Barta24

বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬

English

ইয়াসিরের সেঞ্চুরির ম্যাচে ‘নায়ক’ আবাহনীর সাইফুদ্দিন

ইয়াসিরের সেঞ্চুরির ম্যাচে ‘নায়ক’ আবাহনীর সাইফুদ্দিন
ছুটি শেষে মাঠে ফিরলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

শেষের হিসেবই মেলাতে পারলো না ব্রার্দাস! আর তাতেই ম্যাচে হার।

আবাহনীর ২৩৭ রানের জবাব দিতে নেমে ব্রার্দাসের ইনিংস থেমে গেলো ২২২ রানে। টেনশনে পড়লেও শেষ পর্যন্ত ১৪ রানের জয়ের হাসি নিয়ে মাঠ ছাড়ে আবাহনী লিমিটেড। লিগে এটি তাদের টানা তৃতীয় জয়।

ব্রার্দাসের ব্যাটসম্যান ইয়াসির আলী নিজেকে ‘ বেচারা’ ভাবতেই পারেন! এক লড়াই করেও দলকে জেতাতে পারলেন না দারুণ ফর্মে থাকা মিডলঅর্ডার এই ব্যাটসম্যান। ১১২ বলে অপরাজিত ১০৬ রান করেন ইয়াসির। কিন্তু তার সঙ্গীরা যে কেউ শেষের হিসেব মেলাতে পারলেন না!

শেষ তিন ওভারে ম্যাচ জিততে ব্রার্দাসের প্রয়োজন দাড়ায় ৩৮ রান। ব্রার্দাস অধিনায়ক মোহাম্মদ শরীফ ও নাইম ইসলাম জুনিয়রকে সঙ্গে নিয়েও সেই লক্ষ্যে পৌছাতে পারেননি ইয়াসির আলী। শরীফ ২৬ বলে করেন ১৭ রান। নাইম ইসলাম জুনিয়র ১৬ বলে ১০ রানের বেশি করতে পারেননি। এই দুজনের রানের চেয়ে বেশি বল খরচ করার ব্যাটিং ব্রার্দাসের দুঃখ বাড়ায়।

এই ম্যাচ দিয়ে চলতি লিগ শুরু করলেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। ৮ ওভারে ৩৯ রানে মাশরাফির শিকার ২ উইকেট। এর মধ্যে শেষের দিকে মোহাম্মদ শরীফের উইকেট তুলে নিয়েই ম্যাচের মোড় পুরোপুরি আবাহনীর দিকে ঘুরিয়ে দেন মাশরাফি। ব্যাট হাতেও ৩ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ১৫ বলে অপরাজিত ২৬ রান করেন তিনি।

আবাহনী একাদশে মাশরাফি ফিরলেও এই ম্যাচে অধিনায়কত্ব করেন যথারীতি মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে হেরে সকালে ব্যাট করতে নামা আবাহনীর টপঅর্ডার ব্যর্থ হয়। মিডলঅর্ডারে নাজমুল হোসেন শান্ত’র ৪৪ ও অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের ৯৫ বলে ৫৪ রান শুরুর সেই ধাক্কা সামাল দেয়।

সাইফুদ্দিন ও মাশরাফির ব্যাটিং আবাহনীর শেষের সঞ্চয় বাড়িয়ে দেয়। সাইফুদ্দিনের ৪৫ বলে অপরাজিত ৫৯ রান জানিয়ে দিলো অলরাউন্ডার হিসেবে নিজেকে ভালই গড়ে তুলছেন তিনি। সাইফুদ্দিন ও মাশরাফি সপ্তম উইকেট জুটিতে মাত্র ৩২ বলে হার না মানা ৬৩ রান যোগ করেন।

বল করলেই উইকেট পাচ্ছেন! চলতি লিগে ব্যাপারটাকে প্রায় নিয়মিতই বানিয়ে ফেলছেন সাব্বির রহমান। লিগে পেছনের তিন ম্যাচের তিনটিতেই উইকেট পেয়েছেন অকেশেনাল এই লেগস্পিনার। এই ম্যাচেও ৫ ওভারে ২১ রানে তার শিকার ২ উইকেট!

