Alexa

ক্রিকেটারদের বিয়ের ধুম!

ক্রিকেটারদের বিয়ের ধুম!

সাব্বির রহমান, মমিনুল হক, মুস্তাফিজুর রহমান ও মেহেদী হাসান মিরাজ, ছবি: সংগৃহীত

এই সময়টাকে 'বিয়ের মৌসুম' বলবেন সেই উপায় নেই। সাধারণত শীতকাল জুড়েই চলে এখানে বিয়ের মৌসুম। তবে ক্রিকেটারদের শীতকাল, গ্রীষ্মকাল বলে কিছু নেই। প্রায় সারাবছর জুড়েই খেলা। অবসরের সময় কম। এখন অবশ্য বিশ্বকাপ এবং আয়ারল্যান্ড সফরের আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের লম্বা বিশ্রাম।

সেই সুযোগটাকে বাংলাদেশের চার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার 'বিয়ের কাজে' লাগিয়েছেন। সাব্বির রহমান ইতোমধ্যে 'মিসেস সাব্বিরকে' পেয়ে গেছেন। রাজধানীর মোহাম্মদপুরে নিজের বাসায় কিছুদিন আগে সাব্বির রহমান বিয়ের কাবিন নামায় সই করেছেন। কনের নাম অর্পা। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা বলতে শুধু আকদ করেছেন সাব্বির। কনেকে এখনো ঘরে তুলেননি। ধুমধাম আয়োজনের সেই দিন-তারিখ চূড়ান্ত হয়নি। হলে সব্বাইকে দাওয়াত দেবেন বলে জানিয়েছেন সাব্বির।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) পাঠক যখন এই রিপোর্ট পড়ছেন ঠিক তখনই বিয়ের আসরে আছেন জাতীয় দলের আরেক ক্রিকেটার মেহেদি হাসান মিরাজ। মিরাজের বিয়েটা হচ্ছে আজ ২১ মার্চ। কিন্তু প্রেমের বয়স অনেক পুরনো। এতক্ষণে বোঝা গেল এত লম্বা সময় মিরাজের মোবাইল কার জন্য ব্যস্ত থাকতো! খুলনার ছেলে মিরাজ চুটিয়ে প্রেম করছিলেন একই শহরের রাবেয়া আক্তার প্রীতির সঙ্গে। দুই পরিবারের সম্মতিও ছিল তাদের প্রেমে। সফল সেই প্রেমের লম্বা ইনিংস শেষে দুই জনাই বিয়েতে বিজয়ী!

তবে সাব্বিরের মতো মিরাজও আপাতত আকদ এর মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখছেন বিয়ের ইনিংসকে। আনুষ্ঠানিকতার জন্য আরও বড় আয়োজনের ইচ্ছে তার। সেজন্য সময় নিচ্ছেন। বিশ্বকাপের পরই তার বিয়ের মুল আয়োজন করার চিন্তা ভাবনা।

মুস্তাফিজুর রহমান ও মেহেদি হাসান মিরাজের মধ্যে বন্ধুত্ব দারুণ। সফর চলাকালে দুজনে হোটেলে রুমমেট। ভীষণ মজা করে সময় কাটাতে পছন্দ করেন দুই বন্ধু। মুস্তাফিজ একটু চুপচাপ। মিরাজের চোখেমুখে মস্তিষ্কে দুষ্টামি। অনেককিছুতেই মিল তাদের। বৃহত্তর খুলনা দুজনের বাড়ি। ক্যারিয়ারও শুরু করেছেন দুজনে অল্প-বিস্তর সময়ের ব্যবধানে। দুজনেই অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটে খেলেছেন। এখন একসঙ্গে আবার জাতীয় দলেও। বিয়েটাও করছেন প্রায় একসঙ্গেই। মিরাজের বিয়ে আজ ২১ মার্চ। মুস্তাফিজের বিয়ে কাল ২২ মার্চ।

মুস্তাফিজের বিয়েটা প্রেমের কিনা? সেই তথ্য কোন মতেই তার বা তার ঘনিষ্ঠজন কারো কাছ থেকে বের করা গেলো না। তবে কনে সমিয়া পারভীন শিমু তার অনেক পরিচিত। মামাতো বোন তো পরিচিত হবেই। শিমু ঢাকায় থাকেন। পড়ছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষে। বিয়ের স্টাইলেও মুস্তাফিজ মেহেদি মিরাজের দারুণ মিল। দুজনেই আকদ করছেন এখন। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা পরে হবে।

চারপাশে ক্রিকেটারদের বিয়ের ধুম দেখে কক্সবাজারের ছেলে মুমিনুল হকও বিয়ের ইনিংস শুরুর ঘোষণা দিয়ে ফেলেছেন। তার বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার তারিখও চূড়ান্ত হয়ে গেছে। আগামী ১৯ এপ্রিল। দাওয়াত কার্ড ছাপার কাজ চলছে। মুমিনুলের হবু বউ ফারিয়া বাশার বাণিজ্যের ছাত্রী। পড়ছেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসে (বিইউপি)।

আপনার মতামত লিখুন :