Alexa

ফিরমিনো ম্যাজিকে শেষ চারের পথে লিভারপুল

ফিরমিনো ম্যাজিকে শেষ চারের পথে লিভারপুল

দুর্দান্ত জয়ে সেমি-ফাইনালের সুবাস পাচ্ছে লিভারপুল

ফেভারিট হয়েই মাঠে নেমেছিল ইংলিশ জায়ান্টরা। ৯০ মিনিট শেষে ঠিক ফেভারিটেরই মতো হাসিমুখে মাঠ ছাড়ল লিভারপুল। মোহাম্মদ সালাহ চেনা পথে ছিলেন না! তবে রবের্তো ফিরমিনো ঠিকই ঝড় তুললেন। তার ম্যাজিকেই পোর্তোর বিপক্ষে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ল অলরেডরা।

মঙ্গলবার রাতে এনফিল্ডে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগে ২-০ গোলে জয় তুলে নেয় লিভারপুল। ইংলিশ জায়ান্টদের হয়ে প্রথম গোলটি করেন নাবি কেইতা। পরেরটি ফিরমিনোর।

ইতিহাস লিভারপুলের সঙ্গেই ছিল। পোর্তের বিপক্ষে আগের ৬ ম্যাচে হার দেখেনি অলরেডরা। এবারো পর্তুগালের ক্লাবটিকে হারাল তারা। তারই পথ ধরে ইউরোপিয়ান ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদা পূর্ণ এই লড়াইয়ের সেমি-ফাইনালে এক পা দিয়ে রাখলো প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবটি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/10/1554864296674.jpg

খেলার শুরু থেকেই নিজেদের মাঠে একচেটিয়া দাপট ছিল লিভারপুলের। ৫ মিনিটের মাথায় প্রথম সুযোগেই গোল পায় ফেভারিটরা। ফিরমিনোর পাস ধরে গোল আদায় করে নেন কেইতা। এর দশ মিনিট পরই ব্যবধান দ্বিগুণ হতে পারতো। কিন্তু সেই ফিরমিনোর পাসে হতাশ করেন সালাহ!

অবশ্য খেলার ২৬তম মিনিটেই ২-০ গোলে এগিয়ে যায় লিভারপুল। এবার নিজেই গোল করেন ফিরমিনো। সতীর্থ ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার-আরনল্ডের পাস থেকে বল পেয়ে নিশানা খুঁজে নেন দলের এই ব্রাজিলিয়ান তারকা।

এরপর খেলার ফেরার অনেক চেষ্টাই করেছে পোর্তো। কিন্তু লিভারপুলের রক্ষণভাগের বাধা পেরোতে পারেনি। আবার গোল সংখ্যা বাড়িয়ে নিতে পারতো স্বাগতিকরাও। কিন্তু সালাহ-সাদিও মানেরা গোল পাননি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/10/1554864326777.jpg

তারপরও এগিয়ে থেকেই শেষ করলো লিভারপুল। ১৭ এপ্রিল ফিরতি লেগে পোর্তোর মাঠে খেলতে নামবে তারা। যেখানে ড্র করতে পারলে কিংবা ০-১ গোলে হারলেও তারা উঠে যাবে সেমিতে। আর পোর্তোকে জিততে হবে কমপক্ষে তিন গোলের ব্যবধানে।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মঙ্গলবার রাতে কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগের আরেক ম্যাচে মুখোমুখি হয় দুই ইংলিশ ক্লাব। টটেনহ্যাম হটস্পার ১-০ গোলে হারায় ম্যানচেস্টার সিটিকে। গোলশূন্য ড্র হতে যাওয়া ম্যাচে সন হিউং-মিনের গোলে সেমির পথে এগিয়ে গেলো টটেনহ্যাম।

আপনার মতামত লিখুন :