Barta24

মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

English

গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের প্রথম জয়

গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের প্রথম জয়
মেহেদি হাসানের ব্যাটে ৭০ রানের ইনিংস
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

মেহেদি হাসান যখন ৭০ রানে আউট হয়ে ফিরলেন তখনো ম্যাচ জয় থেকে একশ’রও বেশি রান প্রয়োজন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের। ওভার বাকি ২০। উইকেট হাতে ৫টি। ডাগআউটে উদ্বেগের ছাপ স্পষ্ঠ। কিন্তু সব টেনশন দুর করে দিলেন মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান তৌহিদ তারেক। সঙ্গী হিসেবে নিলেন আবু হায়দার রনিকে। এই দুজনের ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে অপরাজিত ৬৭ রান গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে তাদের প্রথম জয় এনে দিলো।

বিকেএসপির গড়া ২৪৯ রান টপকে গেলো গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ৪ উইকেট হাতে রেখে। ম্যাচের নায়ক তৈাহিদ তারেক ৯৩ বলে হার নামা ৭৬ রান করেন। সমান তিন বাউন্ডারি ও ছক্কায় সাজানো তার এই ইনিংস গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে স্বস্তির জয় এনে দিলো। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে তাকে দারুণ সমর্থন দেন ২৪ বলে হার না মানা ৩২ রান করে আবু হায়দার রনি।

ফতুল্লায় টসে হেরে ব্যাট করতে নামা বিকেএসপির শুরুর চার ব্যাটসম্যানই যা রান করার করলেন। রাতুল খান ও মাহমুদুল হাসান জয়ের ওপেনিং জুটিতে জমা ১৫০ রান। রাতুল করেন ৩৪। জয় দলের সর্বোচ্চ ৯৩ বলে ৮৫ রান। ওয়ানডাউনে আমিনুল ইসলাম শেষ ওভার পর্যন্ত একাই লড়াই চালিয়ে যান। ৬৯ বলে অপরাজিত ৬৩ রান করেন তিনি। চার নম্বরে নামা শামীম হোসেনের ব্যাট থেকে এলো ৩৯ বলে ৪৪ রান। দলের বাকি ৫ ব্যাটসম্যানের কেউ ডাবল ফিগারেও পৌছালেন না!

ওপেনিং জুটিতে ৩৫ ওভার ব্যাট করে ১৫০ রান তোলা দল কেন ৫০ ওভার শেষে মাত্র ২৪৯ রান করবে-এই ম্যাচে হারের কারণ বিশ্লেষণে বসলে এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতেই হবে বিকেএসপিকে। স্কোরবোর্ডে দলীয় সঞ্চয়কে আরও সমৃদ্ধ করার ভাল একটা সুযোগ ছিলো তাদের সামনে। কিন্তু সেটা তারা নষ্ট করে।

লিগে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচে হেরেছে বিকেএসপি। অন্যদিকে দ্বিতীয় ম্যাচে এটি গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের প্রথম জয়।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: বিকেএসপি: ২৪৯/৭ (৫০ ওভারে, রাতুল খান ৩৪, মাহমুদুল হাসান ৮৫, আমিনুল ৬৩*, শামীম ৪৪, আবু হায়দার ২/৪৬, কামরুল ২/৫২)। গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স: ২৫২/৬ (৪৯.২ ওভারে, মেহেদি হাসান ৭০, শামসুর ২৩, তৈাহিদ তারেক ৭৬*, আবু হায়দার রনি ৩২*, হাসান মুরাদ ৩/৩২)। ফল: গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ৪ উইকেটে জয়ী। ম্যাচ সেরা: তৌহিদ তারেক।

আপনার মতামত লিখুন :

প্রীতি ম্যাচে মেসিহীন আর্জেন্টিনা

প্রীতি ম্যাচে মেসিহীন আর্জেন্টিনা
নিষেধাজ্ঞার কারণে প্রীতি ম্যাচে খেলতে পারছেন না মেসি, ছবি: সংগৃহীত

