ফতুল্লায় তাইবুরের ব্যাটে দোলেশ্বর উদ্ধার

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম
প্রাইম দোলেশ্বরের জয়ের নায়ক তাইবুর রহমান -ফাইল ছবি

প্রাইম দোলেশ্বরের জয়ের নায়ক তাইবুর রহমান -ফাইল ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

লো-স্কোরের ম্যাচে রান তাড়া করতে নামা দল অনেক সময় বিপদে পড়ে যায়। সেই বিপদেই পড়েছিলো প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব। তবে সঙ্কট কাটিয়ে প্রাইম দোলেশ্বরকে শেষ পর্যন্ত সাত উইকেটের জয় এনে দিলো সৈকত আলী ও তাইবুর রহমানের নির্ভরযোগ্য ব্যাটিং।

ফতুল্লায় বিকেএসপি সকালে মাত্র ১৬০ রানে গুটিয়ে গেলে ধরেই নেয়া হয় খুব সহজেই ম্যাচ জিতে নিচ্ছে দোলেশ্বর। কিন্তু ব্যাট করতে নেমে পাওয়ার প্লে’তেই যে দোলেশ্বরের টপঅর্ডারের পাওয়ার শেষ! ৭.১ ওভারে শুরুর তিন উইকেট হারায় তারা মাত্র ২৫ রানে। বিপদ আরো বাড়লো যখন চার নম্বর ব্যাটসম্যান মাহমুদুল হাসানও ফিরলেন সিঙ্গেল ডিজিটে!

স্কোরবোর্ডে মামুলি সঞ্চয় নিয়েও তখন বিকেএসপির চোখে ম্যাচ জেতার সাহসী স্বপ্ন। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্নের পথে বড় বাধা হয়ে দাড়ালো সৈকত আলী ও তাইবুর রহমানের পঞ্চম উইকেট জুটি। ৫০ রানে শুরুর চার উইকেট হারানো প্রাইম দোলেশ্বরকে ম্যাচে আপসেটের হাত থেকে রক্ষা করে তাদের ৫৭ রানের জুটি। সৈকত আলী ৭৮ বলে ৪৩ রান করে ফিরে গেলে ইনিংসের মাঝে ফের একটা ধাক্কা খায় দোলেশ্বর। সাদ নাসিম ও ফরহাদ রেজা চটজলদি আউট হয়ে যান।

তবে উইকেটের একপ্রান্ত আঁকড়ে রেখে তাইবুর রহমান ব্যাট হাতে ম্যাচের একমাত্র হাফসেঞ্চুরি হাঁকিয়ে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়েন। তাইবুর ৬ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় অপরাজিত ৬১ রান করেন। হন ম্যাচ সেরা পারফর্মার।

বিকেএসপির মিডিয়াম পেসার তানজিম হাসান সাকিব ক্যারিয়ারে তার সেরা বোলিং করেন এই ম্যাচে। ১০ ওভারে ৩৫ রানে ৩ উইকেট শিকার করেন তানজিম। ৩ উইকেটের এই জয়ের সুবাদে প্রাইম দোলেশ্বর ৬ ম্যাচে ৫ জয়ে পয়েন্ট টেবিলে আরো তিন দলের সঙ্গে শীর্ষে উঠে এলো।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: বিকেএসপি: ১৬০/১০ (৪৪.৪, প্রান্তিক ৩০, জয় ২২, আমিনুল ১৮, শামীম ২০, আকবর আলী ২৮, আরাফাত সানি ২/২৯, সৈকত আলী ২/৩৮, এনামুল হক জুনিয়র ২/৩৯)। প্রাইম দোলেশ্বর: ১৬৫/৭ (৪৫ ওভারে, সৈকত আলী ৪৩, তাইবুর ৬১*, তানজিম ৩/৩৫)। ফল: প্রাইম দোলেশ্বর ৩ উইকেটে জয়ী। ম্যাচ সেরা: তাইবুর রহমান।

আপনার মতামত লিখুন :