সংক্ষিপ্ত স্কোর: আবাহনী ২৩৬/৮ (৫০ ওভারে, নাজমুল ৪৪, মোসাদ্দেক ৫৪, সাইফুদ্দিন ৫৯*, মাশরাফি ২৬* মেহেদি ২/৫৮, নাইম ইসলাম ২/২৮)। ব্রার্দাস: ২২২/৮ (৫০ ওভারে, ইয়াসির আলী ১০৬*, শরীফুল্লাহ ২১, শরীফ ১৭, সাব্বির ২/২১, মাশরাফি ২/৩৯)। ফল: আবাহনী ১৪ রানে জয়ী। ম্যাচ সেরা: সাইফুদ্দিন।

আপনার মতামত লিখুন :

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে আবাহনীর জয়োৎসব

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে আবাহনীর জয়োৎসব
আবাহনী ফুটবলারদের উল্লাস

এএফসি কাপের নকআউট পর্বে আক্রমণের পসরা সাজিয়ে শুরুতে এগিয়ে গিয়েছিল আবাহনী লিমিটেড। কিন্তু উত্তর কোরিয়ান প্রতিপক্ষ এপ্রিল টুয়েন্টিফাইভের ম্যাচে দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন আকাশী-নীলদের ভয় পাইয়ে দিয়েছিল। তবে স্নায়ুচাপের ম্যাচে শেষ হাসি হাসে আবাহনীই। সাত গোলের রোমাঞ্চমাখা ম্যাচ ৪-৩ গোলে জিতে স্বাগতিকরা।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বুধবার ( ২১ আগস্ট) ইন্টার জোনাল প্লে-অফ সেমি-ফাইনালসের প্রথম পর্বে জয়ের উৎসবে মাতে আবাহনী।

আগামী ২৮ আগস্ট ফিরতি লেগে উত্তর কোরিয়ার মাঠে মুখোমুখি হবে দুই দল।

প্রাথমিক দলে ডাক পেলেন গোলরক্ষক হিমেল

প্রাথমিক দলে ডাক পেলেন গোলরক্ষক হিমেল
গোলরক্ষক মাজহারুল ইসলাম হিমেল

একটি পরিবর্তন আসল ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের জন্য ঘোষিত বাংলাদেশের প্রাথমিক দলে। স্কোয়াডে যোগ হল আরামবাগের গোলরক্ষক মাজহারুল ইসলাম হিমেলের নাম।

বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের দ্বিতীয় রাউন্ডে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচকে সামনে রেখে কয়েকদিন আগেই ২৫ জনের প্রাথমিক দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।

বিশ্বকাপ ও ২০২৩ সালের এশিয়ান কাপের বাছাই পর্বে ১০ সেপ্টেম্বর তাজিকিস্তানের দুশানবেতে প্রথম লেগে আফগানদের মোকাবেলা করবে লাল-সবুজ শিবির।

বাছাই পর্বের প্রথম রাউন্ডে লাওসের বিপক্ষে জয়ের ম্যাচে দলে থাকা হিমেল শুরুর দিকে প্রাথমিক দলে ছিলেন না। আশরাফুল ইসলাম রানা, শহীদুল আলম সোহেল, আনিসুর রহমান জিকো- এই তিন গোলরক্ষকের সঙ্গে এবার যোগ হল তার নাম। বুধবার প্রাথমিক দলে হিমেলের যোগ দেওয়ার খবর নিশ্চিত করে বাফুফে।

বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের দ্বিতীয় রাউন্ডে ‘ই’ গ্রুপে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান, ভারত, ওমান ও বিশ্বকাপের স্বাগতিক কাতার।

দুই লেগ মিলিয়ে লাওসকে ১-০ গোলে ধরাশায়ী করে প্রথম রাউন্ডের বাধা উতড়ে যায় বাংলাদেশ।

শুক্রবার (২৩ আগস্ট) কোচ জেমি ডের অধীনে শুরু হবে প্রস্তুতি ক্যাম্প। ১ সেপ্টেম্বর দল দেশ ছাড়বে তাজিকিস্তানের উদ্দেশে।

প্রাথমিক স্কোয়াড

গোলরক্ষক : আশরাফুল ইসলাম রানা, শহিদুল আলম সোহেল, আনিসুর রহমান জিকু ও মাজহারুল ইসলাম হিমেল।

ডিফেন্ডার: বিশ্বনাথ ঘোষ, টুটুল হোসেন বাদশা, সুশান্ত ত্রিপুরা, রহমত মিয়া, মনজুরুর রহমান, ইয়াসিন খান, রিয়াদুল হাসান, নুরুল নাইয়ুম ফয়সাল ও ইয়াসিন আরাফাত।

মিডফিল্ডার: মাসুক মিয়া জনি, জামাল ভুঁইয়া, মামুনুল ইসলাম, সোহেল রানা, রবিউল হাসান, বিপলু আহমেদ, আরিফুর রহমান ও মোহাম্মদ ইব্রাহিম।

ফরোয়ার্ড : নাবিব নেওয়াজ জীবন, মাহবুবুর রহমান সুফিল, মতিন মিয়া, সাদ উদ্দিন ও জুয়েল রানা।

 

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র