লিওনেল মেসিকে ছাড়াই প্রীতি ম্যাচ খেলতে যাচ্ছে আর্জেন্টিনা। শুধু মেসি নন। দলে নেই সার্জিও আগুয়েরো এবং অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। তাদের অনুপস্থিতিতে আলবিসেলেস্তের আক্রমণভাগে নেতৃত্ব দিবেন পাওলো দিবালা।

৫ সেপ্টেম্বর চিলির বিপক্ষে খেলবে আর্জেন্টিনা। পাঁচ দিন পর মোকাবেলা করবে মেক্সিকোকে। এই দুই প্রীতি ম্যাচকে সামনে রেখে ২৭ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে কোচ লিওনেল স্কালোনি।

সম্প্রতি শেষ হওয়া কোপা আমেরিকা চলাকালে দক্ষিণ আমেরিকা ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে বেফাঁস মন্তব্য করে ছিলেন মেসি।

সে অপরাধে আন্তর্জাতিক ফুটবলে তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন আর্জেন্টাইনে এ ফুটবল জাদুকর। একারণেই দল থেকে ছিটকে গেছেন বার্সার প্রাণভোমরা।

অক্টোবরে জার্মানির বিপক্ষে একটি প্রীতি ম্যাচ ও বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের একটি ম্যাচও মিস করবেন মেসি।

প্রীতি ম্যাচের আগে বার্সার হয়ে লা লিগায় প্রথম ম্যাচ মিস করেছেন মেসি। ম্যাচে অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে অবশ্য ১-০ গোলে হেরে যায় তার দল। কাফ ইনজুরি কাটিয়ে এখন একা একা অনুশীলন করছেন তিনি। তবে ধারণা করা হচ্ছে, সতীর্থদের সঙ্গে অনুশীলন করতে প্রস্তুত এখন মেসি।

 

ভুয়া হুমকিতে কোহলিদের নিরাপত্তা জোরদার

ভুয়া হুমকিতে কোহলিদের নিরাপত্তা জোরদার
উইন্ডিজ সফররত ভারতীয় ক্রিকেটারদের জন্য বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা, ছবি: সংগৃহীত

ভারতীয় ক্রিকেট দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে। এমন আশঙ্কা উড়িয়ে দিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। তাদের ভাষ্য, পুরো খবরটাই আসলে ভুয়া। ক্রিকেটাররা কোনো ধরনের হুমকির মধ্যে নেই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যে খবর ছড়িয়ে পড়েছে তা পুরোপুরি ধোঁকাবাজি।

শোনা যায়, ১৬ আগস্ট শুক্রবার বেনামি এক ইমেইল পায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। তাতে জানানো হয়, ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফররত ভারতীয় ক্রিকেট দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে। সঙ্গে সঙ্গে তারা ইমেইলটি পাঠিয়ে দেয় আইসিসিকে। ইমেইলের একটি কপি পায় বিসিসিআইও।

শনিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পরিস্থিতি অবহিত করে বিসিসিআই। যোগাযোগ করে অ্যান্টিগাস্থ ভারতীয় দূতাবাসের সঙ্গে। খবর দেওয়া হয় মহারাষ্ট্রের ডিরেক্টর জেনারেল অব পুলিশ (ডিজিপি) ও মুম্বাই পুলিশকেও। সঙ্গে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অ্যান্টিগায় অবস্থানরত ভারতীয় ক্রিকেটারদের।

ইমেইল প্রাপ্তির কথা স্বীকার করে বিসিসিআই জানায়, ইমেইলে ভারতীয় ক্রিকেটারদের মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। তবে তা সত্য নয়। এটা ধাপ্পাবাজি ছাড়া আর কিছুই নয়।

ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে ইতোমধ্যে টি-টুয়েন্টি ও ওয়ানডে সিরিজ জিতে নিয়েছে অধিনায়ক বিরাট কোহলির দল। এখন দুদল মোকাবেলা করবে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে।

অ্যান্টিগায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ভারতের মধ্যে প্রথম টেস্ট শুরু হচ্ছে ২২ আগস্ট।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র