হারে শুরু হারে শেষ গাজী-খেলাঘরের

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট,বার্তা২৪.কম
শাইনপুকুর-খেলাঘর ম্যাচে হাফসেঞ্চুরির পথে সাদমান ইসলামের একটি শট/ ছবি: সংগৃহীত

শাইনপুকুর-খেলাঘর ম্যাচে হাফসেঞ্চুরির পথে সাদমান ইসলামের একটি শট/ ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগের চলতি মৌসুমে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের শুরুটা হয়েছিল মোহামেডানের কাছে হার দিয়ে। বৃহস্পতিবার শেষ হলো প্রাইম ব্যাংকের কাছে ৩৪ রানের হার দিয়ে।

২০১৭ সালের ঢাকা লিগ চ্যাম্পিয়নরা এবার যে সুপার লিগেও উঠতে পারলো না। লিগের শেষ ম্যাচে গাজী গ্রুপের কাজটা বেশ কঠিনই হয়ে দাঁড়িয়ে ছিল। সুপার লিগে খেলতে হলে তাদের এই ম্যাচ জিততেই হতো। সেই সঙ্গে প্রার্থনাও করতে হতো মোহামেডান যেন এদিন তাদের ম্যাচে হারে!

কিন্তু দুটির কোনোটাই যে পুরো হলো না গাজীর। নিজেরাও জিতলো না, অন্যদিকে মোহামেডানও হারলো না! ১১ ম্যাচে পাঁচ জয় ও ছয় হার নিয়ে এবারের ঢাকা লিগ শেষ করলো গাজী গ্রুপ অষ্টম হয়ে। ১২ দলের মধ্যে আট! অথচ লিগ শুরুর আগে চ্যাম্পিয়নশিপের দাবিদার ছিল গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স।

সাভারের বিকেএসপির মাঠে প্রাইম ব্যাংক সকালে ব্যাটিংয়ে খুব বড় কিছু করতে পারেনি। ২০১ রানে থামে তাদের ইনিংস। পুরো ইনিংসে কোনো হাফসেঞ্চুরি নেই। শেষের দিকে নাঈম হাসান ও আরিফুল হক দুজনেই ৩৪ করে রান করায় কোনোমতে ২০০ রানের কোটা পার করে প্রাইম ব্যাংক। গাজীর অফস্পিনার সনজিত সাহা এই ম্যাচেও ভাল পারফরমেন্স করেন। ১০ ওভারে এক মেডেনসহ ৩০ রানে শিকার করেন তিন উইকেট। নাসুম ও কারমান দুটি করে উইকেট পান।

মামুলি এই স্কোর তাড়া করতে নেমে গাজী গ্রুপ মুখ থুবড়ে পড়ে। ওপেনার মাইসুকুর রহমান ছাড়া আর কোন ব্যাটসম্যান উইকেটে টিকতেই পারেননি। মাইসুকুর ১২৪ বলে ৭৪ রান করে চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন। গাজীর স্কোর তখন ৪৩ ওভারে ৭ উইকেটে ১৬১ রান। জয়ের জন্য বাকি পথটা আর পাড়ি দিতে পারলেন না দলের বাকি ব্যাটসম্যানরা।

এদিকে দিনের আরেক ম্যাচে মিরপুরে বৃষ্টি আইনে শাইনপুকুর ১৫ রানে জয় পেয়েছে খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতির বিপক্ষে। খেলাঘর ১৯০ রানে তাদের ইনিংস শেষ করে। ওপেনার সাদমান ইসলামের হাফসেঞ্চুরির সুবাদে ম্যাচে সরাসরি জয়ের পথেই ছিল শাইনপুকুর। কিন্তু বৈশাখের আগমনী বৃষ্টিতে ৪১ ওভারের সময় খেলা বন্ধ হয়ে যায়। শাইনপুকুরের স্কোর তখন ছয় উইকেটে ১৬৫ রান। বৃষ্টির কারণে আর খেলা শুরু করা যায়নি। শাইনপুকুর তখন ডার্কওয়ার্থ লুইস মেথে অনুযায়ী ম্যাচে এগিয়ে। সেই আইনে তারা ১৫ রানে ম্যাচ জিতে।

আপনার মতামত লিখুন :