১০৭ রানের জবাবে ৯৪ অলআউট!

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম
দুর্দান্ত বোলিংয়ে ম্যাচসেরা জিয়াউর রহমান

দুর্দান্ত বোলিংয়ে ম্যাচসেরা জিয়াউর রহমান

  • Font increase
  • Font Decrease

শেখ জামালকে মাত্র ১০৬ রানে গুটিয়ে দিয়ে শাইনপুকুর বেশি স্বস্তির হাসিই হাসছিলো-যাক টসে জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত তাহলে দারুণই হয়েছে! কিন্তু খানিকবাদে নিজেদের ব্যাটিংয়ের সময় শাইনপুকুরের সেই হাসি উড়ে গেলো। তারা যে অতদুরও যেতে পারলো না! গুটিয়ে গেলো ৯৪ রানে। ফতুল্লায় লো স্কোরের নাটকীয় উত্তেজনায় ঠাসা ম্যাচ শেখ জামাল জিতলো ১২ রানে।

সকালে ব্যাট করতে নামা শেখ জামালের শুরুটা হলো ভয়াবহ বাজে। ৪৭ রানে নেই শুরুর ৫ উইকেট। সেই ধস কেউ আর সামাল দিতে পারলো না। সাত নম্বরে ব্যাট করতে নামা জিয়াউর রহমান ৫৮ বলে ২ ছক্কা ও ২ বাউন্ডারিতে ৪১ রান করায় কোন মতো তিন অংকের ঘরে পৌছায় শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের স্কোর। দলের সাতজন ব্যাটসম্যানের কেউ ডাবল ফিগারেও পৌছাতে পারেননি।

শাইনপুকুরের পেসার শরীফুল ইসলাম ২০ রানে ৩ উইকেট পান। তবে দলের হয়ে সেরা বোলিংটা করেন সাব্বির হোসেন। ৬ ওভারে ২৮ রান খরচায় ৪ উইকেট পান তিনি।
জয়ের জন্য চাই মাত্র ১০৭ রান। সেই কাজ আরো সহজ হয়ে গেলো ওপেনিং জুটিতে শাইনপুকুর ৪৬ রান তোলায়। কিন্তু কে জানতে এরপর ম্যাচে তাদের জন্য কি দুর্ভোগের সময় অপেক্ষা করছে?

ওপেনিং জুটি ভাঙ্গার পর শাইনপুকুরের ব্যাটিং লাইনআপে যেন ‘মড়ক’ লাগে! সাইকেল স্ট্যান্ডে একটা সাইকেল পড়ে গেলে ধাক্কা লেগে যেমন সারিবদ্ধ বাকি সব সাইকেল পড়ে যায়; ঠিক তেমনভাবেই যেন গড়িয়ে পড়লো শাইনপুকুরের ইনিংস! ৪৬ রানে প্রথম উইকেটের পতন। আর ৯৪ রানে অলআউট! সালাউদ্দিন সাকিল নিলেন ৪ উইকেট। আর ১০ ওভার বোলিং করে জিয়াউর রহমানের শিকার ৫ উইকেট!

ম্যাচে ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ স্কোর ৪১ রান। আবার বোলিংয়ে ২৩ রানে ৫ উইকেট। ব্য লো- স্কোরের ম্যাচে ব্যাটে-বলে ওস্তাদি দেখালেন জিয়াউর রহমান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: শেখ জামাল ধানমন্ডি: ১০৬/১০ (৩৫.১ ওভারে, পুনিত ২২, জিয়াউর ৪১, শরীফুল ৩/২০, দেলোয়ার ২/১৪, সাব্বির ৪/২৮)। শাইনপুকুর: ৯৪/১০ (২৯ ওভারে, সাব্বির রহমান ২৬, উদয় ১৭, জিয়াউর ৫/২৩, সালাউদ্দিন সাকিল ৪/২১)। ফল: শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ১২ রানে জয়ী। ম্যাচ সেরা: জিয়াউর রহমান।

আপনার মতামত লিখুন :