিজেদের মাঠে দাপট নিয়ে খেললেও ২৪তম মিনিটে পিছিয়ে পড়ে বার্সা। রাউল দে তমাসের গোলে স্তব্ধ হয়ে যায় গ্যালারি। তুলে নেন চলতি লিগে নিজের ১১ নম্বর গোল। এরপর ৩৮তম মিনিটে মেসির ভাসানো ফ্রি কিকে দুর্দান্ত এক হেডে সমতা ফেরান পিকে।

৫১তম ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মেসি। তার মেসির সফল স্পট কিকে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। নেলসন সেমেদো ফাউলের শিকার হলে ভিএআর প্রযুক্তিতে দেখে পেনাল্টি দেন রেফারি। আর সেই সুযোগটা মিস করলেন না মেসি। যা কীনা এবারের লা লিগায় তার সর্বোচ্চ ২৬ নম্বর গোল।

৮২তম স্কোর আরো বাড়িয়ে নেন সুয়ারেস। এটি এবারের লা লিগায় তার ১৭তম গোল।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/10/1552186273036.jpg

এই ম্যাচে নেমেই মেসি টপকে যান আন্দ্রেস ইনিয়েস্তাকে। যিনি বার্সার হয়ে খেলেন ৪৪২ ম্যাচ। লিগে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার তালিকায় মেসির (৪৪৩) সামনে আছেন শুধু জাভি (৫০৫)।

আর এই জয়ে ২৭ ম্যাচে শীর্ষে থাকা বার্সার অর্জন ৬৩ পয়েন্ট। ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে আতলেতিকো মাদ্রিদ।

এদিকে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ওয়াটফোর্ডকে অনায়াসে হারাল ম্যানচেস্টার সিটি। শনিবার রাহিম স্টার্লিংয়ের হ্যাটট্রিকে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ফেভারিটরা। মাত্র ১৩ মিনিট ১২ সেকেন্ডের মধ্যে তিনটি গোল করেন তিনি।

এই জয়ে এই জয়ে ৩০ ম্যাচে ৭৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকল সিটি। এক ম্যাচ কম খেলে লিভারপুলের অর্জন ৭০ পয়েন্ট।

আপনার মতামত লিখুন :